• সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০১:৫৩ অপরাহ্ন |

নওগাঁয় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ: ৭ রাউন্ড গুলি

Songorso-1নওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁ সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার দুপুর আড়াইটার দিকে এ ঘটনাটি ঘটে। এ ঘটনায় ছাত্রলীগ নওগাঁ সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ শাখার যুগ্ম আহবায়ক তারেক মাহমুদ ও পলেটেকনিক ইন্সিটিটিউট শাখার যুগ্ম আহবায়ক মেহেদী হাসান আহত হয়েছেন। আহতদের উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক গোলাম আজম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, গত মঙ্গলবার নওগাঁ সরকারী কলেজে শাখা ছাত্রলীগের একটি আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটিতে বাদপড়া কয়েকজন সংঘবদ্ধ হয়ে বুধবার বেলা আড়াইটার দিকে বেশ কিছু বহিরাগতদের সাথে নিয়ে কলেজ ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে নতুন কমিটির নেতৃবৃন্দদের ওপর হামলা চালালে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় তারেক ও মেহেদী আহত হন। নওগাঁ সদর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সমীর সূত্রধর জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে উভয় গ্রুপকে ছত্রভঙ্গ করতে শর্টগানের ৭ রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে। ঘটনার পর থেকে কলেজ ক্যাম্পাস ও আশেপাশের এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

গ্রামীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন
নওগাঁ ষ্টেডিয়ামে জেলা পর্যায়ে গ্রামীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে ফেষ্টুন উড়িয়ে খেলার উদ্বোধন করেন নওগাঁর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কফিল উদ্দিন। গতকাল বুধবার দুপুরে নওগাঁ ষ্টেডিয়ামে জেলা ক্রীড়া সংস্থার ব্যবস্থাপনায় জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ এর আয়োজন করে। এ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি হারুন-উর-রশিদ, সাধারন সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম ধলু প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। গ্রামীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় জেলার ৫টি উপজেলার ১০টি স্কুলের ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহন করে। গ্রামীন ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় সাতচার, বৌচি, গোল্লাছুট, দারিয়া বান্দা, ডাংগুলি, দড়ি লাফ, বিস্কুট দৌড়, তৈলাক্ত বাঁশে উঠা, এককা-দুক্কা, মোরগ লড়াই, কানামাছি ভোঁ ভোঁ খেলা অনুষ্ঠিত হবে।

ভূঁয়া ডাক্তার আটক!!
নওগাঁয় এক ভঁয়া ডাক্তার আটক হয়েছে বলে জানা গেছে। জানা যায়, নওগাঁ শহরস্থ বালুডাঙ্গা বাসষ্টান্ডের সন্নিকটে অবস্থিত কলকাতা হারবাল মেডিকেয়ার লিঃ প্রতিষ্ঠান নামে দীর্ঘ দিন থেকে ভূঁয়া চিকিৎসক সেজে হারবাল চিকিৎসার নামে সাধারণ মানুষকে প্রতারণা করে রমরমা ব্যবসা করে আসছিল। তাদের প্রতানরার শিকার হয়ে জেলার আত্রাই উপজেলার ফুলবাড়ী গ্রামের মৃত খন্দকার সাইফউদ্দিনের ছেলে আব্দুল মালেক সংশ্লিষ্ট বিষয়ে নওগাঁ জেলা প্রশাসক ও সিভিল সার্জন বরাবরে ঐ প্রতারকদের বিরুদ্ধে প্রতিকার চেয়ে আবেদন করেন। উক্ত আবেদনের প্রেক্ষিতে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সারোয়ার মোর্শেদ ও সিভিল সার্জনের অফিস থেকে ডা: নজরুল ইসলাম সঙ্গীয় পুলিশ নিয়ে যৌথ অভিযান চালিয়ে গতকাল বুধবার দুপুরে উক্ত প্রতিষ্ঠানে গিয়ে ডাক্তার ওসমান গণি (৩২) এর নিকট থেকে প্রতিষ্ঠানের বৈধতা প্রমাণের কাগজপত্র তলব করেন। কিন্তু উক্ত ডাক্তার ওসমান গণি তার ডাক্তারি পাশের সনদ পত্র, প্রতিষ্ঠানের রেজিষ্ট্রেশন, ড্রাগ লাইসেন্স, কেমিষ্ট, ল্যাবরেটরি সংক্রান্ত কোন কিছুই ডকমেন্ট দেখাতে পারেননি। ফলে ঐ ডাক্তারকে তাৎক্ষনিক আটক করে নওগাঁ অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিষ্ট্রেটের অফিস কক্ষে নিয়ে এসে তার বিরুদ্ধে প্রতারণা অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করেন। আটককৃত ভূঁয়া ডাক্তার মাদারিপুর জেলার শিবচর উপজেলার ঢালিকান্দি গ্রামের নুরউদ্দীন নিরবল ওরফে নুরা নিরবলের ছেলে বলে জানা যায়। প্রকাশ থাকে যে, উক্ত প্রতিষ্ঠানের মালিক একই এলাকার উত্তর পাটকান্দা গ্রামের মৃত আব্দুল মজিদ ফরাজির ছেলে শহিদুল ইসলাম বিপ্লব (২৮) দীর্ঘ দিন থেকে দেশের রাজধানী সহ বিভিন্ন জেলায় অন্যের প্রতিষ্ঠান কলকাতা হারবাল লিঃ নামের মিল রেখে কলকাতা হারবাল মেডিকেয়ার লিঃ প্রতিষ্ঠান সাজিয়ে প্রতারণা করে আসছিল বলে অভিযোগ রয়েছে। এ বিষয়ে নওগাঁর সিভিল সার্জন ডাঃ আলাউদ্দীনের সঙ্গে কথা বললে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিষয়টি সরেজমিনে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ