• বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১০:৫২ পূর্বাহ্ন |

রাজারহাটে ‘গ্রোয়াস মার্কেট’ লিজ দেয়ার নামে প্রতারনা

Protaronaরাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলাধীন ছিনাই ইউপি’র প্রত্যন্ত পল্লীতে জেলার একমাত্র পাঙ্গাহাট গ্রোয়াস মার্কেটটি লিজ দেয়ার নাম করে কুড়িগ্রাম জেলার কৃষি বিপণন বিভাগের মার্কেটিং অফিসার হুমায়ুন কবীরের বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ এনে ইউএনও বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগে প্রকাশ, উপজেলার ছিনাই ইউপি’র মীরেরবাড়ী এলাকার মৃত রহমত আলীর পুত্র সুরুজ্জামাল (৪০) ৩ মাস পূর্বে পাঙ্গাহাট গ্রোয়াস মার্কেটটি লিজ নেয়ার জন্য মার্কেটের দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা কুড়িগ্রাম কৃষি বিপণন বিভাগের মার্কেটিং অফিসার হুমায়ুন কবীর তার কাছ থেকে স্থানীয়দের সাক্ষাতে মৌখিকভাবে ৫ হাজার টাকা ঘুষ গ্রহণ করেন। মার্কেটটি লিজ দেয়ার নাম করে দীর্ঘদিন ধরে ওই কর্মকর্তা সুরুজ্জামালের সঙ্গে টালবাহনা করে আসছে এবং মমিন নামের ওই এলাকার জনৈক এক ব্যক্তিকে মার্কেটটি লিজ দেয়ার কথা বলে মোটা অংকের উৎকোচ গ্রহণ করে তাকে গোপনে দরপত্র কিনতে বলে মার্কেটিং অফিসার হুমায়ুন কবীর। এ ঘটনা ফাঁস হয়ে গেলে রোববার সকালে এলাকার গ্রোয়াসদের নিয়ে দু’দিন ব্যাপী ওই মার্কেটে ট্রেনিং শুরু হলে এতে উপস্থিত ছিলেন-রাজশাহী বিভাগীয় কৃষি বিপণন বিভাগের উপ-পরিচালক সুবল বোস মনি এবং গ্রোয়াস মার্কেটের সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস.এম. মাজহারুল ইসলাম এবং উপজেলা কৃষি অফিসার ষষ্টী চন্দ্র রায়। ওই সময় সুরুজ্জামাল সহ পার্শ্ববর্তী প্রায় ৫০ জনের একদল গ্রোয়াসরা মার্কেটিং অফিসার হুমায়ুন কবীরের বিরুদ্ধে একাধিক অনিয়মের অভিযোগ উত্থাপন করেন এবং হট্টগোল শুরু হয়। এরই এক পর্যায়ে উপ-পরিচালক ও রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মার্কেটিং অফিসার হুমায়ুন কবীরের বিরুদ্ধে অভিযোগ থাকলে তা লিখিতভাবে দেয়ার কথা বললে পরিস্থিতি শান্ত হয়। উল্লেখ্য, কুড়িগ্রাম জেলার রবি শস্যর ভান্ডার হিসেবে সু-পরিচিত পাঙ্গাহাট গ্রোয়াস মার্কেটটি প্রায় কোটি টাকা ব্যয় করে নির্মান করলেও মার্কেটিং অফিসার ও দায়িত্ব প্রাপ্ত কর্মকর্তা হুমায়ুন কবীরের চরম উদাসীনতায় এলাকার চাষীরা সঠিকভাবে ওই গ্রোয়াস মার্কেটটির সেবা হতে বঞ্চিত হবার কথা জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন একাধিক ভুক্তভোগী চাষীরা। এ বিষয়ে রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস.এম. মাজহারুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত পূর্বক দোষী প্রমাণিত হলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। দায়িত্ব প্রাপ্ত মার্কেটিং অফিসার হুমায়ুন কবীরের সঙ্গে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভাই আপনারা সাংবাদিক যা শখ লিখেন এবং ঘুষ গ্রহণের বিষয়টি তিনি অস্বীকার করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ