• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১২:০৩ অপরাহ্ন |

বীরগঞ্জে জমি নিয়ে সংঘর্ষ, আহত-১৬

Songorso-2বীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: বীরগঞ্জে আজ শনিবার মামা-ভাগিনার মাঝে জমি নিয়ে সংঘর্ষে শিশু ও মহিলাসহ ১৬ জন আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। উপজেলার সুজালপুর ইউনিয়নের দৌলতপুর গ্রামের মামা উপ সহকারী কৃষি অফিসার আজাহার আলী ওরফে সুরুজ্জামান ও একই গ্রামের ভাগিনা গোলাম মোস্তফা (তারা মিঞা)র বাড়ি সংলগ্ন এক খন্ড জমির সীমানা নিয়ে দু’পরে মাঝে দীর্ঘদিন ধরে বিবাদ চলে আসছিল। ঘটনার দিন ভাগিনা তারা মিঞা মামার বাড়ির সামনে দিয়ে বীরগঞ্জ বাজারে যাওয়ার সময় মামার বাড়ীর সামনে লোকজন নিয়ে ভাগিনাকে আক্রমন, মারপিট করে মোবাইল ফোন, নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয় ও ধস্তাধস্তি করে পড়নের কাপর খুলে নেয় এবং মামার বাড়ীতে আটকে রাখে। এদিকে মামার লোকজন লাঠি-সোটা নিয়ে তারা মিঞার বাড়িতে হামলা করে। তারা মিঞার পরিবারের লোকেরা প্রতিবাদ করলে সংঘর্ষ বেঁেধ যায়। এ সময় প্রতিপরে লাঠির আঘাতে ভাগিনার স্ত্রী রিক্তা জাহান (৩৮), বোন শহিদা বেগম (৩৬), সাহেদা বেগম (৩৮), বিউটি (২২), মাসুদা বেগম (২৮), লিপি খাতুন (৩০), লাবনী আক্তার (১৭),  স্মৃতি খাতুন (১৬), মাহামুদ হোসেন (১৫) শাহাদত হোসেন (১২), সাদিয়া (০৭) মামা পরে শাহানাজ পারভিন মায়া (৩৫), সীমা খাতুন (৩০) শাহীন হোসেন (১৫) শহীদা বেগম (২৮) ও শরিফা বেগম (২০) আহত হয়। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর গুরুতর আহত ৫জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে ও অন্যদের প্রথমিক চিকিৎসার পর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। হাসপাতালে আহত রিক্তা জাহানের সাথে সাক্ষাত করা হলে তিনি উপরোক্ত ঘটনাটি জানান।
উপ সহকারী কৃষি অফিসার আজাহার আলীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান বেলা ১১টায় তারামিয়া তার লোকজন নিয়ে অর্তকিতভাবে আমাদের উপর হামলা চালায় এবং ১২বৎসরের শিশু সহ তিনজনকে আহত করেছে। তারা নিজেরাই তাদের বাড়ী ঘর ভাংচুর করে যা সুজালপুর ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম মাষ্টার নিজে দেখেছেন।
তারা মিয়া জানান মামা তার সন্ত্রাসী বাহীনী নিয়ে আমার ও আমার বোনের  বাড়িতে হামলা চালিয়ে একটি খরের ঘর ভেঙ্গে গুড়িয়ে দিয়ে মালামাল লুট করে নিয়ে গেছে। মামার লোকেরা শোবার ঘরে ঢুকে টেলিভিশনসহ আসবাবপত্র ভাংচুর করে এবং গরুর পানি খাওয়ার পাত্রে কমবিটি-২ বিষ প্রয়োগ করেছিল যা আক্কাস আলী ও শাওন উদ্ধার করেছে।
সুজালপুর ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম মাষ্টার জানান বিয়ষটি তাদের পারিবারিক বিষয় তাই আপোষ মিমাংসার মাধ্যমে নিস্পত্তি করার চেষ্টা চলছে। এ সংবাদ লেখা পর্যন্ত উভয় পরে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছিল।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ