• রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:০৩ পূর্বাহ্ন |

মালয়েশিয়াগামী ২১১ যাত্রীকে টেকনাফ থানায় সোপর্দ

1111সিসি ডেস্ক: মালয়েশিয়ায় অবৈধ বসবাসকারীদের বিরুদ্ধে ব্যাপক ধরপাকড়া চলছে কিন্তু সমুদ্রপথে অবৈধভাবে মালয়েশিয়ায় মানবপাচার থামছে না। সংঘবদ্ধ পাচারকারী চক্র নানা কৌশলে মানবপাচার অব্যাহত রেখেছে।
মঙ্গলবার ভোরে কক্সবাজারের টেকনাফের সেন্টমার্টিন দ্বীপের নিকটবর্তী সাগর থেকে ২১১ যাত্রীকে উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ড সদস্যরা। এসময় ২টি ট্রলারও জব্দ করা হয়েছে। এসব যাত্রীকে মালয়েশিয়া পাচার করা হচ্ছিল। মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে মালয়েশিয়াগামী এসব ব্যক্তিদের টেকনাফ থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।
উদ্ধার হওয়া যাত্রীর মধ্যে ২০ জন নারী এবং ১৭ জন শিশু রয়েছে, যারা সকলেই মিয়ানমারের নাগরিক। এদের সঙ্গে রয়েছে ১১ জন বিদেশ ক্রু (মাঝি), যার মধ্যে থাইল্যান্ডের ৬ জন এবং মিয়ানমারের ৫ জন । মিয়ানমারের নাগরিক (পুরুষ) রয়েছে ৫৮ জন।
এ ছাড়া ১০৫ জন বাংলাদেশের নাগরিক। এর মধ্যে নারায়ণগঞ্জের ২ জন, নরসিংদীর ৫ জন, ঝিনাইদহের ১২ জন, ফরিদপুরের ৪ জন, গাজীপুরের ২ জন, টাঙ্গাইলের ১ জন, সাতক্ষীরার ৫ জন, যশোরের ৬ জন, বগুড়ার ৪ জন, চাপাইনবাবগঞ্জের ১৩ জন, শরিয়তপুরের ৩ জন, জয়পুরহাটের ৭ জন, সিরাজগঞ্জের ৫ জন, হবিগঞ্জের ৯ জন, টেকনাফের ১৩ জন, কক্সবাজার সদরের ১৪ জন রয়েছে।
কোস্টগার্ডের টেকনাফ স্টেশন কমান্ডার লে. দেওয়ান রফিকুল আওয়াল জানান, ২টি ট্রলারযোগে মালয়েশিয়ায় পাচারকালে এসব যাত্রীকে উদ্ধার করা হয়।
টেকনাফ থানার ওসি মোহাম্মদ ফরহাদ জানান, সোপর্দ করা ২১১ জনের মধ্যে ১১  মাঝিসহ বিদেশি নাগরিকের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়ের করে অন্যদের অভিভাবকের কাছে হস্তান্তর করা হবে।

উৎস: রাইজিংবিডি


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ