• শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫৭ পূর্বাহ্ন |

‘বদু কাকা’ বলায় চটেছেন বি. চৌধুরী

B.Chowdhuri+Khaledaঢাকা: সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভাষণের একটি অংশের তীব্র সমালোচনা করেছেন বিকল্পধারা বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট সাবেক রাষ্ট্রপতি অধ্যাপক এ. কিউ. এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী।
প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের ওই অংশটিকে ‘অরুচিকর’ উল্লেখ করে এ ধরনের বক্তব্য দেয়া থেকে তাকে বিরত থাকারও আহ্বান জানান সাবেক এই রাষ্ট্রপতি।শনিবার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে বি. চৌধুরি বলেন, ‘আমি বদরুদ্দোজা চৌধুরী, একজন সাবেক রাষ্ট্রপতি। একজন সাবেক রাষ্ট্রপতিকে ‘বদু কাকা’ সম্বোধন করে প্রকাশ্য জনসভায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর মতো ব্যাক্তির পক্ষে কটুক্তি উক্তি করা অরুচিকর। এই উক্তি আওয়ামী লীগের নেতা হিসেবে জনগণ আশা করে- কিন্তু প্রধানমন্ত্রী বা বঙ্গবন্ধু কন্যা হিসেবে উক্তিটি অনভিপ্রেত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আসনটি স্বার্বভৌম বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত সম্মানীয়। সেখান থেকে মর্যাদসুলভ বক্তব্যই শোভনীয়।’

বিবৃতিতে বি. চৌধুরী প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘তিনি নিয়মিত নামাজ ও কোরআন পাঠকারী হিসেবে পরিচয় দান করেন। তিনি নিশ্চয় লক্ষ্য করবেন পবিত্র কোরআনে নাম বিকৃত করার উপর কঠিন নিষেধ আছে। বদরুদ্দোজা, শামসুদ্দোহা, নুরুল হুদা এসব নাম আল্লাহর প্রিয় রসুল আমাদের নবী হযরত মুহাম্মদ (স:)-এর নামের সমার্থক। আমরা এই সব নাম নিয়ে কৌতুক করি না। আমি এই পবিত্র নামটি নিয়ে কৌতুক না করার জন্য অনুরোধ করছি। আল্লাহ আমাদের ক্ষমা করুন।’

উল্লেখ্য, ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আওয়ামী লীগের সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যের একটি অংশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘ছবিতে দেখলাম, বিএনপি নেত্রী লাল টুকটুকে শাড়ি পরে বদু কাকার সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। আমি জানি না আমাদের বদু কাকা একগুচ্ছ রজনীগন্ধা নিয়ে গিয়েছিলেন কি না ওনার সঙ্গে দেখা করতে। কেননা একবার অভিমান করে বলেছিলেন, একগোছা রজনীগন্ধা হাতে নিয়ে আমি চললাম। এই বলে তিনি চলে গিয়েছিলেন। খালেদা জিয়া এমন ভাব নিলেন যে, বি চৌধুরী রেললাইন দিয়ে ধাওয়া খেতে খেতে ছেলেকে নিয়ে পালিয়ে যাচ্ছেন। আজ আবার দুজনে বসে কূজনে কী কথা বলেন?’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ