• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৭:১৩ অপরাহ্ন |

জুতোর উৎকট গন্ধ থেকে মুক্তির উপায়

Shooলাইফস্টাইল ডেস্ক : জুতোর গন্ধ খুবই লজ্জায় ফেলে দেয় আমাদের। এমনকি অনেক পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকার পরও এই উৎকট গন্ধের হাত থেকে রেহাই মেলে না। শীতকালে এই সমস্যায় সবাইকে পড়তে হয়। আবার বহু মানুষ রয়েছেন, যাদের সারা বছরই জুতো খোলার ভয়ে থাকতে হয়। আর এ সমস্যা যেসব নারীদের রয়েছে, তারা তো কারো সামনেই যেতে চান না স্রেফ জুতোর দম বন্ধ করা গন্ধের অত্যাচারে। তাই নারীদের জুতোর গন্ধের পেরেশানি থেকে মুক্তি দিতে ৭টি উপায় বাতলে দেওয়া হলো।

১. পা দু’টোকে ভেজা রাখবেন না
জুতো জোড়া শুকনো খটখটে রাখলেই হয়। ভেজা পা নিয়ে জুতোর পরলে সেই একই কাহিনীই হলো, অর্থাৎ জুতোর ভিতরেও ভিজে গেলো। আর জুতোর ভিতরে ভিজলে তা রীতিমতো নোংরা একটা কুকুরের মতো গন্ধ ছড়ায়। কাজেই পা বা জুতো কোনোটিই ভিজতে দিবেন না।

২. ফুট স্প্রে ব্যবহার করুন
পা এবং জুতো দুটোই শুকনো, তবুও বিশ্রী গন্ধ। এমন হলে পায়ের স্প্রে ব্যবহার করতে পারেন। পায়ের জন্যেও সুগন্ধী রয়েছে। এগুলোর দাম বেশি না। তা ছাড়া সামান্য অর্থ খরচ করে হলেও মানুষের সামনে মান-সম্মান তো বাঁচাতে হবে।

৩. বেকিং সোডায় কাজ হবে
একটি স্যাচেটে বা ছোট কাপড়ে সামান্য পরিমাণ বেকিং সোডা জুতোর মধ্যে রেখে দিন। ঘুমানোর আগে রেখে দিলে রাত পোহাতেই গন্ধহীন জুতো পড়ে বরোতে পারবেন। রান্নাঘরের এই সাধারণ উপকরণটি অহরহ পাওয়া যায়। এটি গন্ধ শুষে নিতে ভালো কাজ করে।

৪. জুতোর সুখতলা বদলান
পায়ের সারা দিনের ঘাম জমা হয় পায়ের তলায়। আর সেখান থেকে লেগে যায় জুতোর সুখতলায়। ধীরে ধীরে সেখানে দেখবেন তেল চিটচিটের মতো ময়লা জমে গেছে। এটিই বাজে গন্ধের মূল উৎস। যাদের পা ঘামে তারা কিছু দিন পর পর জুতোর সুখতলাটি বদলে নেবেন।

৫. ফেব্রিক সফটনার শিট কার্যকর
একে ফেব্রিক কন্ডিশনারও বলা হয়। কাপড় ধোয়ার সময় কাপড় যেনো নষ্ট না হয়ে যায় এর জন্য ফেব্রিক সফটনার ব্যবহার করা হয়। এটি তরল অবস্থা ছাড়াও পাতলা টিস্যুর অবস্থায় কিনতে পাওয়া যায়। জুতো প্রতিবার ব্যবহারের মাঝখানে এর সুখতলায় এক টুকরো ফেব্রিক কন্ডিশনার দিয়ে রাখলে এর গন্ধ দূর হয়। এর বৈজ্ঞানিক পরীক্ষা না করা হলেও সম্ভবত এটি দুর্গন্ধ শোষন করে এবং সুগন্ধি ছড়ায়।

৬. সুতির উল এবং অ্যালকোহল
বহু চেষ্টাতেও এই গন্ধ থেকে মুক্তি না পেলে বুঝতে হবে, আপনার পা অথবা জুতোয় কিছু ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে এই গন্ধের জন্ম হয়েছে। সে ক্ষেত্রে এক হাতে সুতির উল এবং অপর হাতে অ্যালকোহলের বোতলটি তুলে নিতেই হবে। এবার সুতির উল নিয়ে তা বলের মতো বানিয়ে অ্যালকোহলে চুবিয়ে নিন। অ্যাকোহলে চুপসে গেলে বলে চাপ দিয়ে কিছু তরল ঝেড়ে ফেলুন। তারপর ভেজা বলটি জুতোর চারপাশে এবং ভিতরে ঘষুন। পায়ের তলাতেও এ কাজটি করতে পারেন। এতে ব্যাকটেরিয়া মরে যাবে এবং আপনিও হবেন গন্ধমুক্ত।

৭. প্যান্টিহোজের ভিতরে প্রবেশ করুন
স্কিন মুজোর মতো লম্বা মুজোকে অনেকেই প্যান্টিহোজ নামে চিনেন। এটি ব্যবহার করে কোমর থেকে পুরো পা ঢেকে ফেলুন। এতে গোটা পা ঘামলেও তা প্যান্টিহোজ গলে বাইরে বেরোতে পারবে না। মূলত যাদের অভ্যাস রয়েছে তারা এর থেকে সুফল নিতে পারবেন। সূত্র : ইন্টারনেট


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ