• বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ১০:৪৭ পূর্বাহ্ন |

১৪ বছর পর কবর থেকে কঙ্কাল উদ্ধার

sonai2_19102_1নোয়াখালী: নোয়াখালীর সোনাইমুড়ী পৌরসভার কৌশল্যারবাগ গ্রাম থেকে নিখোঁজ হওয়ার ১৪ বছর পর নিহত নূর নাহারের কঙ্কাল উদ্ধার করলো পুলিশ। তাকে মাটি চাপা দিয়ে রেখেছিল ঘাতকরা। কঙ্কালের সঙ্গে হত্যাকাণ্ডের বসময় ব্যবহৃত একটি দড়ি, ৩টি ছুড়ি উদ্ধার করা হয়।
মঙ্গলবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরীফুল ইসলামের উপস্থিতিতে এ কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়। নিহত গৃহবধূ নূর নাহার সোনাইমুড়ী পৌরসভার কৌশল্যরবাগ গ্রামের জমাদার বাড়ির আলি হোসেনের স্ত্রী।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরীফুল ইসলাম নূর নাহারের কঙ্কাল উদ্ধারে নেতৃত্ব দেন।
সোনাইমুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুস সামাদ জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে যে উদ্ধারকৃত কঙ্কাল নিখোঁজ নূর নাহারের। উদ্ধারের পর কঙ্কালগুলো নোয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তথ্য উৎঘাটনে আটককৃতদের রিমান্ডে নেয়া হবে।
প্রসঙ্গত, ২০০০ সালের ৫ জানুয়ারি বুধবার ভোরে নূর নাহার আকস্মিকভাবে নিখোঁজ হয়। পরিবারের লোকজন বিভিন্ন স্থানে খোঁজা খুঁজি করেও তার কোন সন্ধান পায়নি।
২০১৪ সালের ২৩ মার্চ রবিবার দুপুরে পারিবারিক কলহের সময় নূর নাহারকে হত্যা করে লাশ পুঁতে রাখার কথা স্বীকার করে ঘাতক শামছুন নাহার বেগম।
এঘটনার পরে শামছুন নাহার বেগমের ভাবি আছমা আক্তার ও সেলিনা আক্তার এ বিষয়ে থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে শামছুন নাহার বেগম ও তার শাশুড়ি মনোয়ারা বেগমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।
এ বিষয়ে নিহতের ছেলে নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে থানা একটি মামলা করেছে বলে ওসি জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ