• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৬:১৮ পূর্বাহ্ন |

সৌদি ধনকুবেরদের যৌন লোলুপতার শিকার সিরিয়ার শরণার্থীরা

1111আন্তর্জাতিক ডেস্ক: তিন বছর ধরে চলা ভয়াবহ গৃহযুদ্ধে সিরিয়ার কয়েক লাখ মানুষ শরণার্থীতে পরিণত হয়েছে। জীবন বাঁচাতে সিরিয়ার রাষ্ট্রজনরা শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় নিচ্ছে প্রতিবেশি দেশগুলোতে। শরণার্থী শিবিরগুলোতে বাসস্থান, খাবারের চরম সংকট চলছে। শরণার্থীদের এমন অসহায়ত্বকে কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন দেশে আশ্রিত সিরিয়ার শরণার্থী কিশোরীদের অর্থের বিনিময়ে যৌন সঙ্গী বানাচ্ছে সৌদি আরবসহ আরব বিশ্বের ধনকুবেররা। সৌদি ধনকুবেরদের এমন যৌন শোষণের চিত্র উঠে এসেছে জর্ডান আন্তর্জাতিক শরণার্থী সংস্থার এক প্রতিবেদনে।
আর নিজেদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে খাদ্য, বাসস্থান ও পানীয়ের সমস্যায় জর্জরিত সিরিয়ার অভিভাবকরাও অর্থের বিনিময়ে নিজেদের শিশু ও কিশোরী কন্যাকে সৌদি আরবের ধনকুবেরদের হাতে তুলে দিতে বাধ্য হচ্ছে। সকল শরণার্থী শিবিরে এমন যৌন শোষণের কথা শোনা গেলেও জর্ডানের শরণার্থী শিবিরগুলোতে এই যৌন শোষণের হার সবচেয়ে বেশি।
সিরিয়ার শরণার্থী কিশোরীদের যৌন সঙ্গী করার জন্য বিয়ে করে সৌদি ধনকুবেররা। বিয়েতে রাজি করাতে শরণার্থী পরিবারগুলোকে কয়েক হাজার ডলার প্রদান করে সৌদি নাগরিকরা। আর কিশোরীরা বয়ষ্ক ধনকুবেরদের বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানালে, পরিবারের সদস্যরা তাদের উপর শারীরীক নির্যাতন চালায়। বিয়ের পরে সৌদি ধনকুবেররা শরণার্থী কিশোরীদের সাথে যৌন সম্ভোগে মেতে ওঠে। এভাবে চলার কয়েক সপ্তাহ বা মাস পরে কিশোরীদের আবারও শরণার্থী শিবিরে রেখে যায় তারা। শরণার্থী মা-বাবারা কন্যাদেরকে সৌদি আরবে নিয়ে যেতে শত অনুনয় করলেও তাতে রাজি হয় না ধনকুবেররা।
এমনকি একই পরিবারের একাধিক কন্যাকে একই ধনকুবেরের সাথে একই সাথে বিয়ের দেওয়ার নমুনাও পাওয়া গেছে। এমন এক শরণার্থী পরিবারের কন্যা নাওয়ার ও সৈওজা নামের ১৭ ও ১৬ বছর বয়স্ক দুই বোনকে এক বৃদ্ধ সৌদি ধনকুবেরের সাথে বিয়ে দেয় তাদের পরিবার। মাত্র ২০ দিন একত্রে থাকার পরে তাদেরকে ফেলে রেখে দেশে ফিরে যায় সৌদি ধুনকুবের।
সিরিয়ার শরণার্থীদের জন্য খোলা প্রতিটি শরনার্থী শিবিরেই এমন বিয়ের ঘটনা ঘটে। আবার এমন বিয়ের ক্ষেত্রে পাত্র ও মেয়ের পরিবারের সাথে সমঝোতা করার জন্য একদল মানুষও আছে। যারা অর্থের বিনিময়ে এই কাজ করে থাকে।
জর্ডান আন্তর্জাতিক শরণার্থী সংস্থা এই ধরণের বিয়েকে যৌন শোষণ ও নিপীড়ন হিসেবে আখ্যায়িত করলেও তা বন্ধের কোন উপায় বের করতে পারেনি। তাদের মতে, শরণার্থী শিবিরগুলোতে এমন সাময়িক বিয়ে অতি সহজলভ্য হলেও তা ঠেকানর কোন উপায় তাদের জানা নেই।
গত তিন বছর ধরে চলা গৃহযুদ্ধে প্রায় ১ লাখ ৩০ হাজার সিরিয়ার রাষ্ট্রজন নিহত হয়েছে। শরণার্থীতে পরিণত হয়েছে কয়েক মিলিয়ন সিরিয়ান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ