• সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ১১:৪৬ অপরাহ্ন |

বিএনপিকে পাত্তাই দিচ্ছে না জামায়াত!

bnp-jamat2সিলেট: চূড়ান্ত আন্দোলনের মাঠে নিষ্ক্রিয়তা, জামায়াতের উপর অধিক নির্ভরশীলতা বিএনপির জন্য কাল হয়ে দাঁড়াচ্ছে। দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ না নিলেও আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে একক প্রার্থী দিয়ে সরকারকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিতে চাইলেও বিএনপিকে পাত্তা দিচ্ছে না জোটের শরিক জামায়াতে ইসলামী।
ফলে নিজেদের মধ্যে দ্বন্দ্বের সুযোগে নির্বাচনী মাঠে বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোটকে কলা দেখিয়ে আওয়ামী লীগ উপজেলা নির্বাচনের ফলাফলও হাতের মুঠোয় নেয়ার সম্ভাবনা।
বিএনপি ও জামায়াতের নেতাদের সঙ্গে আলাপকালে জানা গেছে, আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জোটবদ্ধভাবে একক প্রার্থী দিতে স্বয়ং বেগম খালেদা জিয়া নির্দেশ দিয়েছেন। একক প্রার্থী চূড়ান্ত করতে একাধিক টিমও গঠন করা হয়েছে। এ নিয়ে জোটের দলগুলোর মধ্যে দফায় দফায় বৈঠকও হয়েছে। কিন্তু কোনোভাবেই ছাড় দিচ্ছে না জামায়াতে ইসলামী। প্রায় প্রতিটি উপজেলায় বিএনপির প্রার্থীর পাশাপাশি প্রার্থী দিয়েছে জামায়াত।
একই অবস্থা সিলেটেও। আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য সিলেটের ৬ উপজেলায় একক প্রার্থী দিয়েছে জামায়াত। গত সপ্তাহে বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান শমসের মবিন চৌধুরী সিলেটের একটি হোটেলে এ নিয়ে জামায়াতের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠক করে কোনো সুরাহা করতে পারেননি।
জামায়াতের অভিযোগ সরকারবিরোধী আন্দোলনে এককভাবে লড়ে গেলেও বিএনপির নেতাকর্মীরা থাকেন সুখনিদ্রায়। আর নির্বাচন এলে প্রার্থী হওয়ার জন্য নেতাদের অভাব থাকে না। তাই তারা বিএনপিকে ছাড় দিতে রাজি নয়।
এ ব্যাপারে সিলেট মহানগর জামায়াতের সেক্রেটারি ফখরুল ইসলাম বাংরামেইলকে বলেন, ‘এটা কোনো দলীয় নির্বাচন নয়, তাই যে যার মতো পারছে নির্বাচনে দাঁড়াচ্ছে। এখানে জোট কিংবা জামায়াতের কোনো দলীয় প্রার্থী মনোনয়ন দেয়ার সুযোগ নেই।’
তবে জামায়াত ও শিবিরের মহানগর পর্যায়ের সিনিয়র কয়েকজন নেতা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বাংলামেইলকে জানান, জামায়াতের দুর্দিনে বিএনপির কোনো নেতাকর্মীকে পাশে দেখা যায়নি। এমনকি জোটের কর্মসূচিতে নামমাত্র একটি দুইটি মিছিল করে ফটোসেশনের পর বিএনপির নেতাকর্মীরা ঘরে চলে যায়। রাজপথে জীবন দিতে হয় জামায়াত-শিবির নেতাকর্মীদের। রাজপথে যেমন জামায়াত-শিবির ছিল তেমনি উপজেলা নির্বাচনে জামায়াতের প্রার্থীরা থাকবে।
তারা উদাহরণ দিয়ে জানান, গত ২৯ ডিসেম্বর ঢাকায় খালেদা জিয়া ঘোষিত ‘মার্চ ফর ডেমোক্রেসি’র চূড়ান্ত সময়েও বিএনপি ও তাদের অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের মাঠে দেখা যায়নি। একই সময় বিভিন্ন প্রান্ত থেকে মিছিল করার অঙ্গীকার করে ছাত্রদল বের হয়নি। ফলে এককভাবে মিছিল করতে গিয়ে প্রথমদিন জীবন দিতে হয় শিবিরের একজনকে।
এ ব্যাপারে সিলেট জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি দিলদার হোসেন সেলিম বাংলামেইলকে বলেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে জামায়াতের ভূমিকা জোটের রাজনীতির পক্ষে ইতিবাচক নয়। তাদের অবস্থান অনেকটাই রহস্যময়। উপজেলা নির্বাচনে জোটগত সিদ্ধান্ত নেয়ার পরও স্বতন্ত্র অবস্থান নিয়েছে জামায়াত।’
প্রথম ধাপের উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষদিনে জোট সমর্থিত প্রার্থীরা ছাড়া বাকিরা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করার কথা থাকলেও জামায়াত তা করেনি।
জৈন্তাপুর উপজেলায় ১৯ দলীয় জোটের স্বার্থে জামায়াত প্রার্থী ও বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান জয়নাল আবেদীনকে ছাড় দিয়েছে বিএনপি। ওই উপজেলায় বিএনপি শক্ত প্রার্থী ও বর্তমান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মহিবুল হক মুহিব মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছেন। কিন্তু বিশ্বনাথের জামায়াত প্রার্থী বিএনপি প্রার্থীকে সমর্থন দেননি। ওই উপজেলায় সুহেল আহমদকে ১৯ দলীয় জোট পক্ষ থেকে সমর্থন দেয়া হয়েছে। কিন্তু জামায়াত জোটের সিদ্ধান্ত অমান্য করে তাদের প্রার্থী মো. নিজাম উদ্দিন সিদ্দিকীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করাচ্ছে। একইভাবে গোলাপগঞ্জেও বিএনপিকে জামায়াত ছাড় না দিয়েই তাদের প্রার্থী দিয়েছে। উপজেলা আমির হাফিজ নাজমুল ইসলাম সেখানে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
এ অবস্থার ফলে উভয় দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের মাঝে বর্তমানে চরম হতাশা ও সম্পর্কের গা-ছাড়াভাব পরিলক্ষিত হচ্ছে। বিএনপি নেতারা বলছেন, এভাবে জোটের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে জামায়াত প্রার্থী দিলে আওয়ামী লীগ উপজেলা নির্বাচনের ফলাফলও নিজেদের ঘরে তুলে নেবে।
জামায়াত সূত্র দাবি করছে, যেসব উপজেলায় জামায়াতের সাংগঠনিক অবস্থান ভালো সেসব উপজেলায় প্রার্থী দেয়া হয়েছে। এসব উপজেলায় জামায়াত প্রার্থী বিজয়ী হওয়ার সম্ভাবনা থাকার পরও বিএনপি দুর্বল প্রার্থীদের সমর্থন দিয়ে ভরাডুবি নিশ্চিত করতে চায়।
তবে এ ব্যাপারে বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) রুহুল আলম চৌধুরী বাংলামেইলকে বলেন, ‘সুষ্ঠু নির্বাচন হলে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীরাই জয়লাভ করবে।’
উৎস: বাংলামেইল


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ