• বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৪:৩৪ পূর্বাহ্ন |

বিরলে শ্বশুড়-শাশুড়ীর হাতে পুত্রবধু গুরুতর আহত

nirjaton-4দিনাজপুর প্রতিনিধি: বিরলের পল্লীতে প্রবাসীর স্ত্রী ও পুত্রকে পাষন্ড শশুড়-শাশুড়ী পিটিয়ে বাড়ী থেকে বের করে দিয়েছে। গুরুতর আহত মা-ছেলেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। শারীরিক ও মানষিকভাবে নির্যাতনের শিকার ওই গৃহবধূ ঘটনার সাথে জড়িত শ্বশুড়-শ্বাশুড়ীর সুষ্ঠু বিচার দাবী করেছে।
বিরল উপজেলার ধর্মপুর ইউপি’র বনগাঁও গ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে শফিকুল ইসলামের সাথে রাণীপুর গ্রামের এন্তাজ আলীর কন্যা খালেদা বেগম’র ১৪ বছর পূর্বে বিয়ে হয়। পরবর্তীতে তাদের দু’টি পুত্র সন্তান জন্ম নেয়। গত ৫ বছর পূর্বে পরিবারের সকলের সম্মতিতে শফিকুল চাকুরীর জন্য মালয়েশিয়ায় গমন করে। খালেদার স্বামী বিদেশ যাওয়ার পর থেকে পাষন্ড শশুড়-শাশুড়ী কারণে অকারণে পুত্রবধূকে মানষিক ও শারীরিকভাবে নির্যাতন করে আসছে।
গত ২৬ মার্চ বুধবার সন্ধ্যায় ওই গৃহবধূকে শশুড়-শাশুড়ী, দেবর-ননদ পূর্বের ন্যায় অহেতুক তর্ক-বিতর্ক ও অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করে। অসহায় গৃহবধূ এর প্রতিবাদ করায় শশুড়-শাশুড়ী ও দেবর-ননদ মারপিট করলে সে অজ্ঞান হয়ে পড়ে। প্রতিবেশীরা গৃহবধূর পিতাকে সংবাদ দিলে। তার পিতা রিক্সা ভ্যান পাঠিয়ে মেয়েকে অজ্ঞান অবস্থায় নিয়ে এসে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।
এ ঘটনায় গৃহবধূর পিতা বাদী হয়ে বিরল থানায় মামলা দায়ের করে। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ঘটনার তদন্তকালে গৃহবধূ সূস্থ্য হয়ে বাড়ীতে ফিরে গিয়ে দেখে তার ঘর তালাবদ্ধ করে রাখা হয়েছে। বিষয়টি মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা জানতে পেরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও ইউপি সদস্যের সহযোগিতায় তালা ভেঙ্গে নতুন তালা দিয়ে গৃহবধূকে চাবি হস্তান্তর করে। গত বৃহস্পতিবার সকালে ওই গৃহবধূ স্বামীর বাড়ীতে সন্তানসহ পৌছলে মুহুর্তের মধ্যে শশুড়-শাশুড়ী ও দেবর-ননদ ছুটে এসে আবারো পুত্র সন্তানসহ গৃহবধূকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। গুরুতর আহত প্রবাসীর তার সন্তানসহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। বর্তমানে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ