• বৃহস্পতিবার, ২৮ অক্টোবর ২০২১, ০৮:১৩ পূর্বাহ্ন |

নীলফামারীতে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে চাষ হচ্ছে কুমড়া

Nilphamari Newsসিসি নিউজ: বাণিজ্যিক ভিত্তিতে কুমড়া চাষে ঝুঁকছেন নীলফামারীর কৃষকরা। আলুর ক্ষতি পুষিয়ে নিতে বাধ্য হয়ে কৃষকরা একই জমিতে কুমড়া আবাদ করে পুঁজি রক্ষায় সময় দিয়েছেন। দেশি জাতের এই কুমড়া বাজারে চাহিদা থাকায় কৃষকদের আবাদে উৎসাহ জুগিয়েছে।
কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর সুত্র জানায়, ২০১৪ মৌসুমে নীলফামারী জেলায় ৩৪০হেক্টর জমিতে কুমড়া আবাদ করেছেন কৃষকরা। যেখানে ২০১৩সালে ৩২৫হেক্টর, ২০১২সালে ২৮০হেক্টর এবং ২০১১মৌসুমে ২৭৩হেক্টর জমিতে কুমড়া চাষাবাদ করা হয়।
নীলফামারী সদর উপজেলার ইটাখোলা ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের আব্দুল মতিন, ৪চার বিঘা জমিতে আবাদ করেছেন কুমড়া। আলু চাষ করে কপাল পুড়লেও ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ওই জমিতে আবাদ করেন দেশি জাতের কুমড়া। চার বিঘায় ২০হাজার টাকা খরচ করে ৫০হাজার টাকা লাভ পেয়েছেন তিনি।
লাভের কথা জানান, কুমড়া চাষী নুর বানু। তিনি জানান, গত কয়েক বছর ধরে কুমড়া চাষ করছি। উৎপাদন ভাল, বাজারে চাহিদা থাকায় লোকসান হয়নি।
তবে চাষীরা অভিযোগ করেছেন, পানি সংকট বাধাগ্রস্থ করেছে কুমড়া চাষাবাদকে। তিস্তা ক্যানেলের পানি নিয়ে চাষাবাদ করে আসা হলেও এবার পানি না পাওয়ায় জমিতে পর্যাপ্ত পানি দিতে পারেন নি কৃষকরা। স্থানীয়রা জানান, এলাকার চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে রফতানি করা হচ্ছে গ্রামটির উৎপাদিত কুমড়া।
নীলফামারী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক এসএম সিরাজুল ইসলাম জানান, দেশি জাতের কুমড়া অত্যন্ত সুস্বাদু, বাজারে দাম ভাল থাকায় কৃষকরা কুমড়া চাষাবাদে ঝুঁকছেন। যার কারণে গত বছরের চেয়ে এবার আবাদ বেশি হয়েছে।
তিনি জানান, কৃষি অফিস সার্বিক ভাবে কুমড়া চাষে স্থানীয়দের প্রয়োজনীয় পরামর্শ এবং সেবা দেয়া হচ্ছে। আগামীতে আরও চাষাবাদ বাড়বে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ