• বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৩৩ অপরাহ্ন |

৪০ বছর পর মাকে খুঁজে পেলেন দুলাল

Panchogorসিসি নিউজ: হারিয়ে যাওয়া মাকে প্রায় ৪০ বছর পর খুঁজে পেলেন দুলাল। শুক্রবার দুপুরে পঞ্চগড় জেলা শহরের বাজারে মাকে পেয়ে তিনি আনন্দে আত্মহারা হয়ে যান। এ সময় এক আবেগঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। একে অপরকে জড়িয়ে ধরে কেঁদে ফেলেন মা-ছেলে দুজনেই। এরপর শুরু হয় মিষ্টি খাওয়ানো।
দুলালের মা রেখা (৭৫) মানসিক ভারসাম্যহীন। ৪০ বছর আগে তিনি দুলালের নানির সঙ্গে ছিলেন। সে সময় নাটোর থেকে হারিয়ে যান। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও মাকে না পেয়ে মায়ের আশা ছেড়েই দিয়েছিলেন দুলাল।
পঞ্চগড় শহরের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আব্দুর রহমান জানান, রেখা পাগলী প্রায় ৪০ বছর ধরে পঞ্চগড়েই আছেন। তিনি শহরের আরেকজন ব্যবসায়ী খোরশেদ আলমের বাসায় থাকতেন। পঞ্চগড় বাজারের সবার সঙ্গেই তার ভাল সম্পর্ক। রেখা পাগলী তার বাড়ি রাজশাহীর দুর্গাপুর উপজেলার আড়োল গ্রামে বলে জানিয়েছিলেন।
আব্দুর রহমান আরও জানান, কিছুদিন আগে আটোয়ারী উপজেলা সদরে রাজশাহীর দুর্গাপুর থেকে আসা পান ব্যবসায়ী কাশেম আলীর সঙ্গে তার পরিচয় হয়। তিনি রেখা পাগলীর কথা কাশেমকে জানান। কাশেম আলী তার নাম ঠিকানা লিখে নিয়ে যান এবং রেখা পাগলীর ছেলে দুলালকে (৫০) দেন।
দুলাল শুক্রবার সকালে দুর্গাপুর থেকে পঞ্চগড় বাজারে আব্দুর রহমানের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে আসেন।
দুলাল জানান, তার যখন ১০/১২ বছর বয়স তখন তার মা হারিয়ে যান। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও মাকে পাননি। এভাবে একে একে প্রায় ৪০ বছর কেটে যায়। দুলাল জানান, তার মা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। এতদিন পর মাকে পেয়ে তার ভালো লাগছে, আনন্দ লাগছে।
রেখা পাগলীর ছেলে আসার কথা শুনে বাজারের সবাই ছুটে আসেন রহমানের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে। মা-ছেলের এই মিলনে সবাই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। দুলাল সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি মাকে দুর্গাপুরের আড়োল গ্রামে বাড়ি নিয়ে যাবেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ