• রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:৩৭ পূর্বাহ্ন |

কুড়িগ্রামে শষ্য বিন্যাসে কৃষক মাঠ দিবস পালিত

Kurigram math dibosh photo 29.01.14
শাহ আলম, কুড়িগ্রাম: কৃষি শষ্য বিন্যাসের মাধ্যমে একই জমিতে উন্নতজাতের ধান-সরিষা-ধান চাষ করে অধিক ফসল উৎপাদনের জন্য কৃষক মাঠ দিবস পালিত হয়েছে।
বুধবার কুড়িগ্রাম সদরের বেলগাছায় রংপুর-সিসা বিডির এগ্রিকালচার ডেভলপমেন্ট অফিসার কৃষিবিদ মাহবুবুর রহমান এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। কৃষক জিতেন্দ্রনাথ সরকারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন উপ-সহকারী কৃষি অফিসার আতাউর রহমান, মেম্বার মানবেন্দ্রনাথ সরকার, প্রকল্প সমন্বয়কারী জাহাঙ্গীর আলম, হুমায়ুন কবির সূর্য্য প্রমুখ।
সিরিয়াল সিস্টেম ইনিসিয়েটিভ ফর সাউথ এশিয়া ইন বাংলাদেশ-সিসা এর আর্থিক সহায়তায় কুড়িগ্রাম ও রংপুর জেলার ১০টি ইউনিয়নে ২২৩জন কৃষককে পরীক্ষামূলকভাবে উন্নতজাত বারি সরিষা-১৫ চাষ করা হয়। এতে প্রায় আড়াই শ’ বিঘা জমিতে এজাতের সরিষা চাষ করা হয়। বিঘা প্রতি উৎপাদন হয় ৫ থেকে ৬ মন। যা সাধারণ সরিষার চেয়ে ২ থেকে ৩ মন অধিক। আগামজাতের ধান ব্রিধান-৫৬ চাষের পর কৃষকরা সহজে মধ্যবর্তী সময়ে বারি সরিষা-১৫ চাষ করতে পারবেন। ফলে একই জমিতে ধান-সরিষা-ধান চাষ করে শষ্য বিন্যাসের মাধ্যমে কৃষকরা অধিক ফসল ঘরে তুলতে পারবে। বেসরকারি সংস্থা সলিডারিটি কার্যক্রমটি বাস্তবায়নের দায়িত্বে রয়েছে।
এ ব্যাপারে সিসা’র এসোসিয়েট সাইনটিস্ট ড. হযরত আলী জানান, ৮৫ থেকে ৮৭ দিনের মধ্যে ফলন পাওয়া যায়। গাছের উচ্চতা ১৩৫ থেকে ১৪০ সে.মিটার। ব্রাঞ্চ থাকে ৮-৯টি, পট আছে ৯০-১০০টি, একটি পটে ২২-৩২টি বীজ থাকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ