• সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৪:৩৯ অপরাহ্ন |

নীলফামারীতে জামায়াত-শিবিরের হামলায় ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে সহায়তা প্রদান

OLYMPUS DIGITAL CAMERAনীলফামারী প্রতিনিধি: সম্প্রতি জামায়াত-শিবিরের হামালা ও নির্যাতনের শিকার নীলফামারী সদর উপজেলার লক্ষীচাপ, টুপামার ও পলাশবাড়ী ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্থ হিন্দু পরিবারের মাঝে আর্থীক সহায়তা দিয়েছে ঢাকাস্থ ইব্রাহীম মেডিক্যাল কলেজ ও বারডেম হাসপাতালের শিক্ষার্থীরা। নির্যাতনের শিকার ১৭টি পরিবার মাঝে নগদ অর্থ তুলে দেন ইব্রাহীম মেডিক্যাল কলেজ ও বারডেম হাসপাতালের সরস্বতী পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুব্রত দে ও সহ-সভাপতি গোপাল সীল।
সোমবার সকালে নীলফামারী শহরের মিলনপল্লী সার্বজনীন দূর্গা মন্দির চত্তরে জেলা পূজা উদযাপন পরিষদ ও হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের আয়োজনে এবং ইব্রাহীম মেডিক্যাল কলেজ ও বারডেম হাসপাতালের সরস্বতী পূজা উদযাপন পরিষদের সার্বিক সহযোগীতায় নির্যাতনের শিকার ১৭টি পরিবারের মাঝে ৮৫ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়। প্রত্যেক পরিবারকে নগদ পাঁচ হাজার টাকা করে দেয়া হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন ইব্রাহীম মেডিক্যাল কলেজ ও বারডেম হাসপাতালের শিক্ষার্থী এসময়  মো. আজিজুল হক ও সৌরভ নন্দী। এছাড়াও নীলফামারী জেলা পুজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট অক্ষায় কুমার রায়, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট রমেন্দ্র নাথ বর্দ্ধন বাপী, সাংগঠনিক সম্পাদক উত্তম কুমার রায় বাদল, জেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি খোকা রাম রায়, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মৃণাল কান্তি রায়,  সদর উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শান্তনা চক্রবর্তী ও সাধারণ সম্পাদক হর্ষ বর্দ্ধন রায় প্রমূখ।
ইব্রাহীম মেডিক্যাল কলেজ ও বারডেম হাসপাতালের সরস্বতী পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি সুব্রত দে জানান, আমাদের কলেজের অধ্যক্ষ ডা. জালাল উদ্দীন আশরাফ ও শিক্ষক ডা. অরউপ রতন চৌধূরীর ব্যক্তিগত প্রচেষ্টায় এবং বারডেম হাসপাতালের ডা. বাঁধন কুমার দে’র সার্বিক সহযোগীতায় এই সহায়তা দেয়া সম্ভব হয়েছে। নির্যাতনের শিকার নীলফামারীর হিন্দু সম্প্রদায়ের ১৭ পরিবারের নিঃস্ব পরিবারে প্রত্যেক পরিবারকে নগদ  পাঁচ হাজার করে মোট ৮৫ হাজার টাকা প্রদান করা হয়।
প্রসঙ্গত ২০১৩ সালের ১২ ডিসেম্বর যুদ্ধাপরাধী কাদের মোল্লার ফাঁসীর রায় কর্যকর হওয়ার সাথে সাথে সারা দেশের মতো নীলফামারীর লক্ষীচাপ ইউনিয়ন, পলাশবাড়ী ইউনিয়ন ও টুপামারী ইউনিয়নের বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় বসবাসরত হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপড় ব্যপক সহিংসতা চালায় জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ