• শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ১০:১১ অপরাহ্ন |

চিলমারীতে ব্রহ্মপুত্র নদের পাড়ে অষ্টমী স্নান সম্পন্ন

chilmari -1চিলমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: সনাতন ধর্মাবলম্বীদের ঐতিহ্যবাহী অষ্টমীর স্নান চিলমারী ব্রহ্মপুত্র নদের তীরে আজ সোমবার ভোর থেকে পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে দেশের বিভিন্ন এলাকা ও পার্শ্ববতী দেশ ভারত, ভূটান থেকে আগত হিন্দু সম্প্রদায়ের নারী-পুরুষ দীর্ঘ দিনের ঐতিহ্যবাহী স্নান উৎসবে অংশ নেন। ভোর থেকে স্নান শুরু হলেও এবারে লগ্নের সময় ছিল সকাল ৮টা ১৫ মিনিট ৫ সেকেন্ড থেকে সকাল ১০টা ৩ মিনিট পর্যন্ত। প্রায় লাধিক পুন্যার্থীও পদচারে মুখরিত হয়ে ওঠে চিলমারীর ব্রহ্মপুত্র পাড়ের প্রায় তিন কিঃমিঃ এলাকা। হে মহা ভাগ ব্রহ্মপুত্র, হে লৌহিত্য, তুমি আমার পাপ হরণ করো। মন্ত্র উচ্চারণ করে পূণ্যার্থীরা কৃপা চান ব্রহ্মার।
প্রতিবছর চৈত্রের অষ্টমী তিথিতে পাপ মোচনের আশায় পূণ্যার্থীরা ব্রহ্মপুত্র নদের ত্রি-সীমানায় স্নান উৎসবে অংশ নেয়।
উৎসব কমিটির নেতারা বলেন, প্রতি বছরের মত এবারও ভারত ও ভুটানসহ ও দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে পূণ্যার্থী যোগ দিয়েছেন স্নান উৎসবে। তারা আরো জানিয়েছেন, কোন নির্দিষ্ট ঘাট না থাকায় উমুক্ত স্নানঘাটের মাধ্যমে পূণ্যার্থীরা স্নানপর্ব সম্পন্ন করেছেন।
চিলমারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আহসান হাবিব জানান, পুন্যার্থীদের কল্যাণে সরকারী ও বে-সরকারী ভাবে নানা পদপে গ্রহণ করা হয়েছে।

ছুরিকাঘাতে পূন্যার্থী আহত
কুড়িগ্রামের চিলমারী ব্রহ্মপুত্র নদে স্নান উৎসবকে ঘিরে চাদাঁবাজি ও ছিনতাই। ছুরিকাঘাতে পূন্যার্থী গুরুতর আহত।
জানা গেছে, অষ্টমীর স্নান উপলে দেশের বিভিন্ন এলাকাসহ পার্শ্ববতী দেশ ভারত ও ভুটানের সনাতন ধর্মাবলম্বী পূণ্যার্থীগণ বিভিন্ন যানবাহনে শনিবার থেকে চিলমারীতে আসতে শুরু করে। এই সুযোগে কিছু বকাটে যুবক পুন্যার্থীদের যানবাহনের চালদের কাছ থেকে চাঁদা দাবিসহ বিভিন্ন ভাবে হয়রানী করে। অনেকে অভিযোগ করেন ওইসব বখাটে ছেলেরা তাদের মোবাইল ফোনসহ বিভিন্ন মূল্যবান জিনিসপত্র ছিনিয়ে নেয়। এদিকে সুন্দরগঞ্জ উপজেলার নিজামখাঁ গ্রামের অমল চন্দ্র বর্ম্মনসহ পরিবারের লোকজন রবিবার ৯টায় চিলমারী উচ্চ বিদ্যালয়ে রাত্রী যাপনের জন্য অবস্থান করেন। এ সময় অমল চন্দ্র বর্ম্মন প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বিদ্যালয়ের পার্শ্বে আসলে একদল ছিনতাইকারী তাকে ছুরিকাঘাত করে মোবাইল ও টাকা পয়সা ছিনিয়ে নেয়। পরে তাকে রক্তাত্ব অবস্থায় উদ্ধার করে চিলমারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার অবস্থার অবনতি ঘটলে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। তাৎনিক ভাবে খবর পেয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।
এ ব্যপারে চিলমারী থানার অফিসার ইনচার্জ রেজাউল করিম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ