• বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৩৮ অপরাহ্ন |

গ্রামীণফোনের গ্রাহক সেবার মান সবচেয়ে খারাপ

Grameenphoneসিসি ডেস্ক: দেশের সব থেকে বড় মোবাইল ফোন অপারেটর গ্রামীণফোনের গ্রাহক সেবার মান অন্য সব অপারেটরের চেয়ে খারাপ বলে প্রমাণিত হয়েছে। কল ড্রপ, সাক্সেস রেট এবং সেবার গুণগত মানের বিচারেও (কোয়ালিটি অব সার্ভিস) গ্রামীণফোনের সেবার বাজে অবস্থা। কোম্পানিটি বছরে প্রায় ১০ হাজার কোটি টাকা আয় করলেও গ্রাহকের সেবার মান সেভাবে বাড়েনি। বরং কোম্পানিটি নানা কৌশলে গ্রাহকের ঠকাচ্ছে এমন অভিযোগও রয়েছে এর বিরুদ্ধে। সম্প্রতি শাহবাগ, ফার্মগেট, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউট এবং পান্থপথে সেবার মানের মাঠ পর্যায়ের চিত্র পেতে ভয়েস ডাটা কালেক্টিং মেশিন বসিয়ে এই জরিপ পরিচালনা করে বিটিআরসি।

প্রথম দিকে উন্নত নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা এবং প্রত্যন্ত অঞ্চলে মোবাইল সুবিধা পৌঁছে দেওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে গ্রামীণ গ্রাহকের দিক দিয়ে শীর্ষে অবস্থান করে আসছে। তবে বিটিআরসির জরিপে দেখা গেছে গ্রাহক সেবায় এই কোম্পানিটি তুলনামূলক পিছিয়ে আছে অন্য কোম্পানিগুলোর তুলনায়। বিটিআরসির জরিপে দেখা গেছে গ্রামীণ ফোনের কল সাকসেসে রেট ৯১ দশমিক ৩ শতাংশ, যা বেসরকারি মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সর্বনিম্ন। এছাড়া কল ড্রপের ক্ষেত্রেও শীর্ষে অবস্থান করছে গ্রামীণ ফোন। এই প্রতিষ্ঠান নেটওয়ার্কে কল ড্রপের হার ৮ দশমিক ৭ শতাংশ।

জরিপে আরও জানা যায়, বাংলালিংকের কল সাকসেস রেট ৯২ দশমিক ১১ এবং রবির ক্ষেত্রে এই হার ৯১ দশমিক ৪৯ শতাংশ। তবে একমাত্র ব্যতিক্রম এয়ারটেল। এই প্রতিষ্ঠানের কল সাকসেসের হার ৯৭ দশমিক ২২ শতাংশ। আর রাষ্ট্রায়ত্ব টেলিটকের কল সাকসেসের হার ৮১ দশমিক ১৩ শতাংশ। জানুয়ারি মাসে প্রকাশিত কোয়ালিটি অব সার্ভিসের নীতিমালা অনুসারে নূন্যতম কল সাক্সেস রেট হতে হবে ৯৫ শতাংশ। পর্যায়ক্রমে সেটি ৯৭ শতাংশে উন্নীত করার কথা। কিন্তু এয়ারটেল ছাড়া অন্য কোনো অপারেটরের ক্ষেত্রে এ নূন্যতম মাত্রাও পাওয়া যায়নি। তবে জরিপ প্রতিবেদনে সেবার দুটি ক্ষেত্রে দেশের সবচেয়ে পুরনো মোবাইল ফোন অপারেটর সিটিসেলের কোনো তথ্য উল্লেখ করা হয়নি।

এ ব্যাপারে গ্রামীণফোনের চিফ কর্পোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মাহমুদ হোসেন ইংরেজি দৈনিক ইন্ডিপেন্ডটকে দেওয়া সাক্ষাতকারে বলেন, সেবার মানের ক্ষেত্রে আমরা কোনো ধরনের ছাড় দিই না এবং গ্রাহককে সর্বোচ্চ সেবা পৌঁছে দিতে আমরা নৈতিকভাবে দায়বদ্ধ। ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানায়, বিটিআরসি জরিপে প্রাপ্ত তথ্য সম্পর্কে কোন মন্তব্য করতে রাজি হয়নি বাংলালিংক কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও রবি এবং টেলিটক জরিপ সম্পর্কে জ্ঞাত নয় বলে জানিয়েছে ইন্ডিপেন্ডেন্ট।

প্রসঙ্গত, বিটিআরসির নির্দেশনা অনুযায়ি, মোবাইল সেবা প্রদানের ক্ষেত্রে প্রথম দুই বছরে কল সেটআপ রেট ৯৫ শতাংশ এবং পরবর্তী সময়ে এই হার অবশ্যই ৯৭ শতাংশ হওয়া বাধ্যতামূলক। পাশাপাশি কল ড্রপের হার কোন মতেই ৩ শতাংশের বেশি হতে পারবে না। দেশে রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান টেলিটকসহ দেশে বর্তমানে ছয়টি মোবাইল সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান রয়েছে। দেশজুড়ে প্রতিষ্ঠানগুলোর প্রায় ১১ কোটি ৪৮ লাখ ৮ হাজার গ্রাহক রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ