• সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৫:০০ পূর্বাহ্ন |

নতুন দু’টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান অনুমোদন

BB-1অর্থ-বাণিজ্য ডেস্ক: আরো দু’টি নতুন অ-ব্যাংক আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন দিল বাংলাদেশ ব্যাংক। আওয়ামী লীগ টানা দ্বিতীয় মেয়াদে সরকার গঠনের দেড় মাসের মাথায় নতুন দুটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দেয়ার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

এর মধ্যে সিএপিএম ভেনচার ক্যাপিটাল অ্যান্ড ফাইন্যান্স লিমিটেডের মূল উদ্যোক্তা হিসাবে মাহমুদ হোসাইনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। আর মেরিডিয়ান ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের মূল উদ্যোক্তা হিসাবে দেখানো হয়েছে কাজী আমিনুল ইসলামের নাম।

ডেপুটি গভর্নর এস কে সুর চৌধুরী জানান, বাংলাদেশ ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদ বুধবার ওই দুটি প্রতিষ্ঠানকে অনুমোদন দেয়ার ‘নীতিগত’ সিদ্ধান্ত নেয়।

তিনি বলেন, বুধবার পরিচালনা পর্ষদের সভায় আরও দুটো আর্থিক প্রতিষ্ঠান দেয়ার নীতিগত সিদ্ধান্ত হয়েছে। এজন্য সংশ্লিষ্ট আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে আগ্রহপত্র (লেটার অব ইনটেন্ট) দিতে বলা হয়েছে।

বর্তমানে দেশে ৩১টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান কার্যক্রম চালাচ্ছে। আওয়ামী লীগের গত মেয়াদে মোট নয়টি ব্যাংক ও একটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানের অনুমোদন দেয়া হয়। রাজনৈতিক বিবেচনায় এসব অনুমোদন দেয়া হয় বলে সে সময় অভিযোগ ওঠে।

এস কে সুর জানান, নতুন দুই আর্থিক প্রতিষ্ঠানের পরিশোধিত মূলধন হতে হবে অন্তত ১০০ কোটি টাকা। এই অর্থের জন্য উদ্যোক্তাদের পুরো করও পরিশোধ করতে হবে। এছাড়া আইন অনুযায়ী আরও ৩০টি শর্ত পূরণ করতে হবে উদ্যোক্তাদের।

সুর চৌধুরী বলেন, এটা অনুমোদনের প্রাথমিক পর্যায়। এখন উদ্যোক্তাদের অন্যান্য শর্ত পূরণ করতে হবে। তারা তাদের ব্যবসায়িক পরিকল্পনা জমা দেবেন আমরা দেখব। তারপর চূড়ান্ত অনুমোদন দেয়া হবে।

সূত্রমতে, বর্তমানে দেশে ৩১টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান রয়েছে। অনুমোদন পাওয়া নতুন দু’টি প্রতিষ্ঠান কার্যক্রম শুরু করলে আর্থিক খাতে মোট প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা দাঁড়াবে ৩৩টিতে।

১৯৯৩ সালের আর্থিক প্রতিষ্ঠান আইন অনুসারে এসব প্রতিষ্ঠান অনুমোদন দেয়া হয় ও নিয়ম অনুসারে প্রতিষ্ঠানগুলো কার্যক্রম পরিচালনা করে থাকে।

বৈঠকে উপস্থিত নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মকর্তা জানান, কিছু পর্যবেক্ষণসহ লাইসেন্সের জন্য অনুমোদন দেয়া হয়েছে। আর্থিক প্রতিষ্ঠান দু’টির তরফ থেকে ব্যবসায়িক পরিকল্পনা উপস্থাপন করা হয়েছে। এসব পর্যালোচনা করে প্রতিষ্ঠানগুলোকে আগ্রহপত্র দেয়া হবে। বুধবারের বৈঠকে ফেব্রুয়ারি মাসের আর্থিক সূচক নিয়েও পর্যলোচনা করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ