• বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৯:০১ পূর্বাহ্ন |

টি-২০ বিশ্বকাপের দ্বিতীয় জয় পেল ভারত

Criঢাকা : উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান রোহিত শর্মা ও বিরাট কোহলির ব্যাটে ভর করে টি২০ বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আরেকটি বড় জয় পেয়েছে এবারের শিরোপার দাবিদার ভারত। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ছুঁড়ে দেয়া ১৩০ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাটিং করতে নেমে ২ বল বাকী থাকতেই মাত্র ৩ উইকেট হারিয়ে টুর্ণামেন্টের দ্বিতীয় জয়টি নিশ্চিত করে তারা। অর্থাৎ ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৭ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে ভারত। তবে স্যামুয়েল বদ্রির করা প্রথম ওভারের পঞ্চম বলেই এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফিরে গেছেন ভারতীয় ওপেনার শিখর ধাওয়ান। এর পর দলীয় ১০৭ ও নিজের ৫৪ রানে বিরাট কোহলি যখন রাসেলের বলে বোল্ড হন ততক্ষণে ভারতের জয়টি প্রায় সময়ের ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায়। তবে শেষ দিকে ১০ রানে প্যাভিলিয়নে ফেরেন যুব রাজ সিং। তখনো ৬২ রানে অপরাজিত ছিলেন রোহিত শর্মা।
এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৭ উইকেটে ১২৯ রান করেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতের স্পিনারদের খেলতে না পেরে নিয়মিত উইকেট হারিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে সুপার টেনে রবিবারের দ্বিতীয় ম্যাচে টস জিতে ফিল্ডিং নেন ভারতের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। অবশ্য বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজের টুর্নামেন্টে এটাই প্রথম ম্যাচ। ভারত সুপার টেনের উদ্বোধনী ম্যাচে পাকিস্তানকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে। ওই ম্যাচের দল নিয়েই আজও মাঠে নামে ভারত।
শেষ ওভারে তিন ছক্কায় ২১ রানে কিছুটা লড়াই করার মতো সংগ্রহ গড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শেষ ব্যাটসম্যান আউট হওয়ার আগে ২২ বলে ২৭ রান করেন লেন্ডল সিমন্স। ১৮ তম ওভারে লং অফের সীমানায় দাড়িয়ে রবীন্দ্র জাদেজার বলে অধিনায়ক ড্যারেন সামির ক্যাচ ধরেন রোহিত শর্মা। পরের বলেই লং অনে সুরেশ রায়নার হাতে ধরা পরলেও নো বলের কল্যাণে বেচে যান সিমন্স।
১৫তম ওভারে পর পর ২ বলে ২ উইকেট পান অমিত মিশ্র। তৃতীয় বলে মারলন স্যামুয়েলসকে স্ট্যাম্পিং করেন ধোনি। পরের বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন ডোয়াইন ব্রাভো। দুবার জীবন পাওয়ার পর রান আউট হয়ে ফিরেন ক্রিস গেইল (৩৪)। এর আগে অষ্টম ওভারে ওভারে রবিচন্দ্রন অশ্বিন নিজের বলে ক্যাচ ধরে ফেরান ডোয়াইন স্মিথকে।
মোহাম্মদ সামির করা দ্বিতীয় ওভারে স্লিপে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের হাতে ক্যাচ দিয়েও বেঁচে যান ক্রিস গেইল। সে সময় শূন্য রানে ব্যাট করছিলেন গেইল। এরপর সপ্তম ওভারে অমিত মিশ্রর বলে গেইলের সহজ ক্যাচ ফেলে দেন যুবরাজ সিং। গেইলের রান তখন ১৯। প্রথম দশ ওভারে ৩টি চার ও ২টি ছয়ে মাত্র ৪৬ রান তুলতে পারে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। অমিত মিশ্রা ৪ ওভারে মাত্র ১৮ রান দিয়ে নেন ২ উইকেট। রবীন্দ্র জাদেজা ৩ উইকেট নিলেও দেন ৪৮ রান। ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হয়েছে অমিত মিশ্র।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ