• বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৪৬ পূর্বাহ্ন |

ধ্বংসাবশেষের কাছাকাছি পৌঁছে গেছেন অনুসন্ধানকারীরা!

bimanআন্তর্জাতিক ডেস্ক: মালয়েশিয়ার নিখোঁজ বিমানের সন্ধানে ‘নতুন বিশ্বাসযোগ্য অগ্রগতি’ হওয়ায় শুক্রবার অনুসন্ধানকারী দলকে ভারত মহাসাগরের নতুন একটি স্থানে স্থানান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ। খবর সিএনএন’র।

অস্ট্রেলিয়ান মেরিটাইম সেফটি অথরিটি (আমসা) জানিয়েছে, রাডারের তথ্য বিশ্লেষণ করে তদন্তকারীরা অনুসন্ধানের এলাকা ১১০০ কিলোমিটারের মধ্যে নামিয়ে এনেছেন।
সংস্থাটি নতুন তথ্যকে ‘সবচেয়ে বিশ্বাসযোগ্য অগ্রগতি’ মন্তব্য করে জানিয়েছে ‘এখানেই ধ্বংসাবশেষ থাকতে পারে’।
এক বিবৃতিতে সংস্থাটি জানায়, আগে যা অনুমান করা হয়েছিল তার চেয়ে দ্রুতগতিতে বিমানটি উড়ছিল। এরফলে বিমানটির জ্বালানী দ্রুত শেষ হয়ে আসছিল এবং ভারত মহাসাগরের দক্ষিণে এর যাত্রাপথের দূরত্বও কমে আসছিল।
বর্তমানে চারটি বিমান ওই এলাকায় তল্লাশি কাজে নিয়োজিত আছে। শুক্রবার এর সাথে আরো ৬টি বিমান যুক্ত হবে জানিয়েছেন আমসার জেনারেল ম্যানেজার জন ইয়াং।
জাপান ও থাইল্যান্ড মালয়েশিয়ার নিখোঁজ বিমানের সম্ভাব্য বেশ কিছু ধ্বংসাবশেষের স্যাটেলাইট ইমেজ সরবরাহ করার পরদিনই নতুন উদ্যমে অনুসন্ধান কাজ শুরু হলো।
বিশ্লেষকরা বলছেন, অনুসন্ধানের এলাকা স্থানান্তরিত করায় প্রতীয়মান হচ্ছে যে তদন্তকারীরা হয়তো নিখোঁজ বিমানের ধ্বংসাবশেষের কাছাকাছি পৌঁছে গেছেন।
গত ৮ মার্চ কুয়ালালামপুর থেকে বেইজিং যাওয়ার পথে ২৩৯ জন আরোহী নিয়ে নিখোঁজ হয় মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের এমএইচ৩৭০ বিমানটি।
উৎসঃ   আরটিএনএন


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ