• শনিবার, ১৬ অক্টোবর ২০২১, ১১:৪৪ পূর্বাহ্ন |

দিনাজপুরে ম্যাজিস্ট্রেটের উপর ফল বিক্রেতাদের হামলা

Hamla logoদিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুরে ফরমালিনযুক্ত বিষাক্ত ফল খেতে বাধ্য করছে ফল বিক্রেতারা। আর প্রশাসনের উদ্যোগে নির্বাহী ম্যাজেেিস্ট্রট’র নেতৃত্বে অভিযান চালাতে গেলে ফল বিক্রেতারা ম্যাজিস্ট্রেটের উপর হামলা চালিয়েছে এবং গাড়ীতে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করেছে। ফলে ম্যাজিস্ট্রেট দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করতে বাধ্য হয়েছেন। বুধবার শহরের বাহাদুর বাজারে এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনায় সাধারন মানুষের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। কারন এই বিষাক্ত ফলমুল খেয়ে হাজার হাজার মানুষ জটিল রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। অবৈধ বিষাক্ত ফলমুল বিক্রেতাদের এই ক্ষমতার শক্তি কোথায়? যদিও স্থানীয় ব্যবসায়ী ও দিনাজপুর শিল্প ও বনিক সমিতি বাহাদুর বাজারকে ফরমালিনমুক্ত বাজার হিসাবে ঘোষনা করেছিলেন। অবৈধ বিষাক্ত ফল বিক্রেতাদের ক্ষমতার উৎস কোথায়?
ফরমালিনযুক্ত ফল বিক্রির প্রতিবাদে সাবেক বাংলাদেশ প্রেস কমিশন সদস্য, দিনাজপুর সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি দৈনিক উত্তরা সম্পাদক অধ্যাপক মুহম্মদ মহসীন প্রতিকী প্রতিবাদ স্বরুপ গত মঙ্গলবার দিনাজপুর জেলা প্রশাসক আহমদ শামীম আল রাজীকে একঝুড়ি ফরমালিনযুক্ত কমলা উপহার দিয়ে সেগুলি খাবার অনুরোধ জানান। এ সময় তিনি জেলা প্রশাসককে বলেন, আমরা দিনাজপুরের সাধারণ মানুষ এই বিষাক্ত ফলগুলি খেতে বাধ্য হচ্ছি। এমতাবস্থায় জন প্রশাসনের প্রতিনিধি হিসেবে এই বিষাক্ত ফল আপনাদেরও খাওয়ার দাবী জানাচ্ছি।
এই প্রতিকী প্রতিবাদের কারনে গত বুধবার সকালে জেলা প্রশাসক আহমেদ শামীম আল রাজীর উদ্যোগে একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শহরের বাহাদুর বাজার ফলের বাজারে অভিযানে নামেন। কিন্তু শুরুর মুহুর্তেই ফরমালিনযুক্ত ফল ব্যবসায়ীরা সংঘবদ্ধ হয়ে ম্যাজিস্ট্রেটের উপর চড়াও হয়। তাদের কথা ফরমালিনযুক্ত ফলমুল সাধারন মানুষকে খেতে হবে। কোন বাধা দেয়া চলবে না। এ সময় ফল ব্যবসায়ীরা ম্যাজিস্ট্রেটের গাড়ীতে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। অবশেষে ফরমালিন প্রতিরোধ অভিযানের ইতি টেনে ম্যাজিস্ট্রেট ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।
এই ঘটনার পর এলাকার সাধারন মানুষের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। সাধারন মানুষের ভাষ্য তাহলে কি ফরমালিনযুক্ত ফল ব্যবসায়ীরা আইনের উর্ধ্বে? শিল্প ও বনিক সমিতিই বা নিরব কেন? দিনের পর দিন এই বিষাক্ত ফরমালিনযুক্ত ফল অবাধে বিক্রি হলেও বনিক সমিতি নিরব দর্শকের ভুমিকা পালন করছে! এই বিষাক্ত ফল বিক্রি প্রতিরোধ অভিযান না করার জন্য প্রশাসনের প্রতি অবৈধ ব্যবসায়ীরা প্রশাসনকে হুমকি দিয়েছে।
সচেতন মহলের দাবী ফরমালিনযুক্ত যে কোন খাদ্যদ্রব্য বিক্রি প্রতিরোধে সমাজের সকল স্তরের মানুষকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রশাসনকে সহযোগিতা করতে হবে। নইলে ভবিষ্যত প্রজন্ম পঙ্গুত্ববরন করবে। নানা জটিল রোগে আক্রান্ত হবে হাজার হাজার মানুষ। বিশেষ করে ফলমুল প্রতিটি পরিবারেই কমবেশী খাওয়া হয়। বিশেষ করে অতিথি আপ্যায়নে বা কোন অনুষ্ঠানে ফলমুল ব্যবহার করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ