• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ০৪:২৭ পূর্বাহ্ন |

দিনাজপুরে মামার বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ ভাগিনার

Mahbubদিনাজপুর প্রতিনিধি: দিনাজপুরে নিজের মামার বিরুদ্ধে জমিদখল, মামলা-হামলা, হয়রানী, অত্যাচার-নিপিড়নের অভিযোগ এনে সংবাদ সম্মেলন করেছেন শহরের উত্তর বালুবাড়ী এলাকার মৃত আব্দুল কাইয়ুম’র ছেলে মোঃ আজাদ। রোববার দুপুর ১২টায় দিনাজপুর প্রেসকাবে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে তিনি এ অভিযোগ করেন।
লিখিত বক্তব্যে মোঃ আজাদ বলেন, দিনাজপুর জেলার কোতয়ালী থানার বালুবাড়ি মৌজার জেএল নং -৯৪, এসএ- ২৬৪ ও ৩৪৪ নং দাগের ৫৯ (উনষাঠ) শতক জমির মালিক ছিলেন আমার নানা আব্দুল হালিম। তিনি জীবিত থাকাকালীন তার বড় মেয়ে আমার মাকে (মেহেরুন নেছা) বিয়ে দিয়ে নিজের কাছেই রাখেন। স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় আমার নানা নিহত হন এবং আমার দুই মামা বাড়ি ঘর ছেড়ে জীবন রার্থে অন্যত্র আশ্রয় নেন। আমার মা তার মৃত পিতার উপরোল্লেখিত সম্পত্তি রার্থে তার জীবন বাজি রেখে উক্ত বাড়িতেই থেকে যান। আমার ছোট মামা অভিযুক্ত মোঃ আরশাদ হালিম পরবর্তিতে পাকিস্তানে চলে যান এবং ১৯৮২ সালে দেশে ফিরে এসে শহরের পুলহাট মহল্লার জনৈক মুসার মেয়েকে বিয়ে করেন। বিয়ের কয়েক বছরের মধ্যেই আমার ছোট মামা আরশাদ হালিম আমার নানার ওই ঊনষাট শতক সম্পত্তি গ্রাস করার ষড়যন্ত্র শুরু করেন। এর অংশ হিসেবে তিনি বিভিন্নভাবে আমার মাসহ পরিবারের উপর অমানবিক অত্যাচার করেন এবং মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাদেরকে কোনঠাষা করে ফেলেন যাতে আমরা নানার উল্লেখিত সম্পত্তি হতে বিতারিত হয়ে যাই। আমরা তার সেই অন্যায়ের প্রতিবাদ করাতে তিনি আমার মা ও আমাদের দুই ভাইকে মিথ্যা মামলায় জড়ালে আমি দুই মাস হাজত বাস করি। পরবর্তিতে মামলাটি মিথ্যা বলে প্রমানিত হয় এবং জামিনে মুক্ত হই। এর পর তিনি বিভিন্ন সময় অনেকগুলো মিথ্যা মামলৃা করেন যেগুলি এখনো বিচারাধীন।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, আমার মামা আরশাদ হালিম একজন লোভি, মামলাবাজ, জালিয়াত ও চোতুর ব্যক্তি। এমন কোন বেআইনি কাজ নেই যা তিনি করতে পারেন না। তিনি আমাকে ও আমার পরিবারকে আমাদের বাড়ি-ঘর হতে বিতারিত করার জন্য তার ছেলে এবং মেয়ে দ্বারা মামলা দিয়েছেন। তার শ্যালক নুরুজ্জামান নান্নুর পুত্র রাজ ও ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের দিয়ে আমার পরিবারের উপর সর্বদা অমানবিক অত্যাচার ও নির্যাতন করে চলেছেন।
সর্বশেষ গত ০৩.০৪.২০১৪ তারিখ বিকেল ৩টার দিকে তার ৩ ছেলে ও স্বশুড়বাড়ির ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসী রাজ ও তার সঙ্গীদের দিয়ে আমার ও আমার ভাইয়ের উপর হামলা করে। এতে আমার ভাইয়ের মাথা ফেটে যায়। পরে আমার ভাই হাসপাতালে চিকিৎসা নেয়ার পর আমি বাদি হয়ে কোতয়ালী থানায়া মামলা করি। এর পেক্ষিতে আমার মামা তার মেয়েকে দিয়ে কাউন্টার মামলা করান।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে পৌরসভায় শালিশ মিমাংসা ডাকা হলে তিনি উপস্থিত হননি। বরং তিনি এখনো আমার পরিবারকে এই বলে হুমকি প্রদান করছেন যে, মামলা দিয়ে আমাকে ও আমার পরিবারকে খালিহাতে বিতাড়িত করবেন। আমি কোতয়ালী থানায় এ বিষয়ে কয়েকটি জিডি করেছি কিন্তু কোন লাভ হয়নি। ফলে বর্তমানে আমি ও আমার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছি।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি উপরোল্লেখিত বিষযটি সরেজমিন তদন্তপূর্বক সংশ্লিষ্ট অভিযুক্ত মোঃ আরশাদ হালিম ও তার সন্ত্রাসীবাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপরে হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ