• বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৯:০৮ পূর্বাহ্ন |

টি-২০ বিশ্বকাপের জমকালো সেলিব্রেশন

T-20ঢাকা: সুললিত সুরের মূর্ছনা আর নানা বর্ণের আলোর ঝলকানি। মন্ত্রমুগ্ধ দর্শক-শ্রোতা। মাঠের ভেতর যতটা না তারচেযে ঢের বেশি বাইরে। দেশজুড়ে টেলিভিশনের পর্দায় কোটি দর্শক মাতালো ‘সেলিব্রেশন কনসার্ট’। আলো আর সুরের বন্যায় ভাসলো গোটা বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম। আনুষ্ঠানিকতার ছোঁয়া পেলো টি-২০ বিশ্বকাপ। ক্রিকেটের ছোট ফরমেটের বৃহত্তম এ আয়োজন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের। তবে পঞ্চম এ আসরের একক আয়োজক বাংলাদেশ। আর তাই এতে বাড়তি আকর্ষণ দিতে আয়োজন করা হয় আড়ম্বরপূর্ণ সেলিব্রেশন কনসার্ট। গতকাল বিকাল থেকে রাতের প্রায় অনুষ্ঠিত এ কনসার্টে মূল আকর্ষণটা ছিল ভারতের বিখ্যাত সুরকার এআর রহমান। প্রায় ২০ কোটি টাকা ব্যয়ে এ অনুষ্ঠানে দর্শক-শ্রোতাদের সুরের জাদুতে বুঁদ করে রাখেন তিনি সহ দেশী-বিদেশী শিল্পীরা। আর সংগীতানুষ্ঠানের মাঝ পথে আতশবাজির ঝলকানিতে বর্ণিল হয়ে ওঠে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম ও এর আশপাশের আকাশ। সংগীতে অস্কারজয়ী শিল্পী ভারতের এআর রহমান ছাড়াও গতকাল মঞ্চে গান করেন প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী উদিত নারায়ণ, জাভেদ আলী, ণীতি মোহন, স্বেতা পণ্ডিতরা। গান পরিবেশন করেন বাংলাদেশের প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী রুনা লায়লা, সাবিনা ইয়াসমিন, কুমার বিশ্বজিৎ ও মমতাজ। আরও আকর্ষণ ছিলেন সেনেগালিজ বংশো™ভুত হিপহপ গায়ক যুক্তরাষ্ট্রের অ্যাকন। বিকাল পাঁচটায় শুরু হয় শিল্পীদের পরিবেশনা। শুরুতে গান পরিবেশন করেন বাংলাদেশের শিল্পীরা। এ সময় শ্রোতা-দর্শকরা অর্ণব অ্যান্ড ফ্রেইন্ডস, সোলস, এলআরবি ব্যান্ডের পারফরমেন্স উপভোগ করেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষণা করেন সন্ধ্যা ৭টা ৪৫ মিনিটে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আমি এই সেলিব্রেশন কনসার্টের বর্ণিল আয়োজনে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের উদ্বোধন ঘোষণা করলাম। বাংলাদেশের ক্রিকেটকে এগিয়ে নিতে আমাদের এই আয়োজন। টি-টোয়েন্টি বিশ্ববাপের মতো এত বড় আসর আমাদের এককভাবে আয়োজন করতে সুযোগ দেয়ায় আইসিসিকে ধন্যবাদ। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘ক্রিকেট খেলা যেন আরও সফল হয়। বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে, বাংলাদেশ এগিয়ে যাবে।’ তার আগে বক্তব্য রাখেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত, ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বিরেণ শিকদার ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। প্রধানমন্ত্রী প্রায় শেষ পর্যন্ত অনুষ্ঠান উপবোগ করেন।
‘সে যে বসে আছে একা একা’ গান দিয়ে অর্ণব শুরু করেন পরিবশেনা। অবশ্য স্টেডিয়ামের বাইরে টিকিট হাতে তখনও অপেক্ষায় হাজার দর্শক। ৫টা ২০ মিনিটে মঞ্চে যায় ব্যন্ডদল সোলস। তাদের বিখ্যাত ‘গান মন শুধু মন ছুঁয়েছে’ পরিবেশনা দিয়ে শুরু করেন পার্থ-নাসিম আলীরা। এর পর আসে ব্যান্ড দল এলআরবি’র পালা। ব্যান্ডের ভোকাল আইয়ুব বাচ্চু একে একে পরিবেশন করেন তাদের বিখ্যাত ‘রাখে আল্লাহ মারে কে, সেই তুমি কেন এত অচেনা হলে’ গানগুলো। প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধন ঘোষণা শেষে এবার আসে এআর রহমানের পালা। ততক্ষণে বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের গ্যালারি দর্শকে ভরে গেছে। ক্রিকেট খেলাকে ঘিরে নির্মিত বিখ্যাত বলিউড চলচ্চ্ত্রি ‘লগন’ ছবির ‘বার বার হা’ গানটি নিয়ে দর্শকদের তুমুল তালিতে মঞ্চে হাজির হন ছোট ছোট বাতি-সজ্জিত জ্যাকেট গায়ে এআর রহমান। পরে বলিউডের পাকিস্তানি গায়ক জাভেদ আলী সহশিল্পী শ্বেতা পণ্ডিতকে নিয়ে পরিবেশন করেন বিখ্যাত ‘তুম তাক’ গানটি। লগন ছবিরই অপর বিখ্যাত গার ‘আজারে আজারে’ গেয়ে নিজের পারফরমেন্স শুরু করেন বলিউডের নেপালি গায়ক উদিত নারায়ণ।
গতকাল এআর রহমানের কনসার্ট শুরুর আগে ত্রিমাত্রিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে পর্দায় বাংলাদেশের ক্রিকেটের ইতিহাস তুলে ধরা হয় দর্শকদের সামনে। উপমহাদেশের সংগীত আইকন এআর রহমানের আগমনে বাংলাদেশের সংগীতপ্রেমী মহলে উন্মাদনাটা দেখা যায় ৮ই মার্চ টিকিট বিক্রির প্রথম দিন থেকেই। অনুষ্ঠানের একটা টিকিট হাতে পেতে আগ্রহীদের চেষ্টা চোখে পড়েছে স্পষ্ট। বিসিবি’র এ কনসার্ট উপভোগ করতে নির্ধারিত মূল্যে টিকিট প্রতি ২০০০ থেকে ৭৫০০০ টাকা পর্যন্ত খরচ করেছেন দর্শকরা। প্রথা অনুযায়ীই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০১৪-এর কোন উদ্বোধনী অনুষ্ঠান আয়োজনে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিলের তরফে ব্যবস্থা ছিল না। বাংলাদেশ একক কোন বিশ্বকাপের আয়োজক হয়েছে এবারই প্রথম। এতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) নিজ উদ্যোগে আয়োজন করে এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের। আর বিসিবিকে এ আয়োজনে সহযোগিতা করেছে দুই প্রতিষ্ঠান গ্রে অ্যাডভার্টাইজিং বাংলাদেশ ও ব্লুজ কমিউনিকেশনস। পঞ্চম আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ উপলক্ষে ছিল গতকালের আয়োজন। কিন্তু আইসিসি’র সহযোগিতা ছাড়া এককভাবে বিসিবি আয়োজন করছিল গতকালের কনসার্ট। এ কারণে গতকালের অনুষ্ঠানে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ লোগো ব্যবহারের অনুমতি ছিল না। তবে অনুষ্ঠান শেষে কানে সুরের প্রতিধ্বণী ও চোখেমুখে আতশবাজির আলো নিয়ে সবাই বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়াম ছেড়েছেন নিশ্চিত। রোববার প্রতিযোগিতার প্রথম খেলায় বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে আফগানিস্তানের। উৎসঃ   মানবজমিন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ