• রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৮:১৩ অপরাহ্ন |

নওগাঁ পিটিআইয়ের প্রিয়াংকা চাম্পিয়ন

Naogaon Picture 29-01-2014_2
নওগাঁ প্রতিনিধি: রাজশাহী বিভাগীয় পর্যায়ের আন্তঃ পিটিআই সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় নওগাঁ পিটিআই এর প্রশিক্ষনার্থী প্রিয়াংকা সরকার তিনটি বিভাগে প্রথম হয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরভ অর্জন করেছেন। বুধবার বিকেলে নওগাঁ পিটিআই ইন্সটিটিউট মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে তাকে এই তিনটি বিভাগের পুরস্কার প্রদান করেন পিটিআইয়ের সুপারিনটেনডেন্ট আব্দুল মান্নান প্রামানিক। এ সময় পিটিআইয়ের সহকারী সুপার আবু আব্দুলল্লাহ মোঃ সানাউলল্লা, ইনস্ট্রাক্ট মমতাজুল ইসলাম, সেলিনা আখতার, ওয়াজেদ আলী, কাউছার আলী, আফসারি খানুম ও ফয়সাল ইসলামসহ প্রশিক্ষনার্থীরা উপস্থিত ছিলেন। প্রাথমিক শিক্ষা রাজশাহী বিভাগের আয়োজনে গত ২০ জানুয়ারী রাজশাহী পিটিআই মিলনায়তনে বিভাগের ১০টি পিটিআই ইন্সটিটিউটের প্রশিক্ষনার্থীদের নিয়ে বিভাগীয় আন্তঃ পিটিআইয়ের পর্যায়ের ১০টি ইভেন্টে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিযোগিতায় প্রিয়াংকা সরকার রবীন্দ্র সংগীত, নজরুল গীতি ও পল্লীগীতি এই তিনটি ইভেন্টে অংশগ্রহন করে তিনটি বিভাগেই প্রথম স্থান অধিকার করেন। আগামীতে ঢাকায় জাতীয়ভাবে এই সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হবে বলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন।

মাতবরের নির্দেশে ৯পরিবার ৬মাস ধরে অবরুদ্ধ!!
নওগাঁয় গ্রাম্য মাতবরের নির্দেশে ৯পরিবারকে সমাজত্যাগি করেছে বলে জানা গেছে। ঘটনাটি ঘটেছে জেলার সদর উপজেলার পার-বোয়ালিয়া (উত্তর পাড়া) গ্রামে। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ওই সমাজত্যাগি পরিবারের ভূক্তভোগী একই গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের ছেলে মোঃ ছহির উদ্দীন বাবু স্থানীয় প্রশাসনের বরাবরে অভিযোগ দাখিল করেছেন। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ছহির উদ্দীন বাবুর ভাইয়ের বিয়েতে গ্রামের মাতবরদের বিয়ের অনুষ্ঠানে দাওয়াত না দেওয়ার কারণে গত ৬মাস ধরে ৯টি পরিবারকে সমাজত্যাগি করে রেখেছে গ্রাম মাতবরেরা। অভিযোগে আরো জানা যায়, মাতবরেরা ঐসব সমাজ ত্যাগি পরিবারের সঙ্গে কেউ কথা বললে এক হাজার টাকা, ভ্যান বা রিক্সাই কেউ নিয়ে গেলে তাদের কাছ থেকে দেড় হাজার টাকা জরিমানা নির্ধারণ সহ ঐসব পরিবারের কেউ কোন কাজ করতে পারবে না বলে নির্দেশ দেন। এ বিষয়ে গ্রামে কয়েকবার শালিশ হলেও কোন সুরাহা হয় নি বলে জানা যায়। বর্তমানে ঐ ৯পরিবারের অর্দ্ধশতাধিক লোকজন জনবিচ্ছিন্ন হয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে বলে জানা গেছে। ঐসব গ্রাম মাতবরেরা হলেন, একই গ্রামের নজরুল ইসলাম (৫৫), পিতা মৃত-রহিম মন্ডল, এচাহক (৪৮) মৃত- কমর উদ্দিন, মোসলিম (৬০) পিতা মৃত- মনসের, ফজল (৫৮) পিতা মৃত- কিসমত সরদার, হাকিম (৪৫) পিতা মৃত- রিয়াজ উদ্দীন। মাতবরদের সাথে এ বিষয়ে কথা বলার চেষ্টা করে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি। এ বিষয়ে স্থানীয় ইউ,পি চেয়ারম্যান মোস্তাক হোসেনের সেল ফোনে কথা বলার চেষ্টা করলে তার ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। এ নিয়ে নওগাঁ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) জাহিদ হোসেনের সঙ্গে কথা বললে তিনি ঘটনার কিছুই জানেন না বলে এ প্রতিবেদক কে জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ