• রবিবার, ০৩ জুলাই ২০২২, ০৫:৩৮ পূর্বাহ্ন |

ঘটনাস্থল নীলফামারী: অপহরনের ১০ দিনেও উদ্ধার হয়নি সাবিনা

Opoনীলফামারী প্রতিনিধি: অপহরনের ১০ দিনেও উদ্ধার হয়নি নীলফামারী ছমির উদ্দীন স্কুল এন্ড কলেজের ৬ষ্ট শ্রেণীর ছাত্রী সাবিনা ইয়াছমিন। এতে করে ওই ছাত্রীর বিধবা মা ফুলবানু মেয়ের চিন্তায় এখন শয্যাশাহী হয়ে পড়েছেন।
মামলার সূত্র মতে, সদর উপজেলার নতুন বাজার এলাকার মৃত শওকত আলীর মেয়ে সাবিনা ইয়াসমিন (১২)। স্বামীর মৃত্যুর পর স্ত্রী ফুলবানু মানুষের বাড়ীতে ঝিয়ের কাজ করে অতিকষ্টে মেয়েকে লেখাপড়া করাছিল। সাবিনা লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলাধূলায়ও পারদর্শি ছিল। সে ২০১৩ সালে শেখ ফজিলাতুন নেছা গোল্ড কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে উপজেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ট খেলোয়াড় নির্বাচিত হন। এদিকে স্কুলে যাওয়ার আসার পথে সাবিনাকে প্রায় উত্যক্ত করত একই এলাকার বখাটে শাহেন শাহ্ , রাজা ও শাহ্ আলম। এ ব্যাপারে মেয়ের মা বখাটেদের অভিভাবকদের ঘটনাটি জানালেও কোন কাজ হয়নি। বরং তারা আরো ক্ষীপ্ত হয়ে উঠেন। এদিকে ১ এপ্রিল স্কুলে টিফিনের বিরতি দিলে সাবিনা টিফিন খাওয়ার জন্য বিদ্যালয়ের বাহিরে বের হন। এ সুযোগে পূর্বেই ওৎপেতে থাকা ওই বখাটে যুবকরা একটি মাইক্রোবাসে করে জোরপূর্বক সাবিনাকে তুলে নিয়ে যান। ঘটনাটি সাবিনার বিদ্যালয়ের কয়েকজন বান্ধবী দেখে তার বাড়ীতে খবর দেন।  এ ব্যাপারে সাবিনার মা ফুলবানু স্থানীয় থানায় মামলা করতে গেলে পুলিশ মামলা নিতে গড়িমশি করায় তিনি আদালতের শরণাপন্ন হন। নীলফামারী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে ৫ জনকে আসামী করে তিনি একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। পরে আদালত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য সদর থানাকে নিদ্দেশ প্রদান করেন।   ফুল বানু জানায় অপহরনের ১০ দিন অতিবাহিত হলেও এখনও পুলিশ তার মেয়েকে উদ্ধার করতে পারেনি। তিনি জানান মামলা করার পর থেকে নানা ভয়ভীতি ও জীবনাশের হুমকি দিয়ে দিচ্ছেন আসামী পক্ষের লোকজন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ