• সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৪:১৪ অপরাহ্ন |

স্বতন্ত্র বিভাগ চান পুলিশ কর্মকর্তারা

Activists detained during nationwide opposition strikeঢাকা: আমলাতান্ত্রিক জটিলতা কমিয়ে আনতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের অধিনে আলাদা বিভাগ চায় পুলিশ কর্মকর্তারা। তাদের অভিযোগ আমলাতান্ত্রিক জটিলতার কারণে গতি আসছে না পুলিশের কাজে। তাই আইজিপি সমমর্যাদার একজনকে প্রধান করে পুলিশের আলাদা বিভাগের প্র¯ত্মাব করা হয়।
সূত্র জানায়, পুলিশের আলাদা বিভাগ না থাকায় বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে নানা ধরনের বাধার সম্মুখিন হচ্ছেন পুলিশ কর্মকর্তারা ।
এক সিনিয়র পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, পুলিশের যদি আলাদা বিভাথাকে তাহলে পুলিশের কার্যক্রমকে আরো গতিশীল করা সম্ভব । তাই পুলিশ কর্মকর্তাদের পক্ষ থেকে আলাদা বিভাগের প্র¯ত্মাব করা হয় যেখানে বাংলাদেশ পুলিশ তাদের সকল প্রশাসনিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে পারে যা বর্তমান স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের পুলিশ শাখা হিসেবে কাজ করছে।
বর্তমানে পুলিশ শাখা তার কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের বিদেশগমন ও পদোন্নতির মতো আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব নিজেই নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। তবে পুলিশের কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের প্র¯ত্মাবিত নতুন এ দাবি অনুযায়ী সহকারী পুলিশ সুপারিটেন্ডেণ্ট এএসপি কাজ করবেন এই বিভাগের সহকারি সচিব হিসেবে, সিনিয়র এডিশনাল এসপি কাজ করবেন সিনিয়স সহকারি সচিব হিসেবে, একজন এসপি কাজ করবেন উপসচিব হিসেবে, একজন উপমহাপরিদর্শক বা ডিআইজি কাজ করবেন যুগ্ম সচিব হিসেবে এবং অতিরিক্ত মহাপরিদর্শক কাজ করবেন অতিরিক্ত সচিব হিসেবে।
তাদের দাবি অনুযায়ী পুলিশ বিভাগ পুলিশ কর্মকর্তাদের জন্য নতুন কিছু পদ তৈরি করবে যা সরাসরি পাবলিক সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে নিয়োগ হবে। পুলিশের আইজিপি হাসান মাহমুদ খন্দকার বলেন, স্বারাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের অধিনে বর্তমানে পুলিশের যে বিভাগ রয়েছে তাতে আংশিক আলাদা বিভাগের বৈশিষ্ট্য থাকলেও একে সম্পূর্ণভাবে আলাদা বিভাগ বলা যাবে না। এ অবস্থায় পুলিশের পৃথক বিভাগের জন্য আমাদের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে ।
বাংলাদেশ পুলিশ, র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন বা র‌্যাব, আর্মড পুলিশ, রেলওয়ে পুলিশ, পোর্ট পুলিশ, বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ বা বিজিবি, বাংলাদেশ কোস্ট গার্ডসহ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের ৮ টি বিভাগ রয়েছে। এরমধ্যে বাংলাদেশ পুলিশ নিয়ন্ত্রিত ও পরিচলিত হয় একজন অতিরিক্ত সচিব, একজন যুগ্মসচিব এবং ৫ জন সিনিয়র সহকারি সচিবের নেতৃত্বে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের পুলিশ উইং হিসেবে। কিন্তু এই কর্মকর্তারা নিয়ন্ত্রিত হয় বিসিএস প্রশাসন ক্যাডারদের দ্বারা।
এ অবস্থায় গত ১৯ জানুয়ারি নয়া স্বরাষ্ট্রপ্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল পুলিশ সদরদপ্তর পরিদর্শনে গেলে পুলিশে পক্ষ থেকে তাদের জন্য আলাদা বিভাগের এ দাবি উপস্থাপন করা হয়।

দি ইন্ডিপেন্ডেন্ট


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ