• শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:০৫ পূর্বাহ্ন |

যৌন কাজে বাধা দেয়ায় প্রেমিকা খুন

1220140212011833নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জে যৌন কাজে বাধা দেওয়ায় বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে প্রেমিকা কাজলকে (২৩) জবাই করে হত্যা করে মনির হোসেন। বুধবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ইশতিয়াক আহম্মেদের আদালতে ১৬৪ ধারায় প্রদত্ত স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে হত্যার দায় স্বীকার করে এ তথ্য জানায় মনির।

সে জানায়, মোবাইল ফোনে দীর্ঘদিনের প্রেম। এর মধ্যে কয়েকবার যৌন সম্পর্কও ঘটে। বিয়ের জন্য অনেক দিন ধরেই চাপ দিচ্ছিল কাজল। এ নিয়ে মনিরকে কয়েকবার শাসিয়েও দেয়। আর এতেই ক্ষুব্ধ হয়ে কাজলকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার ছক কষে মনির।

সে পরিকল্পনার অংশ হিসেবেই ফতুল্লার একটি দোকান থেকে ধারালো একটি ছুরি কেনে। এরপর মঙ্গলবার রাতে নারায়ণগঞ্জ শহরের ১নং রেলগেট এলাকাতে রূপায়ন আবাসিক হোটেলের একটি কক্ষ ২ ঘণ্টার জন্য ভাড়া নেয়। ওই কক্ষে যৌন কাজে বাধা দেওয়ায় বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে কাজলকে জবাই করে হত্যা করে সে। ঘটনার পরেই হোটেলের লোকজন তাকে আটক করে। কাজল হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আতাউর রহমান এসব তথ্য জানিয়েছেন।

গ্রেপ্তারকৃত প্রেমিক মনির প্রথমে নিজেকে প্রথমে শহীদ, পরে সাইদুর রহমান এবং সবশেষ মনির বলে স্বীকার করে। তার বাবার নাম ভোলা শেখ ও বাড়ি গাইবান্ধা জেলার চিতলিয়া গ্রামে। মনির নারায়ণগঞ্জের পঞ্চবটিতে একটি বাড়িতে ভাড়া থাকতো। আর কাজলের বাড়ি কুমিল্লা জেলার বুড়িচং এলাকাতে। সে রূপগঞ্জে বসবাস করতো।

এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় কাজলের মা সাবিনা বেগম বাদী হয়ে মনির হোসেনকে প্রধান আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন। কাজলের বোন জানান, ঘাতক মনির তাদের বাড়িতে কয়েক বার গিয়েছিল। মোবাইল ফোনের সূত্র ধরে কাজল ও মনিরের মধ্যে সম্পর্ক গড়ে উঠে। মনির কাজলকে বিয়েরও আশ্বাস দিয়েছিল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ