• বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৩১ পূর্বাহ্ন |

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের মারামারি

Jagonath
জবি প্রতিনিধি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মারামারিতে অন্তত চার জন আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় চার নেতাকর্মীকে সংগঠন থেকে স্থায়ীভাবে বহিষ্কার করা হয়েছে।

শুক্রবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি এফএম শরিফুল ইসলামের অনুসারীদের সঙ্গে উপ-পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক সাইফুল আমিন নাবিদ ও তার অনুসারীদের এ সংঘর্ষ হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী ও ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক প্রথম বর্ষে ভর্তিচ্ছু এক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে নাবিদ মোটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন বলে অভিযোগ আসায় বেলা সাড়ে ১২টার দিকে তাকে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন সংগঠনের সভাপতি শরিফুল।

এক পর্যায়ে নাবিদ সভাপতির সঙ্গে অশোভন আচরণ করলে শরিফুলের সঙ্গে থাকা নেতাকর্মীরা তাকে মারধর করেন। এ সময় নাবিলের অনুসারীরাও মারামারি শুরু করে।

তখন উভয়পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নাবিদ, তরিকুল ও রমিজ  আহত হন।

সংঘর্ষের পর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে নাবিদের সঙ্গে সংগঠনের সহ সম্পাদক তরিকুল, উপপরিকল্পনা ও কর্মসূচি বিষয়ক সম্পাদক রমিজ ও কর্মী রুবেলকে বহিষ্কারের কথা বলা হয়।

গুরুতর আহত অবস্থায় নাবিদকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বহিষ্কৃত বাকি তিনজনকে  আটক করেছে কোতয়ালি থানা পুলিশ।

নাবিদ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পক্ষের কর্মী বলে ছাত্রলীগের একাধিক সূত্র নিশ্চিত করলেও সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম দাবি করেন, নাবিদ তার কর্মী নয়।

চড়ের বিষয় অস্বীকার করে ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম বলেন, ভর্তিচ্ছুক শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রতারণায় জড়িত থাকায় সাইফুল ইসলাম নাবিদসহ ছাত্রলীগের সহসম্পাদক তরিকুল ইসলাম, উপ-কর্মসূচি পরিকল্পনা সম্পাদক রমিজ উদ্দিন, সদস্য শেখ রুবেলকে সংগঠন থেকে বহিস্কার করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অশোক কুমার সাহা বলেন, ক্যাম্পাসে ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগসহ বিভিন্ন কারণে পাঁচ জনকে আটক করেছে পুলিশ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ