• সোমবার, ২৫ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৫২ পূর্বাহ্ন |

মুক্তিযুদ্ধে নিহত পুলিশ সদস্যের পাশে পুলিশ

Birgongবীরগঞ্জ (দিনাজপুর) প্রতিনিধি: মুক্তিযুদ্ধে ১ম শহীদ পুলিশ সদস্য আমীর উদ্দিনের পরিবারকে নগদ অর্থ ও উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়েছে। শনিবার বীরগঞ্জ থানা অফিসার ইনচার্জের কার্যালয়ে দিনাজপুরের জেলা পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন ওই অর্থ প্রদান করেন।

রাজারবাগ পুলিশ লাইনে কর্মরত অবস্থায় ১৯৭১ইং সালে শহীদ হন বীরগঞ্জের পুলিশ সদস্য আমির উদ্দিন। বৃহস্পতিবার জেলা পুলিশ সুপার নিজ হাতে আমীর উদ্দিন স্ত্রী আবেদা খাতুন ও ছেলে আজিজার রহমানকে নগদ ১০ হাজার টাকা ও পরিবারের সদস্যদের বস্ত্র প্রদান করেন। উল্লেখ্য ওসি মোঃ আরমান হোসেন (পিপিএম) ২৬মার্চ মহান স্বাধীনতা দিবসে ওই পরিবারের দুর্দশার কথা শুনে উপরোক্ত অর্থ প্রদানের অঙ্গিকার করেছিলেন। পুলিশ সুপার মোঃ রুহুল আমিন এই পরিবারকে আরো একালীন টাকা প্রদানের অঙ্গিকার করেছেন। এ সময় ওসি আরমান হোসেন, সুশিল সমাজের নেতৃবৃন্দ ও সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন।
ইতিপূর্বে রাজারবাগ পুলিশ লাইনে স্মৃতি স্তম্ভের নামের তালিকার সুত্র ধরে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রনালয় আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে স্মারকনং-মুঃবি/ম/সা/দিনাজপুর/প্র-৩/২০০২/৩৪১৯ মোতাবেক নিহত মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী আবেদা খাতুন ও ছেলে আজিজার রহমানকে ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ স্বীকৃতি স্বরূপ ক্রেষ্ট ও  সনদপত্র তুলে দিয়েছেন।
মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী আবেদা খাতুন জানান, স্বাধীনতার ৪৩ বছরেও সরকারী কোন সাহায্য বা অনুদান পাইনি বরং তার স্বামীর রেখে যাওয়া অংশের সম্পদ ধানী জমি প্রভাবশালী মহল জোর পূর্বক দখল করে আছে। অর্থের অভাবে বিনা চিকিৎসায় শ্রবনশক্তি ও দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছি। ৭৬ বৎসর বয়সেও মুক্তিযোদ্ধা, বিধবা বা বয়স্ক ভাতা পাইনি। তিনি তার স্বামীর রেখে যাওয়া সম্পদ  উদ্ধারের দাবী জানান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ