• বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ০১:০৬ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
ইউনূস, হিলারি ও চেরি ব্লেয়ারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার দাবি সংসদে মার্কেট-শপিং মলে মাস্ক বাধ্যতামূলক করে প্রজ্ঞাপন খানসামায় র‌্যাবের অভিযান ইয়াবাসহ দুই মাদককারবারী গ্রেপ্তার ডোমার ও ডিমলায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ ১০ উদ্যোগ নিয়ে কর্মশালা নীলফামারীতে ৫ সহযোগীসহ কুখ্যাত চোর ফজল গ্রেপ্তার সৈয়দপুরে তথ্যসংগ্রহকারী ও সুপারভাইজারদের দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত জয়পুরহাট বিনা খরচে আইনের সেবা পেতে সেমিনার শিক্ষক লাঞ্চনা ও হেনস্তার বিরুদ্ধে সৈয়দপুরে উদীচী শিল্পী গোষ্ঠীর প্রতিবাদ সমাবেশ সৈয়দপুরে শহীদ আমিনুল হকের স্মরণসভা অনুষ্ঠিত ফুলবাড়ীতে বিনামূ‌ল্যে বীজ ও সার বিতরণ

খানসামায় গৃহবধুর হাত ভেঙ্গে দিলো আ’লীগ নেতা

A12345সিসি নিউজ: দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ২৫ দিন ধরে ভাঙ্গা হাতের তীব্র যন্ত্রণায় ছটফট করছে গৃহবধু ফাহিমা আক্তার ফেন্সি (২৭)। যৌতুকলোভী স্বামী-ভাসুরদের বেদম প্রহারে ওই বধুর ডান হাতের হাড় ভেঙ্গে গেছে। তবে এক ভাসুর আ’লীগের নেতা হওয়া ফেন্সির দায়ের করা মামলায় পুলিশ তাদেরকে গ্রেফতার করছে না বলে অভিযোগ উঠেছে।

থানায় দায়ের করা মামলা সূত্রমতে, দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার আঙ্গারপাড়া ইউনিয়নের ছাতিয়ানগড় গ্রামের মশিয়ারপাড়ার মৃত মশিয়ার রহমানের পুত্র মানিকের সাথে ২০০৪ সালে মে মাসে বিয়ে হয় একই গ্রামের মাষ্টারপাড়ার ফজলে রহমানের কন্যা ফাহিমা আক্তার ফেন্সীর। দীর্ঘ দাম্পত্য জীবনে তাদের ঘরে রয়েছে একটি ছেলে ও একটি মেয়ে। ব্রাক কর্তৃক পরিচালিত শিশু স্কুলের শিক্ষকতা করেন ফেন্সী। সুখেই কাটছিল তাদের সংসার। কিন্তু মানিকের বড় ভাই মাজেদুল, মফিদুল এবং মোখলেছুর ও তার স্ত্রী লাইলীর পরামর্শে মানিক যৌতুকের জন্য শ্বশুড় পরিবারের উপর চাপ সৃষ্টি করে।  এতে তাদের সাথে ফেন্সীর মনোমালিণ্যের সৃষ্টি হয়। একই ঘটনার জের ধরে গত ২২ মার্চ মানিক ও তার ভাই-ভাবীর সাথে ফেন্সীর বাকবিতন্ডার সৃষ্টি হয়। এমন সময় মানিকের বড় ভাই, খানসামা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোকলেছুর রহমান লাঠি দিয়ে ফেন্সীর ডান হাত ভেঙ্গে দেয়। তার আত্মচিৎকারে ছুটে আসে গ্রামবাসী। তারা দ্রুত পাকেরহাট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। কিন্তু চিকিৎসক পরবর্তীতে  রোগীর উন্নত চিকিৎসার জন্য দিমেক হাসপাতালে স্থানান্তর করে।

এ ঘটনায় স্বামীসহ ৫জনকে আসামী করে খানসামা থানায় একটি মামলা হয়েছে। কিন্তু এ পর্যন্ত কোন আসামীকে আটক করতে পারেনি পুলিশ। মঙ্গলবার ফেন্সীর হাতে অপারেশন করা হয়। অপারেশনের আগে কথা হয় ফেন্সীর সাথে। তিনি জানান, আমার ভাসুর আ’লীগের নেতা হওয়ায় পুলিশ আসামীদের আটক করছে না।

এ প্রসঙ্গে খানসামা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃঞ্চ সরকার জানান, মামলায় বাদীনির অভিযোগের সত্যতা রয়েছে। তবে আসামীরা পলাতক থাকায় গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছে না। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আসামী যে কোন রাজনৈতিক দলের সদস্য হোকনা কেন তাদেরকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবেই।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ