• শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ০১:০৬ পূর্বাহ্ন |

সেই কুখ্যাত আবু গারাইব কারাগার বন্ধ

abu-garib-jeilআন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরাকি সরকার মঙ্গলবার আবু গারাইব কারাগারটি বন্ধ ঘোষণা করেছে। নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বেগ দেখা দেওয়ায় এ সিদ্ধান্ত নিল দেশটির কর্তৃপক্ষ। ইরাকের বিচার মন্ত্রণালয়ের বিবৃতির উদ্ধৃতি দিয়ে এ খবর দিয়েছে দ্য নিউইয়র্ক টাইমস।

এতে বলা হয়, দেশটিতে সহিংসতা বেড়েই চলছে। চলতি বছর সহিংসতায় আড়াই হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। আবু গারাইব কারাগারটি পশ্চিম বাগদাদে অবস্থিত। এটি অন্যতম সহিংস ও অনিরাপদ এলাকা।

বিবৃতিটিতে জানানো হয়, দেশটির বিচার মন্ত্রণালয় বাগদাদের কেন্দ্রীয় কারাগার, অতীতে যা আবু গারাইব নামে পরিচিত, সেটি পুরোপুরি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

আবু গারাইব কারাগারে ২ হাজার ৪০০ কয়েদি ছিলেন। এই কয়েদিরা সন্ত্রাসমূলক অপরাধে আটক বা দণ্ডপ্রাপ্ত। ইরাকের অন্য কারাগারে তাদের সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। আবু গারাইব কারাগারটি স্থায়ী না সাময়িকভাবে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে, তা স্পষ্ট নয়।

ইরাকের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট সাদ্দাম হোসেনের শাসনামল থেকেই কারাগারটি নির্যাতন কেন্দ্র হিসেবে কুখ্যাতি অর্জন করে। ২০০৩ সালে ইঙ্গ-মার্কিন বাহিনী ইরাকে আগ্রাসন চালায়। এর পরও আবু গারাইব কারাগারের দুর্নাম ঘোচেনি। মার্কিন সেনারাও কারাগারটিকে বন্দি নির্যাতন কেন্দ্রে পরিণত করে। লোমহর্ষক নির্যাতনের সেসব চিত্র ফাঁস হলে বিশ্বব্যাপী সমালোচনার ঝড় ওঠে।

আহমেদ নামে একজন স্থানীয় মুদি দোকানদার মঙ্গলবার এক সাক্ষাৎকারে বলেন, ‘আমরা শুনেছি আবু গারাইব কারাগারটি বন্ধ করা হয়েছে। তবে কোথায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে তা আমরা জানি না। তারা অন্য জায়গায় কারাগারটি স্থানান্তর করে এ এলাকায় সুরক্ষা নিশ্চিত করা হবে।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ