• শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১১:৩৭ অপরাহ্ন |

চোখ ভালো রাখতে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ

চোখস্বাস্থ্য ডেস্ক: চোখ আমাদের একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রত্যঙ্গ। এই চোখকে কীভাবে নিরাপদ রাখতে হয় তা আমাদের অনেকেরই জানা নেই। আবার অনেকে জেনেও সচেতনতার অভাবে তা মানি না। এবার চোখের যত্ন কীভাবে নিতে হয় বা কী করলে চোখ ভালো থাকবে তা নিয়ে কিছু দিক-নির্দেশনা দেয়া হলো। দিক-নির্দেশনা করেছেন ভারতের একজন চক্ষু বিশেষজ্ঞ ড. কেইকি মেহতা। টাইমস অব ইন্ডিয়াকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব পরামর্শ দেন।
১. রোদচশমা: সূর্যের ক্ষতিকর রশ্মি থেকে চোখকে বাঁচাতে সানগ্লাস ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন ড. মেহতা। সানগ্লাস সূর্যের আল্ট্রা ভায়োলেট রশ্মিকে প্রতিহত করে। তবে, যেকোন গ্লাস হলেই হবে না, তা অবশ্যই হতে হবে আল্ট্রা ভায়োলেট রশ্মি প্রতিরোধী।
২. নিয়মিত চোখ পরীক্ষা করান: আমরা আমাদের গাড়ি বা মোটরসাইকেলটির যেভাবে যত্ন নিয়ে থাকি চোখের ব্যাপারে এতোটা সচেতন নই। চোখ নিয়মিত পরীক্ষা করাতে হবে। গ্লুকোমার মতো বিষয়গুলো পরীক্ষা করাতে হবে। রেটিনার সার্বিক অবস্থা জানতে হবে। চোখের জ্বালাপোড়া, খোঁচা লাগা, চোখে দৃশ্যের পরিবর্তন দেখা, চোখে কোন স্পট বা দাগ দেখা দেয়া বা চোখের অবসন্নতা বা ক্লান্তির মতো বিষয়গুলো দেখা দিলে দ্রুত চোখ পরীক্ষা করান।
৩. পড়ার সময় যা করবেন: পড়াশোনার সময় টেবিলে পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা যাতে থাকে সেদিকে খেয়াল রাখুন। শুধু পড়ার বইটিই নয়, বরং আশপাশের কিছু অংশও যেন আলোকিত থাকে সে ব্যাপারে খেয়াল রাখতে হবে। অন্ধকার রুমে পড়ার সময় লাইটটি সাধারণত বাম কাঁধের একটু উপরে থাকাটা চোখের জন্য সুবিধাজনক। তাছাড়া, দীর্ঘ সময় ধরে পড়ার সময় খুব ঘন ঘন চোখের পাতা ফেলানো উচিত।
৪. কম্পিউটার ব্যবহারের সময় চোখের যত্ন: কম্পিউটার বা ল্যাপটপের সামনে বসার সময় খেয়াল রাখবেন, এর স্ক্রিনের ঠিক সামনাসামনি বসবেন না, বরং একটু বাঁকা হয়ে বসুন। যাতে করে আপনার চোখের উপর সরাসরি কম্পিউটার বা ল্যাপটপের আলো না পড়ে। আরেকটি বিষয়, কম্পিউটার বা ল্যাপটপের স্ত্রিনটি যেন আপনার চোখ থেকে কখনোই উঁচুতে না থাকে, বরং কিছুটা নিচে থাকলে ভালো। স্ক্রিনের আলো হবে আশপাশের আলোর সাথে সামঞ্জস্যশীল। আশপাশের আলোর চেয়ে খুব বেশি ঝলকানো বা অন্ধকারাচ্ছন্ন হলে চোখের জন্য ক্ষতিকর। চোখ ভালো রাখার জন্য শেষ রাতের পড়াশোনার চেয়ে ভোরবেলার পড়াশোনার অভ্যাস করা দরকার। এ ছাড়া, যারা দীর্ঘ সময় কম্পিউটারে কাজ করেন তারা প্রতি ৪০ মিনিট পরপর ৫ মিনিটের জন্য চোখকে বিশ্রাম দিন।
৫. আপনি যদি কন্টাক্ট লেন্স লাগান তাহলে তা ঠিক আছে। কিন্তু তা হতে হবে ভালো কোন প্রতিষ্ঠানের তৈরি। লেন্সটি প্রতি দুই দিন পরপর পরিষ্কার করুন, নিদের্শনা অনুযায়ী।
৬. ধূমপান পরিহার করুন: ধূমপানের কারণে চোখে ছানি পড়তে পারে। এ ছাড়া, মদপানের কারণে চোখের স্নায়ুগুলো দুর্বল হয়ে যেতে পারে।
৭. ডায়াবেটিস?: ডায়াবেটিস থাকলে চোখের রেটিনাল ভেসেলে লিকেজ দেখা দিতে পারে। এমনকি রক্তপাত হতে পারে, ডায়াবেটিস যদি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় তাহলে রেটিনা নির্লিপ্ত হয়ে যেতে পারে এমনকি অন্ধত্বেরও শিকার হতে পারেন। ডায়াবেটিস আক্রান্তদের প্রতি চার মাস পর পর একবার চেকআপ করা দরকার।
৮. অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার খান: চোখ ভালো রাখার জন্য অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট সমৃদ্ধ খাবার বেশি বেশি খান। বিশেষ করে ভিটামিন ‘এ’ সমৃদ্ধ খাবার বেশি বেশি খান। ভিটামিন ‘এ’ চোখের ঔজ্জ্বল্য বৃদ্ধি করে ও রাতের বেলা দেখার ক্ষমতা বাড়ায়। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ