• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ০৪:৪৫ পূর্বাহ্ন |

ডোমারে শিক্ষকদের অপসারনের দাবীতে বিদ্যালয়ে তালা

19.04.14 picture-1 primari school sohid sreetiডোমার (নীলফামারী) প্রতিনিধি: নীলফামারীর ডোমার শহীদ স্মৃতি মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে আজ শনিবার সকাল সাড়ে আটটায় সভাপতিকে অনৈতিক ও অসমাজিক কাজে সহযোগিতা করার অভিযোগে শিক্ষকদের অপসারনের দাবীতে তালা দিয়েছে অভিভাবকরা। এক ঘন্টা পর পুলিশ এসে পরিস্থিতি  নিয়ন্ত্রনে আনলে প্রধান শিক্ষক তালা খুলে ফেলেন। এ ঘটনায় অভিভাবক ও কোমলমতি শিশুদের মধ্যে আতংক বিরাজ করছে ।
জানা গেছে, গত বৃহস্পতিবার বিদ্যালয় চলাকালিন বিদ্যালয়ের সভাপতি ও জাপা পৌর সভাপতি আসাদুজ্জামান চয়ন ও সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয়ের সহকারী  শিক্ষিকা শিলা রানী দাসকে অনৈতিক ও অসামাজিক অবস্থায় হাতে-নাতে ধরে ফেলে, অভিযোগ অভিভাবকদের ও সভাপতির স্ত্রী হুমায়রা আকতার রিয়ার ।
অভিভাব ওয়াহিদ আলম, রহেল মাহমুদ জানান, আমরা এই স্কুলের সকল শিক্ষকের অপসারন চাই,তারা সভাপতি চয়নের অনৈতিক ও অসামাজিক কার্যকলাপের সহযোগিতা করছে। কোমলমতি শিশুদের মধ্যে এটার খারাপ প্রভাব পড়ছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এনামূল হক চৌধুরী  ঘটনার সত্যতা  স্বীকার করে বলেন, বিশৃংখলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। মামলার প্রস্তুতি চলছে ।
অপরদিকে  শহীদ স্মৃতি সরকারী প্রাথমিক দ্যিালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতির স্ত্রীর বিরুদ্ধে লাঞ্চিত ও হুমকী প্রদানের অভিযোগ করেছেন ওই বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষিকা শীলা রাণী দাস। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬টা ২০  মিনিটে এমন অভিযোগ করে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেন।
থানায় জিডির সূত্রমতে, বিদ্যালয়ে কর্মরত অবস্থায় বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও জাপা ডোমার পৌর শাখার সাঃ সম্পাদক আসাদুজ্জামান চয়নের স্ত্রী হুমায়রা আক্তার রিয়া অর্তকিতভাবে তাঁকে আক্রমন করে লাঞ্চিত এবং বিভিন্ন হুমকী প্রদান করেন। এসময় বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সভাপতি আসাদুজ্জামান চয়ন উপস্থিত ছিলেন সেখানে। সভাপতি সে সেময়ে বিদ্যালয়ে এসে শিক্ষার্থীদের লেখাপড়ার ব্যাপারে খোঁজখবর নিচ্ছিলেন বলে উল্লেক করা হয় ওই জিডিতে।19.04.14 picture-2 primari school sohid sreeti
ওই শিক্ষিকার অভিযোগ অস্বীকার করে সভাপতির স্ত্রী হুমায়রা আক্তার রিয়া বলেন,‘ ওই মেয়ের কারণে চার বছর ধরে আমার সংসারে অশান্তি বিরাজ করছে। ঘটনার দিন তাদের দুজনের আপত্তিকর অবস্থা দেখে ফেলায় আমার স্বামী  আমাকে ধরে রাখে এবং ওই মেয়ে আমাকে শারিরীক ভাবে লাঞ্চিত করে। এরপর বিদ্যালয়ের একটি কক্ষে আমাকে আটক করে রাখে। খবর পেয়ে স্বজনরা এসে আমাকে সেখান থেকে উদ্ধার করে।’ ডোমার থানার এসআই শাহিনুর জানান,পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে, যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিকট অভিযোগ দিতে বলেছি ।
উল্লেখ্য যে, গত বৃহস্পতিবার দুপুরে ডোমার শহরের উপকন্ঠে অবস্থিত শহীদ স্মৃতি মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও জাতীয় পার্টি ডোমার পৌরসভার সাধারন সম্পাদক  দু-সন্তানের জনক আসাদুজ্জামান চয়ন স্কুল চলাকালীন সময়ে পরকীয়া প্রেমের জের ধরে বিদ্যালয়ে প্রাক-প্রাথমিকের সহকারী শিকিা শিলা রানী রায়কে নিয়ে একটি আলাদা রুমে অনৈতিক কাজে লিপ্ত অবস্থায় সভাপতির স্ত্রী রিয়া জামান ও এলাকাবাসী হাতেনাতে আটক করে। এ সময় রিয়া জামান ও শিকিা শিলা রানী রায় হাতাহাতি ও চুলোচুলিতে জড়িয়ে পরে। বিদ্যালয়টি শহরের উপকন্ঠে হওয়ায় মুহুর্তেই সেখানেই হাজার হাজার উৎসুক জনতা ভীড় জমায়। এ সময় সভাপতি ও শিকিা জনতার রোষানলে পরে। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে প্রধান শিক বিদ্যালয় ছুটি ঘোষনা করে। পরিস্থিতি সামাল দিতে না পেরে প্রধান শিক এনামুল হক মানিক ডোমার থানায় লিখিত অভিযোগ করেন। পুলিশ আসার পূর্বেই সভাপতি জনরোষ থেকে বাঁচতে কৌশলে পালিয়ে যায়। পরে সভাপতি স্কুলে আসলেও নানা নাটকীয়তা শেষে পুলিশ শিকিাকে আটকের কথা বলে থানায় নিয়ে পড়ে ছেড়ে দেয়।
এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে। বিষয়টি অবিভাবকদের মধ্যে ক্ষোভের সঞ্চার করেছে এবং টক অব দ্য টাউনে পরিনত হয়েছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ