• বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৩৮ পূর্বাহ্ন |

নিখোঁজ বিমানের স্যাটেলাইট তথ্য চেয়েছে চীন

11আন্তর্জাতিক ডেস্ক: চীনের সরকার মালয়েশিয়ার কাছে নিখোঁজ মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্স ফ্লাইট এমএইচ৩৭০ সম্পর্কে স্যাটেলাইট থেকে পাওয়া তথ্যের বিস্তারিত জানতে চেয়েছে। মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর বিমানটি ভারত মহাসাগরে বিধ্বস্ত হয়েছে এমন ঘোষণার পর চীন তথ্য দাবি করেছে।
এদিকে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজেক বলেছেন, স্যাটেলাইট থেকে পাওয়া তথ্য যাচাই করে তারা মনে করছেন নিখোঁজ মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্স ফ্লাইট এমএইচ৩৭০ ভারত মহাসাগরে বিধ্বস্ত হয়েছে। যাত্রীদের বেঁচে থাকার কোনো সম্ভাবনা নেই বলে তারা মনে করছেন।
সোমবার কুয়ালালামপুরে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজেক এক সংবাদ সম্মেলনে ঘোষণা করেন যে নিখোঁজ মালয়েশিয়া এয়ারলাইন্স ফ্লাইট এমএইচ৩৭০ ভারত মহাসাগরে বিধ্বস্ত হয়েছে।
তিনি বলেন, স্যাটেলাইট থেকে পাওয়া তথ্য যাচাই করে তারা এই সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন।নাজিব রাজেক বলেন, স্যাটেলাইট সার্ভিস এবং যুক্তরাজ্যের বিমান দুর্ঘটনা তদন্ত বিভাগের কাছ থেকে পাওয়া নতুন তথ্য-বিশ্লেষণের ভিত্তিতে এমন সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে হচ্ছে যে, বিমানটির সর্বশেষ অবস্থান ছিল ভারত মহাসাগরের মাঝামাঝি জায়গায়, যেখানে ল্যান্ডিং এর কোনো সম্ভাব্য স্থানই ছিল না।
ফলে অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে এটাই বলতে হয় যে বিমানটির যাত্রা ওখানেই শেষ হয়েছিল।
নাজিব রাজেক অরো বলেন, তারা মনে করছেন যাত্রীদের বেঁচে থাকার আর কোনো সম্ভাবনা নেই। আর সেটি ওই বিমানে থাকা যাত্রীদের আত্মীয় পরিজনদের এসএমএসের মাধ্যমে জানিয়ে দিয়েছে মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্স। নিখোঁজ ওই বিমানটির অধিকাংশ যাত্রী চীনের নাগরিক ছিলেন।
মালয়েশিয়া প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলনে হাজির হওয়া নিখোঁজ যাত্রীদের অনেক স্বজনই সেসময় কেঁদে ফেলেন।
স্বভাবতই এসব স্বজনরা মালয়েশিয়া সরকারের এই উপসংহার মেনে নিতে পারছেন না।
ওই বিমানটির যাত্রী ছিলেন ঝ্যাং জংহাই। তার স্ত্রী বলছেন, তারা বলছে যে ভারত মহাসাগরের দক্ষিণে বিধ্বস্ত হয়েছে, কিন্তু তারা তো বিমানটি এখনো খুঁজে পায়নি। তাহলে তারা কিভাবে সেটি নিশ্চিত হলেন?
মালয়েশিয়ার সরকার গত ১০ বছর ধরেই এমন আচরণ করছে, আমরা তাদের কথা বিশ্বাস করি না।
চীনের সরকারও মালয়েশিয়ার সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারছে না। ইতোমধ্যেই চীনের উপ-পররাষ্ট্রমন্ত্রী শি হ্যাংশেঙ বেইজিংয়ের নিযুক্ত মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রদূত ইস্কান্দার বিন সারুদিনের কাছে স্যাটেলাইট থেকে পাওয়া যাবতীয় তথ্য এবং এ সংক্রান্ত প্রমাণাদি দাবি করেছেন।
এ মাসের ৮ তারিখে এমএইচ৩৭০ কুয়ালালামপুর থেকে চীনের রাজধানী বেইজিং যাওয়ার পথে নিখোঁজ হয়।

উৎসঃ   জাস্ট নিউজ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ