• শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১:১৬ পূর্বাহ্ন |

রাজারহাটে ভূমি কর্মকর্তা কর্তৃক সাংবাদিক লাঞ্চিত

kurigramরাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি: কুড়িগ্রামের রাজারহাট উপজেলার নাজিমখান ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আবু সাত্তারের বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়মের তথ্য পেয়ে প্রেসকাব রাজারহাট এর সহ-সভাপতি ও দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার রাজারহাট সংবাদদাতা সহ ৩ সাংবাদিক ওই অফিসে তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে আবু সাত্তার উত্তেজিত হয়ে সাংবাদিকের উপর হামলার চেষ্টা চালায়। এরই এক পর্যায়ে ওই অফিস তদন্তে কুড়িগ্রাম এডিসি (রাজস্ব) এস.এম আবু হোরায়রা উপস্থিত হলে সে শান্ত হয়। তাৎণিকভাবে সাংবাদিকরা এডিসি (রাজস্ব) কে ওই ভূমি কর্মকর্তার বিষয়ে জানালে তিনি তদন্ত পূর্বক আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিলে সাংবাদিকরা চলে আসে।
অভিযোগে জানা যায়, স্থানীয় বাসিন্দারা জমির খাজনা-খারিজ করতে গেলে ওই ভূমি কর্মকর্তা জমির মালিকদের কাছ থেকে সরকারি খাজনার দোহাই দিয়ে মোটা অংকের টাকা গ্রহণ পূর্বক পাকা রশিদ মূলে কম টাকা তুলে আঙ্গুল ফুলে কলাগাছ বনে গেছে। প্রতি খারিজের জন্য ৬-৭ হাজার টাকা ছাড়া খারিজ মেলেনা। এ ধরনের বিস্তর অভিযোগ তার বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে কুড়িগ্রাম এডিসি (রাজস্ব) এস.এম আবু হোরায়রা বলেন, সাংবাদিকদের মৌখিকভাবে পাওয়া অভিযোগটি তদন্তপূর্বক ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। রাজারহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস.এম. মাজহারুল ইসলামের সঙ্গে কথা হলে তিনি বলেন, এডিসি (রাজস্ব) স্যার ওই অফিস পরিদর্শনে যাচ্ছেন, আপনারা তাঁকে বিষয়টি অবহিত করেন। প্রেসকাব রাজারহাট-এর সহঃ সভাপতি আলতাফ হোসেন সরকারসহ ৩ সাংবাদিকের উপর এ ন্যাক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা আড়াইটায় প্রেসকাব সভাপতি সহঃ অধ্যাপক সাজেদুর রহমান মন্ডল (চাঁদ)’র সভাপতিত্বে এক জরুরী সভায় ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণসহ তাকে ৭২ ঘন্টার মধ্যে অপসারনের দাবী জানিয়ে নিন্দা জ্ঞাপন করেছেন-প্রেসকাব সহঃ সভাপতি এম. আজিজুল হক (দৈনিক জনতা ও আইনএনবি), সাঃ সম্পাদক আনিছুর রহমান লিটন (আমার দেশ ও মুক্ত সকাল), যুগ্ম সাঃ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম (দৈনিক মানবজমিন), সাংগঠনিক সম্পাদক এস.এ বাবলু (দৈনিক ভোরের কাগজ), কোষাধ্য আবু তাহের (দৈনিক কালবেলা), লুৎফর রহমান আঁশু (দৈনিক দিনকাল), নূর আলম বসুনীয়া (দৈনিক ইনকিলাব), মুকুল কোঙর (দৈনিক অর্থনীতি), আনোয়ারুল আলম আঙ্গুর (নয়াদেশ), রনজিৎ কুমার রায় (দৈনিক ভোরের পাতা), প্রভাষক এনামুল হক (দৈনিক চারিদিকে প্রতিদিন), মাহফুজার রহমান মনু (দৈনিক অর্থনীতি প্রতিদিন), এনামুল হক (দৈনিক বায়ান্নর আলো), এ.এস লিমন (দৈনিক প্রথম খবর) প্রমূখ। উল্লেখ্য, নাজিমখান ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা (তহশিলদার) আবু সাত্তার যোগদানের পর থেকে অফিসটিকে দূর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত করেছে বলে এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে। তার খুঁটির জোর কোথায়? তা এলাকাবাসী জানতে চায়। তিনি কারণে-অকারণে তার কাছে কোন সংবাদ কর্মী তথ্য সংগ্রহ করতে গেলে দাম্ভিকের সহিত বলে গোটা জেলার সাংবাদিক তার পকেটে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Red Chilli Saidpur

আর্কাইভ