• বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৪:০৭ পূর্বাহ্ন |

সুযোগের অপেক্ষায় ইসলামী দলগুলো

News Paperসিসি ডেস্ক: মাঠে তৎপরতা দেখা না গেলেও থেমে নেই ইসলামী দলগুলোর কার্যক্রম। সাংগঠনিক নিয়মিত কর্মসূচি পালন ও ঘরোয়া সভা-সমাবেশের মাধ্যমে নেতাকর্মীদের সংগঠিত করার কাজ চলছে পুরোদমে। এসব দলের মধ্যে নানা কারণে সৃষ্ট নিষ্ক্রিয়তা ও হতাশা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা চালাচ্ছেন শীর্ষ নেতারা। আপাতত কৌশলী অবস্থানে থাকলেও উপযুক্ত পরিবেশ ও ইস্যু পেলে মাঠে নামবে। রাজপথে নামার সুযোগের অপেক্ষায় রয়েছে ধর্মভিত্তিক দলগুলো। বিশেষ করে গত বছর ৫ মে অনুষ্ঠিত হেফাজতের ঢাকা অবরোধ ও মতিঝিল সমাবেশ স্মরণ উপলক্ষে রাজধানীতে কালেমা পতাকা মিছিলের মাধ্যমে ইসলামী দলগুলো আবারও তাদের অবস্থান জানান দিতে পারে বলে জানা গেছে। তবে এসব দল যাতে আগের মতো আর রাজপথে না নামতে পারে সে ব্যাপারে প্রশাসন সক্রিয় আছে বলে গোয়েন্দা সূত্র জানিয়েছে। মহাজোট সরকারের গত মেয়াদের বেশ কয়েক বছর বিভিন্ন ইস্যুতে রাজপথে সক্রিয় ছিল বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটভুক্ত চারটি ইসলামী দল ছাড়াও বেশ কয়েকটি ধর্মীয় দল ও সংগঠন। এর মধ্যে কয়েকটি কর্মসূচি পালন করে অল্প দিনের মাথায় আলোচিত হয়ে ওঠে হেফাজতে ইসলাম। আর সহিংস বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে বিতর্কিত হয়ে ওঠে জামায়াতে ইসলামী। মূলত বিএনপি জোটের বিভিন্ন কর্মসূচির পাশাপাশি ইসলামী দলগুলোর নিজস্ব তৎপরতায় রাজনৈতিক অঙ্গনে সৃষ্টি হয় উত্তপ্ত পরিবেশ। তবে গত বছরের শেষ দিক থেকে শুরু করে বর্তমান মহাজোট নতুন মেয়াদে ক্ষমতায় আসার পর এখন পর্যন্ত অনেকটা চুপচাপ রয়েছে আলোচিত ইসলামী দলগুলো। তবে রাজপথে আন্দোলন নিয়ন্ত্রণে সরকারের কঠোর অবস্থানের কারণে মূলত এসব দল কৌশলী অবস্থানে থাকলেও শিগগিরই তাদের মাঠে দেখা যাবে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।
বিভিন্ন ইস্যুতে এরই মধ্যে ঘরোয়া পরিবেশে সভা-সমাবেশ ও সংবাদ সম্মেলন করে বেশ সক্রিয় হয়ে উঠেছে খেলাফত আন্দোলন। ৬ এপ্রিল হেফাজতের লংমার্চ দিবস পালন করার পাশাপাশি ৫ মে হেফাজতের শহীদদের স্মরণে মতিঝিল শাপলা চত্বর থেকে কালেমা ও জাতীয় পতাকা মিছিল কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছে দলটি। কামরাঙ্গীরচর মাদরাসায় আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায় দলটির আমির মাওলানা শাহ আহমাদুল্লাহ আশরাফ এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। একটি পক্ষ থেকে ৫ মে কর্মসূচি ঘোষণা করা হলেও মূলত হেফাজত সংশ্লিষ্ট সব দলের নেতাকর্মীদের সমন্বয়ে ভিন্ন কোনো ব্যানারে তা পালন করা হতে পারে বলে সূত্র জানিয়েছে।
হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা আজিজুল হক ইসলামাবাদী বলেন, ১৩ দফা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত হেফাজতের আন্দোলন চলবে। এ দাবি জোরদার করতে বর্তমানে সারা দেশে শানে রেসালাত সম্মেলন কার্যক্রম শুরু হয়েছে। পর্যায়ক্রমে সব জেলায় এ সম্মেলন হবে।
বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের সিনিয়র নায়েবে আমির ও হেফাজতের ঢাকা মহানগর যুগ্ম আহ্বায়ক মাওলানা আবদুর রব ইউসুফী বলেন, ইসলামী দলগুলো মাঠে না থাকলেও বর্তমানে তারা রুটিন ওয়ার্ক চালাচ্ছে। অভ্যন্তরীণভাবে সংগঠন গোছানোয় ব্যস্ত প্রায় সব দল। উপযুক্ত পরিবেশ ও ইস্যু পেলেই এসব দল আবার মাঠে নামবে।
এদিকে দীর্ঘদিন রাজপথে অঘোষিতভাবে নিষিদ্ধ ও কোণঠাসা দল জামায়াতে ইসলামীও তাদের অভ্যন্তরীণ কর্মকা- চালাচ্ছে পুরোদমে। এরই মধ্যে কয়েক দফা দাওয়াতি সপ্তাহ পালনসহ গোপন সভা-সমাবেশের মাধ্যমে নেতাকর্মীদের চাঙ্গা করার কাজ অব্যাহত আছে বলে দলটির বিশ্বস্ত সূত্র জানিয়েছে। উপযুক্ত ইস্যু পেলে এই দলটিও যে কোনো সময় আবারও রাজপথে নামতে পারে বলে ওই সূত্র জানায়। এছাড়া চরমোনাই পীরের নেতৃত্বাধীন ইসলামী আন্দোলনসহ অন্য ইসলামী দলগুলো তাদের সাংগঠনিক কর্মকা- চালিয়ে যাচ্ছে বলে সংশ্লিষ্ট নেতারা জানিয়েছেন।

উৎসঃ   আলোকিত বাংলাদেশ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ