• বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৭:২৮ পূর্বাহ্ন |

আপত্তিকর চিঠি’র জের: ছাত্রীর আত্মহত্যা

Attohotaআন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের আসামে স্কুল শিক্ষিকার শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যা করেছে পঞ্চম শ্রেনীর এক ছাত্রী। নিহত ছাত্রীর পরিবার ও পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, আসামের শিবসাগর শহরের সোফি মেরি ইংলিশ মিডিয়াম স্কুলের ছাত্রী নিবেদিতা দে’র ব্যাগ থেকে একটি ‘আপত্তিকর চিঠি’ পায় স্কুলের শিক্ষিকা। এর পর কর্তৃপক্ষ নিবেদিতার মাধ্যমেই তার মা-বাবাকে স্কুলে দেখা করার জন্য খবর পাঠায়। কিন্তু বকুনির ভয়ে মা-বাবাকে খবরটি দেয়নি নিবেদিতা। পরের দিন স্কুলে গেলে শিক্ষিকার তিরষ্কার ও শারীরিক নির্যাতনের মুখে পড়তে হয় তাকে। শনিবারের ওই ঘটনার পর বাড়ি ফিরে মা-বাবার অনুপস্থিতির সুযোগে গায়ে আগুন দিয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করে অভিমানি মেয়েটি। তার চিৎকার শুনে আশেপাশের মানুষ ছুটে আসে এবং অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় তাকে পার্শ্ববর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। অবস্থা অবনতি হওয়ায় সেখান থেকে ডিব্রুগড়ে পাঠানো হয় নিবেদিতাকে। রোববার সেখানেই তার মৃত্যু হয়। মঙ্গলবার ঘটনাটি মিডিয়ায় আসে। মৃত্যুর আগে ১২ বছরের কিশোরী নিবেদিতা পুলিশকে দেয়া জবানবন্দিতে জানায়, ‘সে নিরপরাধ।’ এর পরই স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে থানায় এফআইআর দায়ের করেন তারা বাবা-মা। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্কুল শিক্ষিকাকে আটক করেছে পুলিশ। এরইমধ্যে তদন্তও শুরু হয়েছে।  ঘটনাটি জানাজানি হওয়ায় ওই এলাকায় উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ