• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১:১২ পূর্বাহ্ন |

খোলা জায়গায় পড়ে আছে ১০ম সংসদ নির্বাচনের ফলাফল

EC 10ঢাকা: দশম সংসদ নির্বাচনের কেন্দ্রভিত্তিক ফলাফল ফেলে রাখা হয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ের দ্বিতীয় তলার খোলা জায়গায়। আইন অনুযায়ী, সংসদ নির্বাচনের কেন্দ্রভিত্তিক ফলাফল সঠিকভাবে সংরক্ষণেরও কথা থাকলেও এ বিষয়ে উদাসিন খোদ নির্বাচন কমিশন।
খোজ নিয়ে জানা গেছে, নির্বাচন কমিশন (ইসি) সচিবালয়ের দ্বিতীয় তলায় প্রবেশ মুখের বারান্দায় প্রবেশের মুখে স্তূপ আকারে রাখা হয়েছে দশম সংসদ নির্বাচনের কেন্দ্রভিত্তিক ফলাফল। বিশাল স্তূপে ফলাফল শিটগুলো অযত্নে ময়লা পড়ে নষ্ট হওয়ার উপক্রম হয়েছে।
গত ৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত পঞ্চগড়-১ ও ২, ঠাকুরগাঁও-১ ও ৩, দিনাজপুর-১, ৩, ৪, ৫ ও ৬, নীলফামারী-১ ও ৩, লালমনিরহাট-১ ও ৩, জামালপুর-১, ২, ৪ ও ৫, শেরপুর-১, ২ ও ৩, ময়মনসিংহ-৩, ৬, ৭, ১০ ও ১১, নেত্রকোনা-১, ২ ও ৩, কিশোরগঞ্জ-৩, মানিকগঞ্জ-১, মুন্সীগঞ্জ-১ ও ২, ঢাকা-১, ৪, ৫, ৬, ৭, ১৫, ১৬, ১৭ ও ১৮, গাজীপুর-৪, নরসিংদী-১, ২ ও ৩, নারায়ণগঞ্জ-১, ফরিদপুর-৪, গোপালগঞ্জ-১, ২ ও ৩, সুনামগঞ্জ-১, ৩ ও ৫, সিলেট-২ ও ৪, মৌলভীবাজার-১ ও ২, হবিগঞ্জ-২, ৩ ও ৪, ব্রাহ্মণবাড়িয়া-১, ২, ৩ ও ৫, কুমিল্লা-১, ৩, ৪, ৫, ৬, ৮ ও ৯, ফেনী-৩, নোয়াখালী-৬, লক্ষ্মীপুর-১ ও ৪, চট্টগ্রাম-২, ৩সহ বিভিন্ন সংসদীয় আসনের কেন্দ্রভিত্তিক ফলাফলের স্তূপ রয়েছে। আর এ ফলাফলের শিটে ময়লার স্তূপ পরে থাকতে দেখা গেছে। কিন্তু ইসি থেকে সংরক্ষণের কোন উদ্যোগ গ্রহণ করেনি। অথচ প্রতিটি উপজেলার রিটার্নিং কর্মকর্তা কেন্দ্রভিত্তিক ফলাফল ঘোষণার পর তার অনুলিপি নির্বাচন কমিশনে পাঠিয়ে দিয়েছেন। এসব সংসদীয় আসনের কেন্দ্রভিত্তিক ফলাফল নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের দ্বিতীয় তলার বারান্দায় অযত্নে ফেলে রাখা হয়েছে। এসব কেন্দ্রভিত্তিক ফলাফলের শিটের ওপর জমেছে ধুলোর স্তর। আইন অনুযায়ী, ফলাফলগুলো যত্নসহকারে সংরক্ষণ করার কথা থাকলেও উন্মুক্তভাবে ফেলে রাখা হয়েছে। এতে প্রমাণিত হয় দশম সংসদ নির্বাচনকে গুরুত্ব দিচ্ছেনা নির্বাচন কমিশন বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছে।
এ বিষয়ে ইসির এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করে বলেন, ৩০০টি সংসদীয় আসনের মধ্যে ১৫৩ টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী না থাকায় এ আসনগুলোর প্রার্থীরা (বর্তমান সংসদ সদস্যরা) বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। আর গত ৫ জানুয়ারি ১৪৭ টি আসনে বিএনপিসহ বেশ কিছু দলের ভোট বর্জন এবং ব্যাপক সহিংসতার মধ্যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। আর এ নির্বাচন নিয়ে ইসির যে গাফিলাতি ছিল, তা ফলাফল উন্মুক্তভাবে ফেলে রাখার মাধ্যমে তা প্রমাণিত হয়েছে।
তিনি বলেন, এভাবে ফলাফল ফেলে রাখা দায়িত্বহীন কাজ। দ্রুত ফলাফলগুলো সংরক্ষণ করা উচিত। এ বিষয়ে সাবেক নির্বাচন কমিশানার ব্রি. জে. (অব.) এম সাখাওয়াত হোসেন বলেন, নির্বাচনী আইন অনুযায়ী, সংসদ ও স্থানীয় সরকারসহ সব নির্বাচনের ফলাফল সংরক্ষণে বাধ্য নির্বাচন কমিশন। নির্বাচনী ফলাফল নিয়ে কোন আইনী জটিলতা দেখা দিলে ফলাফলের প্রয়োজন হবে। তাই নির্বাচন কমিশনের স্বার্থে ওই ফলাফল সংরক্ষন করা উচিত। অথচ নির্বাচন কমিশন ফলাফল যেভাবে অযন্তে ফেলে রেখেছে তা ফেলে রাখা সমীচীন নয়।
এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার (ইসি) মো. শাহনেওয়াজ বলেন, ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) সংরক্ষণসহ বিভিন্ন কারনে নির্বাচন কমিশনে জায়গা সংকট রয়েছে। আর এ কারনে ফলাফল বারান্দায় রাখা হয়েছে। খুব দ্রুত সংসদ নির্বাচনের ফলাফলগুলো সংরক্ষণ করা হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ