• বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৯:০৩ পূর্বাহ্ন |

এ্যানীকে খুঁজছে ছাত্রদল নেতারা!

Aniঢাকা: বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কারাবন্দী এবং স্বাধীনতা দিবসসহ বিভিন্ন কর্মসূচি সফল করার উদ্দেশ্যে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সংসদের সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার বিকেলে রাজধানীর নয়াপল্টনে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল হক নাসিরের সভাপতিত্বে তুমুল হট্টগোল দিয়ে শুরু হয় সভা। তবে বিএনপির ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানীর নির্দেশক্রমে এ সভা আহ্বান করা হলেও তিনি উপস্থিত না থাকায় নেতাকর্মী প্রচণ্ড ক্ষোভ প্রকাশ করেন। সভায় ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাইফুল ইসলাম ফিরোজও উপস্থিত ছিলেন না।
বিশেষ করে গত ২৯ ডিসেম্বর খালেদা জিয়া ঘোষিত ‘মার্চ ফর ডেমোক্রেসি’ কর্মসূচিতে ছাত্রদলের নিষ্ক্রিয়তা প্রসঙ্গে নিজেদের মধ্যে বিবাদে জড়িয়ে পড়েন ছাত্রনেতারা। সভায় ছাত্রনেতারা সংগঠনের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাইফুল ইসলাম ফিরোজ এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল হক নাসিরের বৈধতা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন।
বৈঠকের একাধিক সূত্র জানায়, সম্প্রতি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের যেসব ছাত্রনেতারা বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেছেন। তাদের শহীদ উদ্দিন চৌধুরী পৃষ্ঠপোষকতা করেছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের কমিটি গঠনের জন্য যেসব ছাত্রনেতাদের বিএনপি চেয়াপারসনের কার্যালয়ে নেয়া হয়েছিল সে বিষয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্রদল কিছুই জানে না। অভিযোগ রয়েছে, ছাত্রলীগ এবং ছাত্রশিবিরের কর্মী-সমর্থকরা সেদিন খালেদা জিয়ার সামনে হট্টগোল করেছিল। যার দায়ভার শহীদ উদ্দিন চৌধুরীর ওপর বর্তায়।
সূত্র জানায়, ছাত্রনেতাদের তোপের মুখে পড়তে হবে এই কারণে শহীদ উদ্দিন চৌধুরী আজকের সভায় উপস্থিত হননি।
অপর একটি সূত্র জানিয়েছে, শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী নির্বাচনী এলাকায় উপজেলা পরিষদ নির্বাচন নিয়ে ব্যস্ত থাকায় তিনি এ সভায় থাকতে পারেননি। মার্চ ফর ডেমোক্রেসি কর্মসূচিতে ছাত্রদলের জন্য যে অর্থ বরাদ্দ ছিল সে বিষয়ে কেন্দ্রের গুরুত্বপূর্ণ নেতারা জানতেন না। ‘ভারপ্রাপ্ত’ কমিটি অন্য নেতাদের সঙ্গে সমন্বয় করেনি।
বৈঠক সূত্র জানায়, ছাত্রদল নেতা আব্দুল আলীম খোকন, বায়েজিদ আরেফিনসহ বেশ কয়েকজন ছাত্রনেতার সঙ্গে অন্যদের উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়।
বৈঠকে অংশ নেয়া ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি কামাল আনোয়ার বলেন, ‘বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কারাবন্দী দিবসসহ আগামী কর্মসূচি কীভাবে সফল করা যায় সে বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।’
ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল হক নাসির বলেন, ‘বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের কারাবন্দী দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে অনুমতি পেলে সেখানে ৮ মার্চ আমরা আলোচনা সভা করবো। এছাড়া ছাত্রদলের সাবেক নেতা বাবলুর মৃত্যুবার্ষিকীতে তার গ্রামের বাড়ি নরসিংদী যাওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে।’
উৎসঃ   বাংলামেইল


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ