• বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২, ০৪:২৯ পূর্বাহ্ন |

পরীক্ষার হলে ছাত্রীর শ্লীলতাহানি

Uniসিসি ডেস্ক: কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) বাংলা বিভাগের পরীক্ষার হলে প্রবেশ করে এক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি করেছে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আজীবনের জন্য বহিষ্কৃত হওয়া একই বিভাগের ছাত্র নুরুল আমীন সবুজ। ঘটনার পর পরীক্ষা স্থগিত করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্র জানায়, শনিবার বাংলা বিভাগের চতুর্থ বর্ষ প্রথম সেমিস্টারের চূড়ান্ত পরীক্ষা শুরুর বিশ মিনিট পূর্বে পরীক্ষার হলে প্রবেশ করে সবুজ। সে পরীক্ষার হলে কিছু সময় অপেক্ষা করে। কিছুক্ষণ পর ওই ছাত্রী এলে তাকে জড়িয়ে ধরে শ্লীলতাহানী করে। এ ঘটনায় সবুজ ওই ছাত্রীর মুখমন্ডলের বিভিন্ন স্থান জখম করে।

এতে প্রচুর রক্তপাত হয়। এ সময় অন্যরা কিছু বুঝে ওঠার আগেই সবুজ পরীক্ষার হল ত্যাগ করে। আহত ছাত্রীকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ প্রক্টরিয়াল বডির সহায়তায় সবুজকে খুঁজতে ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত হলে তল্লাশি চালায়। তবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও পুলিশ আসার আগেই সে ক্যাম্পাস ছেড়ে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে বাংলা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত বিভাগীয় প্রধান মোহাম্মদ শামসুজ্জামান মিলকী শীর্ষ নিউজকে এ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ঘটনার পর পরই পুলিশের সহায়তা অভিযুক্ত নুরুল আমীন সবুজকে ক্যাম্পাসের ছাত্র হলসহ সম্ভাব্য সকল স্থানে অভিযান চালিয়ে গ্রেফতারের চেষ্টা করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, সবুজ বার বার ওই ছাত্রীকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে প্রত্যাখ্যাত হয়ে ২০১১ সালে বিভাগের দ্বিতীয় সেমিস্টার পরীক্ষা চলাকালে সবুজ লাভলীর শ্লীলতাহানীর চেষ্টা চালায় এবং ছুরিকাঘাত করে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তদন্তের পর তাকে আজীবনের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করে। এ বহিষ্কারাদেশের ওপর সবুজ হাইকোর্টে রিট করে। হাইকোর্টে রিট চলমান অবস্থায় সবুজ শনিবার ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে আবার এই ঘটনা ঘটায়।

শীর্ষ নিউজ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ