• শনিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২১, ০৪:৪৬ অপরাহ্ন |

নির্বাচনী প্রচারণা বন্ধ: বুধবার নির্বাচন

ECঢাকা: আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি বুধবার প্রথম দফায় ৪০টি জেলার ৯৭টি উপজেলা নির্বাচন। প্রচারণা আজ সোমবার মধ্যরাত থেকে শেষ। প্রার্থীরা আর কোনো ধরনের প্রচারণা চালাতে পারবেন না। একইসঙ্গে নির্বাচনী এলাকায় সব ধরনের যানবাহন চলাচলও বন্ধ । কেউ এ বিধিনিষেধ অমান্য করলে তার বিরুদ্ধে তাতক্ষণিক ব্যবস্থা নেবে নির্বাচনী এলাকায় নিয়োজিত ভ্রাম্যমাণ আদালত। এতে তাদের অর্থদণ্ডসহ প্রার্থিতা বাতিল হতে পারে।
এদিকে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করার লক্ষে মাঠে থাকছে সেনাবাহিনীসহ র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি, আনসার, কোস্টগার্ড ও গ্রাম পুলিশ। ইতোমধ্যে শান্তিপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠান করার লক্ষে সবধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে নির্বাচন কমিশন। তারা বেশ কয়েকবার আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রধানদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। এছাড়া বৈঠক করেছেন মাঠ পর্যায়ের ডিসি-এসপিদের সঙ্গেও।
উপজেলা নির্বাচন বিধিতে নির্বাচনের ৩২ ঘণ্টা আগে মিছিল-মিটিংসহ সব ধরনের প্রচারণা বন্ধের কথা বলা হয়েছে। তা বলবত থাকবে নির্বাচনের ৬৪টি ঘণ্টা পর্যন্ত।
এদিকে নির্বাচন কমিশন বলছে, কোনো ধরনের আচরণবিধি লঙ্ঘন হলে ভ্রাম্যমান আদালত ও আইশৃঙ্খলা বাহিনী তাতক্ষণিক ব্যবস্থা নেবে। এতে তাদের অর্থদণ্ডসহ তাদের প্রার্থিতা বাতিল হতে পারে।
৯৭টি উপজেলায় ঝুঁকিপূর্ণ কোনো কেন্দ্রের তথ্য পায়নি নির্বাচন কমিশন। এমনটিই দাবি করেছেন নির্বাচন কমিশন মো. শাহনেওয়াজ। তিনি বলেন, গোয়েন্দাদের কাছ থেকে ঝুঁকিপূর্ণ কোনো কেন্দ্রের তথ্য পায়নি।
প্রথম দফায় ১০২টি উপজেলার তফসিল ঘোষণা করা হলেও সীমানা জটিলতায় রংপুরের ৪টি উপজেলা নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে এবং  পীরগঞ্জের ভোট গ্রহণ হবে আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি। সে অনুযায়ী ১৯ তারিখে ভোট গ্রহণ হচ্ছে ৯৭টি উপজেলায়।
এদিকে যেকোনো ধরনের আচরণবিধির অভিযোগ সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছে জমা দিতে বলেছে ইসি। রোববার সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ইসি শাহ নেওয়াজ বলেন,  উপযুক্ত তথ্য প্রমাণ নিয়ে আপনারা অভিযোগ দাখিল করেন, আমরা তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেব।
প্রথম দফায় ১ হাজার ৭৩২ প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। যাচাই-বাছাই শেষে ১ হাজার ২৭৪ প্রার্থীকে চূড়ান্ত করা হয়। এদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৪৩২ জন, ভাইস-চেয়ারম্যান পদে ৫১৩ জন এবং নারী ভাইস-চেয়ারম্যান পদে ৩২৯ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন।
৯৮টি উপজেলায় মোট ভোটার সংখ্যা  ১ কোটি ৬৪ লাখ৭৮ হাজার ১৭২ জন। আর ভোট কেন্দ্রের সংখ্যা হচ্ছে ৬ হাজার ৯৯৫টি এবং ভোট কক্ষের সংখ্যা হলো ৪৩ হাজার ২৯০টি। এতে প্রিজাইডিং অফিসারের সংখ্যা ৬ হাজার ৯৯৫ জন এবং সহকারী প্রিজাইডিং অফিসারের সংখ্যা ৪৩ হাজার ২৯০ জন। পোলিং অফিসারের সংখ্যা ৮৬ হাজার ৫৮০ জন।
প্রথম দফায় ৪০ জন রিটার্নিং অফিসারের দায়িত্ব পালন করছেন। এর মধ্যে ৩৬ জন জেলা প্রশাসক ( সার্বিক) এবং ৪ জন সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার।
অন্যদিকে সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব পালন করছেন মোট ৯৮ জন এর মধ্যে ৯১ জন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং ৭ জন উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা।
এ দফায় ৯৮ জন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন। আর নির্বাহী  ম্যাজিস্ট্রেট থাকবেন ৩৯২ জন। এরা ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আচরণবিধি লঙ্ঘনকারীদের বিচার করে তাতক্ষণিক শাস্তির ব্যবস্থা করবে।
প্রসঙ্গত, ইতোমধ্যে চারদফায় ৩৯৪টি উপজেলায় নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন। এগুলোর মধ্যে প্রথম দফায়  ৯৭টি উজেলায় ভোটগ্রহণ ১৯ ফেব্রুয়ারি, দ্বিতীয় দফার ১১৭টি উপজেলা ভোটগ্রহণ হবে ২৭ ফ্রেব্রুয়ারি, তৃতীয় দফার ৮৩টি উপজেলার ভোটগ্রহণ হবে ১৫ মার্চ এবং চুতর্থ দফার ৯২টি উপজেলায় ভোটগ্রহণ হবে ২৪ মার্চ।
অন্যদিকে পঞ্চম ধাপের তফসিল চলতি সপ্তাহে হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার মো. শাহনেওয়াজ। আর এ ধাপের ভোট গ্রহণ হবে মার্চের শেষের দিকে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ