• শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১১:২৯ অপরাহ্ন |

বিরামপুরে বিএনপি নেতৃবৃন্দের পলায়ন!

BNP Flagএকলাছুর রহমান, বিরামপুর: ১৭ মার্চ বিএনপি’র দেশব্যাপী বিক্ষোভ কর্মসূচী বিরামপুর উপজেলা ও পৌর বিএনপি’র তৃণমূল নেতৃবৃন্দ বিএনপি অফিস থেকে শুরু করে। বিএনপি প্রার্থী পরাজয়ের দায়ে অভিযুক্ত উপজেলা বিএনপির সভাপতি আশরাফ আলী, সাধারন সম্পাদক কমর সেলিম, পৌর বিএনপির সাধারন সম্পাদক মিয়া শফিকুল ইসলাম মামুনসহ তাদের অনুসারী বিএনপি অফিসে আসার পথে তৃণমূল নেতৃবৃন্দের তাড়া খেয়ে পালিয়ে যায়। আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর উপস্থিতির কারনে হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। পরিস্থিতি শান্ত হলে জেলা বিএনপির কৃষি ও খাদ্য বিষয়ক সম্পাদক তোছাদ্দেক হোসেন তোছার নেতৃত্বে আটক নেতৃবৃন্দের মুক্তি ও বিদুৎতের দাম বাড়ানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিলটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিএনপি অফিসের সামনে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে শেষ করেন। এতে অন্যান্যর মধ্যে বক্তব্য রাখেন উপজেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এ্যাড.মঞ্জুর রশীদ রতন, পৌর বিএনপির যুগ্ম সা:সম্পাদক মহসীন আলী রাজু , পৌর যুবদলের সভাপতি নূরে আলম, উপজেলা যুবদলে যুগ্ম সা:সম্পাদক আবদুল্লাহ আল সেফায়েত সোহাগ, যুব নেতা বাবুল হোসেন, সাবেক ভিপি গোলাম মোর্শেদ সৈকত সহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
বিরামপুর বিএনপি অফিসে গত ২৯ জানুয়ারী জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক মুকুট চৌধূরী তৃণমূল নেতৃবৃন্দের মতামত ও কন্ঠভোটে বিরামপুর উপজেলা চেয়ারম্যান পদে মঞ্জুর এলাহী চৌধূরী রুবেল, ভাইস চেয়ারম্যান পদে এ্যাড.মঞ্জুর রশীদ রতন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে উম্মে কুলসুম বানুকে দলীয় মনোনয়ন দেন।
অপর দিকে আওয়ামীলীগের এজেন্ডা বাস্তবায়ন ও বিএনপি’র নিশ্চিত বিজয় ঠেকাতে উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক খায়রুল আলম রাজুর ভাই দবিরুল ইসলামকে উপজেলা চেয়ারম্যান ও দেলোয়ার হোসেন মোল্লাকে উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে বলে অপপ্রচার চালায় উপজেলা বিএনপির সভাপতি আশরাফ আলী, সাধারন সম্পাদক কমর সেলিম, পৌর বিএনপির সাধারন সম্পাদক মিয়া শফিকুল ইসলাম মামুনসহ তাদের অনুসারীরা।
বিএনপি প্রার্থী পরাজয়ের দায়ে বিএনপি অফিসে উপজেলা বিএনপির সভাপতি আশরাফ আলী, সাধারন সম্পাদক কমর সেলিম, পৌর বিএনপির সাধারন সম্পাদক মিয়া শফিকুল ইসলাম মামুনসহ তাদের অনুসারীদের বহিস্কার ও নতুন কমিটি গঠনের দাবীতে ৬ মার্চ (বৃহস্পতিবার) বিকেলে সংবাদ সম্মেলন হয়। উপরোক্ত নেতৃবৃন্দ  আবারো ১৭ মার্চ কেন্দ্রীয় কর্মসূচী পালনের জন্য বিএনপি অফিসে আসার পথে তৃণমূল নেতৃবৃন্দের তাড়া খেয়ে পালিয়ে যান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ