• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন |

‘এরশাদ যুদ্ধাপরাধী’

Arsad-11ঢাকা: এরশাদকে ‘যুদ্ধাপরাধী’ আখ্যা দিয়ে তার সাজা হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছেন বিএনএফ’র সভাপতি এসএম আবুল কালাম আজাদ এমপি।
তিনি বলেছেন, ‘মুক্তিযোদ্ধাদের সাজা দেওয়ার জন্য পাকিস্তান যে ট্রাইব্যুনাল গঠন করেছিল সেই ট্রাইব্যুনালের একজন চেয়ারম্যান ছিলেন হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। তাই এরশাদও একজন যুদ্ধাপরাধী। তারও সাজা হওয়া উচিত’।
বৃহস্পতিবার বিকেলে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে বাংলাদেশ ন্যাশনালিস্ট ফ্রন্ট-বিএনএফ আয়োজিত স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ‘স্বাধীনতা যুদ্ধের ঘোষক জিয়া’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, স্বাধীনতার ইতিহাসে বঙ্গবন্ধুকে ছোট করে জিয়াকে বড় করলে ইতিহাস বিকৃতি হবে। আবার বঙ্গবন্ধুকে বড় স্থান দিয়ে জিয়াকে অস্বীকার করা যাবে না।
আবুল কালাম আজাদ বলেন, বাংলাদেশের স্বাধীনতার ইতিহাসে বঙ্গবন্ধু এবং জিয়া দুজনই বড় অবদান রেখেছেন। আমি বঙ্গবন্ধুকে যেমন স্বাধীনতার ঘোষক বলতে চাই তেমনি জিয়াউর রহমানকেও স্বাধীনতার ঘোষক বলতে চাই। এ দুজনকে বাদ দিয়ে ইতিহাস হতে পারে না। বঙ্গবন্ধুকে আগে স্থান দিতে হবে, এরপর জিয়া প্রাধান্য পাবে।
স্বাধীনতার ঘোষণা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু স্বাধীনতার ঘোষণা দিয়েছিলেন। কিন্তু সেই ঘোষণা আনুষ্ঠানিক ছিল না। কালুরঘাট বেতার কেন্দ্র থেকে স্বাধীনতার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়েছিলেন জিয়াউর রহমান। কিন্তু আওয়ামী লীগ এই ঘোষণাকে অস্বীকার করে। আর বিএনপি করে বিকৃতি।
এ সময় ৭ মার্চকে ‘জাতীয় দিবস’ হিসেবে ঘোষণার দাবি জানান আবুল কালাম আজাদ। একই সঙ্গে ‘জয় বাংলা’ কে জাতীয় স্লোগান করার দাবি জানান তিনি।
ঢাকা মহানগর বিএনএফ’র সভাপতি মাহজেবিন ওয়াহেদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সহ-আহ্বায়ক আঞ্জুমান সালাউদ্দিন, ঢাকা মহানগরের সদস্য সচিব এভোকেট এমএম ইসলাম, বিএনএফ নেতা মিজানুর রহমান মিজু ও প্রশান্ত বিশ্বাস প্রমুখ।
শীর্ষ নিউজ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ