• বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১০:২৪ অপরাহ্ন |
শিরোনাম :
শিক্ষককে পিটিয়ে হত্যা: প্রধান আসামি জিতু গ্রেপ্তার সৈয়দপুরে কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় বিজিবি সদস্যকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ শ্রেণিকক্ষে রাবি শিক্ষিকাকে মারতে গেলেন ছাত্র! অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযােগ এনজিও’র দুই কর্মকর্তা গ্রেফতার জলঢাকায় মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার রোধকল্পে সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা প্রণয়নে কর্মশালা ইউনূস, হিলারি ও চেরি ব্লেয়ারের ওপর নিষেধাজ্ঞা দেওয়ার দাবি সংসদে মার্কেট-শপিং মলে মাস্ক বাধ্যতামূলক করে প্রজ্ঞাপন খানসামায় র‌্যাবের অভিযান ইয়াবাসহ দুই মাদককারবারী গ্রেপ্তার ডোমার ও ডিমলায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ ১০ উদ্যোগ নিয়ে কর্মশালা নীলফামারীতে ৫ সহযোগীসহ কুখ্যাত চোর ফজল গ্রেপ্তার

পানি বৃদ্ধি লং মার্চের প্রাথমিক সফলতা: ফখরুল

1398172692.সিসি নিউজ: লংমার্চ কর্মসূচি সফল হয়েছে মন্তব্য করে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বিশ্বাসযোগ্য সূত্রে জানতে পারলাম লংমার্চের কারণে ভারত তিস্তায় কিছুটা পানি ছেড়েছে। এটা লংমার্চের প্রাথমিক সাফল্য। আমরা সাময়িক নয়, পুরোপুরি সফলতা চাই। বুধবার সকাল ১০টায় রংপুর পাবলিক লাইব্রেরী মাঠে এবং মঙ্গলবার বিকেলে গাইবান্ধা গোবিন্দগঞ্জ লংমার্চের পথ সভায় তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, এই সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত সরকার নয়। যার জন্য তারা তিস্তাসহ অভিন্ন সব নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা আনতে পারবে না। তাই অবিলম্বে নির্দলীয় সরকারের অধীনে সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। সে সরকার আমাদের পানির অধিকার ফিরিয়ে আনতে পারবে।

পুলিশ প্রশাসনের উদ্দেশ্য ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, এই সরকার চিরদিন ক্ষমতায় থাকবে না। বিএনপি অতীতেও ক্ষমতায় ছিলো ভবিষ্যতেও ক্ষমতায় আসবে। তাই আওয়ামী লীগের নেতাদের কথায় বিরোধী দলের ওপর নির্যাতন করবেন না। সব কিছুর জবাব সময় মতো দেওয়া হবে।

ফখরুল বলেন, নির্বাচন দিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করুন। জনগণের সরকার ছাড়া তিস্তার পানির ন্যায্য হিস্যা পাওয়া যাবে না। দেশকে রক্ষা করতে হলে দেশের ৫৪টি নদীকে বাঁচাতে হবে। এই ৫৪টি নদী ভারত থেকে প্রভাহিত হয়েছে। প্রতিটি নদীতে বাঁধ দেয়া হয়েছে। বিশেষ করে উত্তরাঞ্চলের ৮ জেলার ৩ কোটি মানুষকে বাঁচাতে হলে তিস্তার পানির ন্যায্য হিস্যা আদায় করতে হবে।

বগুড়া জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদিন চাঁনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ডঃ এম ওসমান ফারুক, জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য (কাজী জাফর) আহসান হাবীব লিংকন, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা ডঃ আসাদুজ্জামান রিপন, হাবিবুর রহমান হাবিব, খায়রুল কবির খোকন, মীর নেওয়াজ আলী, কেন্দ্রীয় মহিলা দলের সভানেত্রী নূরে আরা সাফা, জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সাধারণ সম্পাদক অধ্য সোহরাব হোসেন ,বগুড়া জেলা বিএনপি নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শোকরানা, মীর শাহে আলম, মাহবুবর রহমান বকুল , তাহাউদ্দিন নাহিন, মাফতুন আহম্মেদ খান রুবেল প্রমুখ। এ ছাড়া জোটের শরীক দলের মধ্যে জেলা জামায়াতের নায়েবে আমীর ও শিবগন্জ উপজেলা চেয়ারম্যান মাওলানা আলমগীর হোসাইন, সদর উপজেলা আমীর অধ্যাপক রফিকুল আলম, সেক্রেটারী মাওলানা আব্দুর রশিদ, জামায়াত নেতা নাসির উদ্দিন, ইন্জিনিয়ার বজলুর রহমান, ইসলামী ইক্যজোটের সভাপতি শামছুল হক, এলডিপির সাধারন সম্পাদক নাজির হোসেন উপস্থিত ছিলেন। সভায় জামায়াতের বেশ কিছু নেতাকর্মী অংশ নেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, জনগণের স্বার্থে, আমরা কোন ছাড় দিব না। আমাদের দাবি আদায় করে ছাড়বো। তিস্তা সহ সকল আন্তর্জাতিক নদ নদীর পানি ন্যায্য হিস্যার জন্য দেশের ভিতরে ও বাইরে জনমত ও আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। তিস্তার পানির ন্যায্য হিস্যার জন্য দলমত নির্বিশেষে দেশের জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুলাহ আল নোমান বলেন, তিস্তা সমস্যা বিএনপির দলীয় সমস্যা নয় , জাতীয় সমস্যা। তাই দলমত নির্বিশেষে সবাইকে ন্যায্য হিস্যা আদায়ে জোরদার আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ডঃ এম ওসমান ফারুক বলেন, দেশের স্বার্থ নিয়ে এ সরকার কখনও কথা বলেনা। আমাদের নদীর পানি দিয়ে বিদ্যু উৎপাদন করে আমাদের নিকট বিক্রি করতে চায় ভারত।

আরেক উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট আহমেদ আজম বলেন , ভারত যতই চেষ্টা করুক তিস্তার পানি ধরে রাখতে পারবে না। সভায় কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন নাজিমুদ্দিন আলম, অধ্যক্ষ সোহরাব আলী, ঢাকা জেলা সভাপতি আব্দুল মান্নান চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, মেজর (অবঃ) হাফিজ উদ্দিন আহমদ। পথসভা শেষে লং মার্চ রংপুরের উদ্দেশে রওনা হয়ে যায়। এই সরকার পানি আনতে পারবে না।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ