• বৃহস্পতিবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২১, ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন |

জলঢাকায় ব্যস্ত ইরি বোরো চাষীরা

PICTURE
জলঢাকা (নীলফামারী) প্রতিনিধি: জলঢাকায় আলু,বেগুন,কপিসহ বিভিন্ন সবজির লোকসান পুষিয়ে নেওয়ার জন্য ইরি বোরো আবাদে কোমড় বেধে মাঠে নেমে পরেছে এ অঞ্চলের চাষীরা। অন্য দিকে ধানের দাম বাড়ায় বেশি উৎপাদনের আশায় দিনরাত সেচ, চাষ ও চারা লাগানোর জন্য ব্যস্ত সময় পার করছে তারা। স্থানীয় কৃষি বিভাগের তথ্য অনুযায়ী এবার ১৫ হাজার হেক্টর জমিতে এবার ইরিবোরো আবাদ হবে। জানা গেছে, গত ১ মাস ধরে আলু, বেগুন, ফুলকপি, বাঁধাকপি বিভিন্ন সবজিতে অনেক লোকসান গুনে ইরি-বোরোতে পুশিয়ে নিতে বোরো আবাদে দীর্ঘ সময় পার করছে কৃষকেরা। যারা বীজতলা রোপন করেনি, ধানের দাম বাড়ায় তারাও চারা কিনে জমিতে রোপন করছে। উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ঘুরে দেখা গেছে, শ্যালো মেশিন, সেচপ্াম্প, গভীর নলকূপ, ক্যানেল, পা-মেশিনসহ মাটির কুয়া থেকে পানি উঠিয়ে জমি তৈরী করছে। খুটামারার কৃষক হোসেন আলী জানান, আলু কপিতে মেলা লোকসান হইছে। শ্যাষ ভরসা এই ধান। স্ক্রীম ধানোত নাগি পড়ছি। আগোত গারিলে বেশি ধান হইবে। গাবরোলের কৃষক আকরাম হোসেন জানান, খেয়া নাখেয়া সুদের ওপর টাকা নিয়া শ্যালোর তেল কিনি ওয়াবাড়ীত পানি দেইছি। ধান ব্যাচের সময় দাম না হইলে মরন। বালাগ্রামের কৃষক আবুল হোসেন জানান, হামার বিচন সব নষ্ট হইছে, তাই বিচোন কিনি ২ দোনের মাটি গারনু। সোবায় কয়চে পরে ধানের দাম হইবে। উপজেলা কৃষি উপসহকারী কর্মকর্তা আব্দুল আজিজ জানান, এবার রেকর্ড ১৫ হাজার হেক্টর জমিতে ইরিবোরোর লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে, আশা করি এটা ছাড়িয়ে যাবে, কারণ এই আবাদের উপর কৃষকরা গুরুত্ব দিচ্ছে ধানের দাম বাড়ার কারণে। এসময় চারা লাগালে ক্ষেতের রোগবালাই হয় না, তাই উৎপাদন বেশি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ