• বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৩৭ অপরাহ্ন |

আদিতমারীতে অধ্যক্ষের উপর হামলা করেছে শিক্ষকের একাংশ

 Aditmari-Pic-12-03-14 লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলার মহিষখোচা বহুমুখি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের অধ্যক্ষ শরওয়ার আলমের উপর হামলা চালিয়েছে কতিপয় শিক্ষক। বুধবার দুপুরে কলেজ চলাকালিন সময় অধ্যক্ষের কার্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে।
উপস্থিত শিক্ষক কর্মচারীরা জানান, ওই কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ শহিদুর রহমান অবসর নেয়ার পর সেই পদে নিয়োগ নিতে চেষ্টা করে ব্যর্থ হন একই প্রতিষ্ঠানের সহকারী অধ্যাপক রবিউল ইসলাম, পরবর্তীতে প্রতিষ্ঠানের পরিচালনা পর্ষদ অধ্যক্ষ হিসেবে নিয়োগ দেন একই প্রতিষ্ঠানের অপর সহকারী অধ্যাপক শরওয়ার আলমকে। সেই থেকে প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক কর্মচারীরা দুইটি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে পড়ে। রবিউল গ্রুপ প্রতিষ্ঠানের কমিটির উপর হাইকোর্টে মামলা দায়ের করে কমিটির কার্যক্রম স্থবির করে দেন। ফলে ভেঙ্গে পড়ে ওই প্রতিষ্ঠানের শিক্ষা কার্যক্রম। এ সুযোগে প্রতিষ্ঠানের সাবেক অধ্যক্ষ শহিদুর রহমান কলেজের হিসাব বুঝিয়া না দিয়ে রবিউল গ্রুপে নেতৃত্ব দেন। এরই জের ধরে বুধবার দুপুরে ওই প্রতিষ্ঠানের সহকারী অধ্যাপক রবিউল ইসলাম, প্রভাষক আতাউর রহমান, সহকারী শিক্ষক ছমির উদ্দিনসহ ৭জন অধ্যক্ষের কার্যালয়ে গিয়ে অতর্কিত হামলা চালায়। তারা আলমারীর চাবি চাইলে অধ্যক্ষ অসম্মতি জ্ঞাপন করায় চড়াও হয়ে উঠেন শিক্ষকরা। একপর্যায়ে তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করলে অধ্যক্ষের ডান হাতের ৩টি আঙ্গুল কেটে যায় এবং গলায় প্রচন্ড আঘাত পান। তারা অধ্যক্ষকে তার কক্ষে অবরুদ্ধ করে রাখেন। খবর পেয়ে আদিতমারী থানা পুলিশ গিয়ে অধ্যক্ষকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালের ৬ নং কেবিনে ভর্তি করান।
কলেজের প্রভাষক বীনা পানি রায় জানান, কলেজের একটি গ্রুপ অধ্যক্ষ হতে না পেরে বর্তমান অধ্যক্ষকে বিভিন্ন ভাবে হয়রানী করে আসছে। অধ্যক্ষ শরওয়ার আলম জানান, ওই শিক্ষকরা বিভিন্ন মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাকে ঘায়েল করতে ব্যর্থ হয়ে অস্ত্রের নগ্ন হামলা চালিয়েছে। তবে এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে  বলেও জানান অধ্যক্ষ শরওয়ার আলম।
আদিতমারী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম ইকবাল জানান, খবর পেয়ে আমরা অধ্যক্ষকে উদ্ধার করেছি। মামলা দিলেই ব্যবস্থা নেয়া হবে।
আদিতমারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা(ইউএনও) রেজাউল আলম সরকার জানান, অধ্যক্ষের মোবাইল ম্যাসেজে কলেজে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। অধ্যক্ষের চিকিৎসা চলছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ