• শনিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৪৪ অপরাহ্ন |

দিনাজপুরের নবাবগঞ্জের ভোটারের জন্য ইসি’র স্বাক্ষর জাল !

EC-2ঢাকা: নির্বাচন কমিশনার (ইসি) আবদুল মোবারকের স্বাক্ষর জালের অভিযোগ উঠেছে। ভোটার এলাকা স্থানান্তরের জন্য কমিশনারের গানম্যান ও ইসির এক কর্মকর্তা এ চেষ্টা চালান। এ কাজের জন্য দুই লাখ টাকা রফা হয়েছিল বলে জানা গেছে।
ইসির একটি বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, গত বৃহস্পতিবার উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার জন্য একজন ভোটার এলাকা স্থানান্তর করতে চান। এ নিয়ে তিনি একটি আবেদন করেন। নির্বাচনের তফসিল হওয়ায় বর্তমানে ভোটার এলাকা স্থানান্তর বন্ধ থাকায় নির্বাচন কমিশনার আবদুল মোবারকের গানম্যান ও এক কর্মকর্তার স্মরণাপন্ন হন তিনি। তারা তাকে ভোটার স্থানান্তর করে দেয়ার আশ্বাস দেন। এ কাজটি করতে দুই লাখ টাকায় তাদের সঙ্গে রফা হয়।
এ কারণে ভোটার এলাকা স্থানান্তরের আবেদন নিয়ে ভোটার তালিকা প্রকল্প অফিসে যান নির্বাচন কমিশনার আবদুল মোবারকের গানম্যান ও সংশ্লিষ্ট ভোটার। আবেদনটি জমা দেয়ার পর আবেদনে আবদুল মোবারকের সুপারিশের স্বাক্ষর দেখে সন্দেহ হয় ভোটার তালিকা প্রকল্পের কর্মকর্তাদের।
একজন কর্মকর্তা স্বাক্ষরটি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার কথা বলে এক প্রকল্প পরিচালকের রুমে গেলে সংশ্লিষ্ট ভোটার তার আবেদনের কপি কর্মকর্তার টেবিল থেকে নিয়ে পালিয়ে যান। এ সময় কমিশনারের গানম্যানও দ্রুত প্রকল্প অফিস ত্যাগ করেন।
বর্তমানে ওই ভোটার ঢাকার ধানমন্ডি থানা এলাকার ভোটার বলে জানা গেছে। তার বাড়ি দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলায়। তিনি এবার উপজেলা নির্বাচনে প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন। এ কারণে তিনি ঢাকার ধানমন্ডি থেকে দিনাজপুরের নবাবগঞ্জ উপজেলায় স্থানান্তর করতে চেয়েছিলেন।
সূত্র আরও জানায়, এ ঘটনার সঙ্গে কমিশনার আবদুল মোবারকের দফতরের এক কর্মকর্তাও জড়িত আছেন। তিনিও ওই দিন প্রকল্প অফিসে গিয়েছিলেন এ কাজের জন্য।
এ বিষয়ে প্রকল্পের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ‘স্বাক্ষর জালের বিষয়টি সঠিক। এ বিষয়টি কমিশনকে লিখিতভাবে জানানো হবে। নির্বাচন কমিশন সংশ্লিষ্টদের বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে বলে জানান অপর এক কর্মকর্তা।
উৎসঃ   শীর্ষ নিউজ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ