• মঙ্গলবার, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন |

নতুন অর্থবছরে নতুন পে-স্কেল

Hasinaসিসি ডেস্ক: আগামী অর্থবছরেই সরকারি চাকরিজীবীদের নতুন পে-স্কেল ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
বুধবার জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে সেলিম উদ্দিনের এক প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী সংসদে এ তথ্য জানান।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘প্রজাতন্ত্রের সব শ্রেণীর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিনের নেতৃত্বে গঠিত ১৫ সদস্যের বেতন ও চাকরি কমিশন বিভিন্ন শ্রেণীর কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং পেশাজীবী সংগঠনের সঙ্গে দুটি সভায় তাদের মতামত সংগ্রহ করেছে। সংগৃহীত তথ্য উপাত্তের ভিত্তিতে পিতামাতাসহ অনূর্ধ্ব-৬ জনের একটি পরিবারের জীবন যাত্রার ব্যয় নির্বাহের বিষয়সহ অন্যান্য আনুষঙ্গিক বিষয় বিবেচনায় রেখে সরকারের কাছে সুপারিশ পেশ করবে।’
শেখ হাসিনা বলেন, ‘সরকারের আন্তরিকতা থাকলেও বিএনপি-জামায়াত শিবিরের ব্যাপক ধ্বংসাত্বক কর্মকাণ্ডের কারণে বেতন ও চাকরি কমিশন কাজ শুরু করতে বিলম্ব হয়। তবে কমিশনের সুপারিশ আগামী ৬ মাসের মধ্যে পাওয়া যেতে পারে।’
তিনি বলেন, ‘অন্তবর্তীকালীন ব্যবস্থা হিসেবে সরকার ২০১৩ সালের ১ জুলাই থেকে ২০ শতাংশ মহার্ঘভাতা চালু করা হয়েছে। এ ব্যবস্থায় সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সর্বনিম্ন ১৫০০ টাকা এবং সর্বোচ্চ ৬ হাজার টাকা বেশি পাচ্ছেন।’
তিনি আরো বলেন, ‘মহাজোট সরকার ক্ষমতায় আসার পর ২০০৯ সালে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন বৃদ্ধি করে। এসময় সর্বনিম্ন বেতনক্রম ২৪০০ টাকা থেকে ৪৩১০ টাকা এবং ৪১০০ টাকা থেকে ৭৭৪০ টাকা। সর্বোচ্চ ২৩ হাজার টাকা থেকে ৪০ হাজার করা হয়।’
নজরুল ইসলাম চৌধুরীর অপর এক প্রশ্নের জবাবে পরিসংখ্যান ব্যুরো পরিচালিত লেবার ফোর্স সার্ভে ২০১০ সালের প্রতিবেদন তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘১৫ বছরের ঊর্ধ্বে কর্মক্ষম জনগোষ্ঠী ৫ কোটি ৬৭ লাখ। এরমধ্যে ২৬ লাখ বেকার, যা শ্রমশক্তির ৪ দশমিক ৫৮ শতাংশ। কর্মক্ষম জনগোষ্ঠীর মধ্যে ১৫ বছর বয়স থেকে ২৪ বছর পর্যন্ত শ্রমশক্তির পরিমাণ ২ কোটি ৯ লাখ। বেকারত্বের এই হার বেশিরভাগ তরুণ প্রজন্মের মধ্যেই সীমাবদ্ধ। দেশে প্রতিবছর ৩ দশমিক ২ শতাংশ হারে শ্রমশক্তি বৃদ্ধি পায়।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ