• বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৩৭ অপরাহ্ন |

শ্যামপুর সুগার মিলে ১০ কোটি টাকা বকেয়া

BadarganjPhoto 0jসারোয়ার আলম সুমন, বদরগঞ্জ (রংপুর ): রংপুরের বদরগঞ্জ উপজেলার শ্যামপুর সুগার মিলের ৫ হাজার আখ চাষীর প্রায় ১০ কোটি টাকা আখের দাম পাওনা রয়েছে। চিনি উৎপাদন ব্যয় বেশি, সরকারী ভর্তুকির টাকা না পাওয়া এবং চিনি অবিক্রিত থাকার কারণে মিল কর্তৃপক্ষ চাষীদের আখের মূল্য পরিশোধ করতে পারছেনা। আখ মৌসুম শেষ হয়ে গেলেও গত ২ মাস থেকে আখ চাষীদের ওই পাওনা রয়েছে। আগামী ২৩ মার্চের মধ্যে পাওনা টাকা পরিশোধ না হলে, লাগাতার অবরোধের ঘোষনা দিয়েছে আখ চাষী সমিতির নেতারা।
এদিকে মিলে বিক্রি করা আখের দাম না পেয়ে চাষীরা বোরো ধান চাষ করতে আর্থিক সমস্যায় পড়েছে। তারা সেচের পানির দাম এবং জমিতে প্রোয়জন মত সার দিতে পারছেনা। বৃহস্পতিবার এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে শ্যামপুর সুগার মিল চত্বরে বদরগঞ্জ উপজেলা আখচাষী কল্যাণ সমিতির আয়োজনে এক সংবাদ সন্মেলন অনুষ্টিত হয়। এতে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, বদরগঞ্জ উপজেলা আখচাষী কল্যাণ সমিতির সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম। উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আখচাষী কল্যাণ সমিতির উপদেষ্ঠা বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর সাত্তার, শ্রমিক নেতা উপজেলার গোপালপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলতাফ হোসেন,সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আজিজার রহমান এবং উপজেলা আখচাষী কল্যাণ সমিতির  সম্পাদক আতিকুর জামান মানিক। সংবাদ সন্মেলনে আখচাষী কৃষকদের পক্ষে দাবী করা হয় আগামী ২৩ মার্চের মধ্যে ৫ হাজার কৃষকের আখের দাম ১০ কোটি টাকা পরিশোধ করতে হবে। তা না হলে ২৪ মার্চ  প্রশানের নিকট স্মারক লিপি দিয়ে লাগাতার অবোরোধ ঘেরাও কর্ম সূচীর ঘোষনা দেন আখচাষীরা। শ্যামপুর সুগার মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শিবেন্দ্র নাথ সরকার বলেন, শ্যামপুর সুগার মিলে গত আখ মৌসুমে ১৭ কোটি টাকার আখ ক্রয় করা হয়। তার মধ্যে ৫ হাজার কৃষকের প্রায় ১০ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে। উৎপাদন খরচ বেশি হওয়া, সরকারী ভতুকির টাকা না পাওয়া এবং চিনি অবিক্রিত থাকার কারণে কৃষকদের আখের মূল্য পরিশোধ করা যাচ্ছে না। সরকারী ভর্তুকির টাকা পেলেই কৃষক দের পাওনা টাকা পরিশোধ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ