• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৫:১৪ অপরাহ্ন |

বরের সাথে অতিরিক্ত যাত্রী, সংঘর্ষ!

Songgorsoগাজীপুর প্রতিনিধি: শ্রীপুরে বিয়ে বাড়িতে দাওয়াতের অতিরিক্ত মেহমান আসায় কনে বাড়ীর সদস্যদের সাথে বরযাত্রী পরিবারের সদস্যদের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩ টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৫ টা পর্যন্ত দুই ঘন্টাব্যাপী উপজেলার বরমী ইউনিয়নের মধ্যপাড়া গ্রামে সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে কনের বাড়ীর ডেকোরেটরের অর্ধশতাধিক চেয়ার, উভয় পক্ষের লোকদের মোটরসাইকেল ও অর্ধশতাধিক আহত হয়েছে। আহতরা হলেন, শান্ত, শিউলী, আনার, রনি, মুক্তা, নাসিমা, বাদল, রশিদ, কাউসার, মুহিন, আলমগীর, হিমেল ও বজলুসহ প্রায় অর্ধশতাধিক আহত হয়। আহতদের শ্রীপুর ও কাপাসিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রাখা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ওই গ্রামের বাবুলের কন্যা শারমিনকে পার্শ্ববর্তী কাপাসিয়া উপজেলার টোক ইউনিয়নের টোক গ্রামের বাবুল মিয়ার পুত্র পাবেলের সাথে প্রায় দেড় মাস আগে বিয়ের কাবিন রেজিষ্ট্রি হয়। আজ কনের পিত্রালয় থেকে কনে শারমিনকে আনুষ্ঠানিকভাবে বরের লোকজন নিতে আসে। উভয় পক্ষের সম্মতিতে এ অনুষ্ঠানে বরের পক্ষের ১০০ জন মেহমান উপস্থিত হওয়ার কথা ছিল।
কিন্তু বরের লোকজন কনে পক্ষের সাথে কথা না বলে অতিরিক্ত অতিরিক্ত ৫০ জনসহ প্রায় ১৫০ জন মেহমান নিয়ে কনের বাড়ীর অনুষ্ঠানে উপস্থিত হয়। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের লোকদের সাথে কথা কাটাকাটি হওয়ার এক পর্যায়ে তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সংঘর্ষে কনের বাড়ীর ডেকোরেটরের অর্ধশতাধিক চেয়ার, উভয় পক্ষের লোকদের মোটরসাইকেল ও অর্ধশতাধিক মেহমান আহত হয়।
শ্রীপুর মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুছ ছালাম জানান, সংঘর্ষের ঘটনা শুনে কনের বাড়ীতে উপস্থিত হয়েছি। বরমী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুর রাজ্জাক বেপারীর উপস্থিতিতে উভয় পক্ষের সাথে কথা বলে মীমাংসার চেষ্টা চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ