• মঙ্গলবার, ৩০ নভেম্বর ২০২১, ০৫:৫৬ অপরাহ্ন |

রাণীনগরে ড্রেজার মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন

Balu Uttolonনওগাঁ প্রতিনিধি: নওগাঁর ছোট যমুনা নদী থেকে সরকারী নীতিমালা উপেক্ষা করে রাত দিন অবাধে বালু উত্তোলন করছে ইজারাদার ও তার কতিপয় আস্তাভাজন প্রভাবশালী বালু দস্যুরা। জেলার রাণীনগর উপজেলার শাহানাপাড়া বালুর চর থেকে তুলে নেওয়া হচ্ছে ওই এলাকার মূল্যবান প্রাকৃতিক সম্পদ বালু। তাদের খেয়াল খুশি মতো বালু উত্তোলন ও মাটি কাটা কাজে স্থানীয় কৃষকরা বাধা দিতে গেলে ওই প্রভাবশালীরা তাদের মারধরসহ থানার পুলিশের ভয় দেখাচ্ছে বলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। জানাগেছে, নওগাঁ জেলা প্রশাসকের রাজস্ব (শায়রত) শাখা থেকে গত ৪/৪ ২০১৩ ইং তারিখে রাণীনগর উপজেলাধীন কাশিমপুর ইউপির উত্তর পশ্চিম কোল ঘেঁষে বয়ে যাওয়া নওগাঁর ছোট যমুনা নদীর কাশিমপুর বালু মহল, শাহানাপাড়া মাঠ, ও কাশিমপুর রাজবাড়ী নদীর তীর সংলগ্ন এলাকা নদী থেকে ১৯ টি শর্ত সাপেক্ষে ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলনের  জন্য মোঃ আশরাফ-ই-শিমুন নওগাঁ নামের ব্যক্তি ২ লক্ষ ৫২ হাজার ৫০১ টাকার বিনিময়ে ইজারা গ্রহন করে। তখন থেকেই সরকারি নীতিমালাকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে ইজারাদার ওই এলাকার তথাকথিত বালুদস্যু হিসেবে পরিচিত কাশিমপুর উত্তরপাড়া গ্রামের মৃত তাহের আলীর ছেলে ছামছুর আলম, গালীব উদ্দিন ও একই গ্রামের নয়ন এর প্রত্যক্ষ সহযোগিতায় নদী থেকে বালু উত্তোলন না করে শহানাপাড়া গ্রামের কৃষক রফিকুল ইসলাম, মকবুল হোসেন, বাহার আলী, ও মন্টু প্রাংসহ বেশ কিছু কৃষকের নদী সংলগ্ন ফসলি জমি থেকে ব্যাপক হারে মাটি কেটে বালু উত্তোলন করায় নদীর স্বাভাবিক গতি বৈশিষ্টতার যেমন নষ্ট হচ্ছে, তেমনি নদীর তীর ভাঙ্গনও বৃদ্ধি পাচ্ছে। এলাকাবাসি তাদের প্রতিবাদ করলে ওই বালুদস্যুদের হুমকী-ধামকিতে তারা এখন বড় অসহায়। ইজারাদার বাহিনীর কবল থেকে নিজের জান ও ফসলি জমি রক্ষায় ইজারাদার ও তার দোসরদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য গত বৃহস্পতিবার রাণীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।  কাশিমপুর চারাপাড়া গ্রামের আফজাল হোসেন, জনাব আলী, রফিকুল ইসলাম, আম্মাদ মন্ডলের সাথে কথা বললে তারা জানান, ইজারাদার নদী থেকে বালু তোলার লীজ নিয়েছে। তারা নদী থেকে বালু না তুলে তাদের ফসলি জমি থেকে কোদাল ও ড্রেজার মেশিন দিয়ে মাটি ও বালু কাটছে ফলে তাদের ফসলি জমি নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ছে। উপজেলা ভূমি অফিসের সার্ভেয়ার সুনিল কুমার জানান, বিষয়টি আমরা শুনেছি। তবে ইজাররাদারকে মৌখিক ভাবে সতর্ক করা হয়েছে। বালু ইজারাদারকারী আশরাফুল ইসলাম শিমুন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, কৃষকের বাধার কারণে আমার ড্রেজার এখন নদীর মধ্যেই কাজ করছে। এ বিষয়ে রাণীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনিরুল ইসলাম পাটয়ারি বলেন, আমি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। যথাযথ তদন্তের মাধ্যমে ইজারাদারসহ অন্যান্যদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।
মান্দা, পোরশা ও ধামইরহাটে মনোনয়নপত্র দাখিল
আগামী ১৫ মার্চ ৩য় দফায় উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষে গত শনিবার মনোনয়ন পত্র দাখিলের শেষ দিনে নওগাঁর মান্দা, পোরশা ও ধামইরহাট উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ১৭ জন  ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২১ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ৬ জন, বিএনপির ৫ জন, জামায়াতের ২ জন.  জাতীয পার্টির ১ জন ইসলামী  শাসনতন্ত্রে ১  জন ও  স্বতন্ত্র ১  জন।
মান্দাঃ মান্দা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ৪ বিএনপির ৩ জন ও জামাতের ১ জন ও স্বতন্দ্র ১ জন। এরা হলেন,  সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান ডাঃ ইকরামুল বারী টিপু (সাবেক বিএনপি নেতা), থানা বিএনপির সভাপতি মকলেছুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম চৌধুরী, আ’লীগের সহ-সভাপতি ব্রহানী সুলতান মাহমুদ গামা, সাধারণ সম্পাদক জসিম উদ্দিন, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি এ্যাড. নাহিদ মোর্শেদ, আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ ফজলুল হক, জামায়াতের থানা আমীর মাওলানা আব্দুর রশিদ ও স্বতন্দ্র নজরুল ইসলাম। ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ থেকে উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক গৌতম কুমার মহন্ত, সেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি এমদাদুল হক ও আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান পরিমল কুমার রায়। বিএনপি থেকে উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি মনোজিত কুমার সরকার, সহসভাপতি এসএম আহসান হাবিব ও স্বতন্দ্র মোস্তাফিজুর রহমান ফিরোজ। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ থেকে বিউটি রানী ও রোকেয়া বিবি। বিএনপি থেকে মমতা হেণা ও জামিলা আকতার। স্বতন্ত্র প্রার্থী সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আসমা ইসলাম।
পোরশাঃ পোরশা উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৫ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এর মধ্যে আ’লীগের ১ বিএনপির ২, জাতীয় পার্টির ১ ও ইসলামী শাসনতন্ত্র দলের ১ জন। চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের আনোয়ারুল ইসলাম, বিএনপির তৌফিকুল ইসলাম শাহ চৌধুরী, সাবেক থানা বিএনপির সাধারন সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান জাপা নেতা মাজেদ আলী ও ইসলামী শাসনতন্ত্র আন্দোলন নেতা কাওছার কামাল চৌধুরী। ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ইব্রাহিম শাহ চৌধুরী, বিএনপির রবিউল আলম ও জামাতের আব্দুস ছালাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের ফাতেমা খাতুণ ও বিএনপির মোমতাজ বেগম।
ধমইরহাটঃ ধামইরহাট উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এরা হলেন আওয়ামী লীগের এবিএম বদিউজ্জামান, জেলা জামায়াতের নায়েবে আমীর মাওলানা মঈন উদ্দিন ও স্বতন্ত্র আব্দুস সোবহান। ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের সাবুবুর রহমান সাবু, বিএনপির আখরাজুল ইসলাম চৌধুরী, জাপার বদিউজ্জামান, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের জান্নাতুল ফৈরদৌস কবিতা চৌধুরী ও
মহাদেবপুরে এমপি সেলিমকে গণসংবর্ধনা
নওগাঁর মহাদেবপুর-বদলগাছি আসনের নবনির্বাচিত এমপি ছলিম উদ্দিন তরফদার সেলিমকে গণসংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। রবিবার বেলা ১২টায় সফাপুর ইউনিয়ন পরিষদ মাঠে এই গণসংবর্ধনার আয়োজন করে স্থানীয় ইউপি আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীরা। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আওয়ামীলীগ নেতা সহকারী অধ্যাপক ময়েজ উদ্দিন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সফাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম মাষ্টার। ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার আলী, মাষ্টার ভুপেন, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইদ্রিস আলী, বিশেষ অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা নওগাঁ জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ময়নুল ইসলাম (ময়েন)। উক্ত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এমপি সেলিম বলেন, নির্বাচনের পূর্বে আমার দেওয়া প্রতিশ্রুতি যদি বাস্তবায়ন না করতে পারি তাহলে আগামীতে আমি আপনাদের কাছে ভোট চাইতে আসব না। জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার জন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করার আহবান জানান তিনি। এই সংবর্ধনা অনষ্ঠানে আসার পূর্বে  এমপি সেলিম বিভিন্ন পথসভায় বক্তব্য রাখেন।
ভুয়া সার্জন ইসকেন্দারকে গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন
নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি: নওগাঁয় অবৈধ প্রাইম ল্যাব এ্যান্ড হসপিটালের মালিক ভূঁয়া সার্জন ডা: ইসকেন্দার আলী ও প্রত্যাশা ক্লিনিকের পরিচালক ভূয়া সার্জন আছাদুল ইসলাম (আর,এম,পি) কে গ্রেফতারের দাবীতে মানব বন্ধন করেছে নওগাঁ জেলা নাগরিক পরিষদ। রবিবার সকাল ১১ টায় শহরের মুক্তির মোড়ে এ মানব বন্ধনে বক্তারা বলেন গত ২৮ ডিসেম্বর/১৩ প্রত্যাশা ক্লিনিকে তারা বানু নামের এক প্রতিবন্ধী প্রসৃতিকে অপারেশন করে অপেশাদার ডাক্তার ইসকেন্দার। পরবর্তীতে তারা বানুর অবস্থার অবনতি হলে তাকে দফায় দফায় অপারেশনের পর পরিশেষে গত ৮ই ফেব্র“য়ারী বগুড়া শহীদ জিয়া মেডিক্যাল কজেল হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত বৃহ¯পতিবার সন্ধ্যায় প্রতিবন্ধী তারা বানু মারা যায়। উল্লেখ্য গত দু’মাসে ভূঁয়া সার্জন ডা: ইসকেন্দারের হাতে ৬ জন প্রসৃতির মৃত্যু হয়েছে বলে বক্তারা জানায়। এই ঘটনায় নওগাঁ সদর থানায় ভুঁয়া সার্জন ডা: ইসকেন্দার ও ভূঁয়া সার্জন আছাদুল ইসলামকে কে আসামী করে মামলা করা হলেও পুলিশ রহস্য জনক কারনে তাদের গ্রেফতার করছে না। উক্ত মানব বন্ধনে বক্তব্য রাখেন নাগরিক কমিটির সভাপতি এস.এম আবু জাফর, সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক আবুবকর সিদ্দিক, খন্দকার রেজাউল ইসলাম টুকু, ইমরুল আখিয়ার পরাগ, সাংবাদিক কায়েস উদ্দিন, এম আর রকি প্রমুখ। বক্তারা অবিলম্বে নওগাঁ শহরের অবৈধ ক্লিনিক বন্ধ সহ ভূঁয়া সার্জন ডা: ইসকেন্দার হোসেন ও ভূঁয়া সার্জন আছাদুল ইসলামকে গ্রেফতারের দাবী জানান। অন্যথায় আগামীতে আরো কঠোর কর্মসুচী দেওয়ার হুশিয়ারী দেন।

আত্রাইয়ে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বহিস্কার
আগামী ২৭ ফেব্র“য়ারি নির্বাচনকে সামনে রেখে নওগাঁর আত্রাই উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণা জমে উঠেছে। গত দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আ’লীগ সমর্থিত প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত হওয়াই নির্বাচনে এলাকাবাসী কোন স্বাদ না পেলেও আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে উপজেলার প্রতিটি মানুষের মাঝে নির্বাচনী আমেজে চলছে। এলাকার সবর্ত্রই এখন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে সরগরম হাওয়া বইছে। উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকার গ্রাম-গঞ্জের পথে -প্রান্তরে, মাটে-ঘাঠে, দোকান-বিপনীতে, চা-স্টলসহ সর্বত্রই চলছে নির্বাচনের আলোচনা-সমালোচনা। নিজের জয়কে ছিনিয়ে নেওয়ার জন্যে প্রার্থীরা প্রতীক পাওয়ার পর থেকেই সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত প্রতিটি জনপদ ও ভোটারের বাড়ি বাড়ি চষে বেড়াচ্ছেন। বিন্দুমাত্র সময় নষ্ট করার ফুরসত নেই প্রার্থী ও কর্মীদের  হাতে। নাওয়া-খাওয়া ছেড়ে নিজের পরিবারসহ কর্মীদের নিয়ে ছুটছেন সবাই ভোটারদের দুয়ারে দুয়ারে আর শোনাচ্ছেন হাজারো রকমের প্রতিশ্র“তি। উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের বড় আর্কষন প্রধান দুই দলের প্রার্থীদের নিয়ে। এবারে উপজেলা চেয়ারম্যান পদে আ’লীগ সমর্থিত বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এবাদুর রহমান এবাদ (মোটর সাইকেল), আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শ্রী বিথেন্দ্রনাথ সাহা (ঘোড়া), বিএনপি’র দুটি গ্র“প সমর্থিত দুইজন প্রার্থী এসএম রেজাইল ইসলাম রেজু (আনারস) ও এ্যাডভোকেট মোল¬া মাহমুদুর রহমান রজার (দোয়াত কলম) প্রতীক নিয়ে লড়ছেন। এদিকে আ’লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শ্রী বিথেন্দ্রনাথ সাহাকে দলীয় নির্দেশ ও শৃংখলা ভঙ্গের অভিযোগে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে।  পুরুষ ভাইস-চেয়ারম্যান পদে আ’লীগ সমর্থিত চৌধুরী গোলাম মোস্তফা বাদল (তালা), বিএনপি’র এক গ্র“পের প্রার্থী একরামুল বারী রনজু (টিউবওয়েল) ও আরেক গ্র“পের প্রার্থী এমদাদুল হক টগর (টিয়া পাখি), মন্জুরুল আলম মিলন (চশমা) প্রতীক নিয়ে এবং মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে আ’লীগ সমর্থিত মোছাঃ মমতাজ বেগম (কলস), বিএনপি’র এক গ্র“প সমর্থিত আকতার জাহান লাকী (হাঁস) ও বিএনপি’র আরেক গ্র“পের প্রার্থী মোছাঃ শামীম আরা চৌধুরী (ফুটবল) প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
উপজেলার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে যে, এলাকার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ মোড়ে মোড়ে তৈরি করা হয়েছে প্রার্থীদের পোস্টার দিয়ে ভোটের অফিস আর চলছে নানা রকম চা পানের আয়োজন। বেলা ২টা থেকে ৮রাত পর্যন্ত চলছে মাইক দিয়ে প্রচারণা। এলাকার রাস্তা-ঘাঠ ছেঁয়ে গেছে সাদা-কালো ছবিযুক্ত পোস্টারে। নির্বাচনকে ঘিরে সাউন্ড সিস্টেম ব্যবসায়ীদের ব্যবসাও জমজমাট।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ